হোম / আহলে হাদীস

আহলে হাদীস

ওয়াসওয়াসাঃ মাযহাব যদি মানতেই হয় তাহলে কুরআন হাদীস পড়ে লাভ কি?

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী আসসালামু আলাইকুম। ওয়াআলাইকুম আসসালাম ওয়ারাহমাতুল্লাহ। লুৎফুর রহমান ফরায়েজী সাহেব বলছেন? হু। বলেন। হুজুরের কী সময় আছে? কয়েক মিনিট কথা ছিল। বলেন। চার মাযহাবই যদি হক হয়, তাহলে যারা কোন মাযহাবই মানে না, তাদের হুকুম কী? তারা কি পথভ্রষ্ট? আপনি আমাকে আগে বলেন, চার মাযহাব হক বলতে আপনি …

আরো পড়ুন

পাঁচ ওয়াক্ত ও অন্যান্য নামাযের মাসনূন কিরাত

মূল : মাওলানা খন্দকার মনসুর আহমদ সংযোজন : মাওলানা মুহাম্মাদ রাফিদ আমীন নযরে ছানী ও সম্পাদনা : মাওলানা মুহাম্মাদ আবদুল মালেক নামায  আমাদের  দৈনন্দিন জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত, আখেরাতের পরম পাথেয় এবং ইসলামের অন্যতম বুনিয়াদ। এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হচ্ছে কেরাত। নামাযে কুরআনে কারীম থেকে তিলাওয়াত করা জরুরি। প্রথমে …

আরো পড়ুন

কুরআনী শব্দ ‘সালাত সওম’ ইত্যাদি শব্দের বদলে ‘নামায রোযা’ ইত্যাদি বললে গোনাহ হবে?

প্রশ্ন From: Almaruf Khan মোবাইল/ইমেইলঃ almarufkhanalmarufkhan9@gmail.com বিষয়ঃ কুরআনী শব্দ বর্জন প্রসঙ্গ। প্রশ্নঃ আস সালামু আলাইকুম ওয়া রাহামাতুল্লাহ্ বারাকাতহু। প্রশ্ন হলো – কুরআনী শব্দ সালাত ,সাওম, মুসলিম, আল্লাহ্‌ ইত্যাদি বর্জন করে উক্ত কুরআনী শব্দগুলির পরিবর্তে নামাজ, রোজা, মুসলমান, খোদা ইত্যাদি ব্যাবহার কত সালে কে শুরু করেছিলেন এবং আমরা কুরআন বহির্ভূত শব্দ …

আরো পড়ুন

ইমাম আবূ হানীফা রহঃ এর উদ্ভাবনকৃত মাসায়েল সম্পর্কে কেমন ধারণা রাখা উচিত?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার জানার বিষয় হল, আমাদের দেশের কতিপয় সালাফী আলেম, যারা মক্কা বা মদীনা ইউনিভার্সিটি থেকে পড়াশোনা করে এসেছেন। তারা বলতে চান যে, ইমাম আবু হানীফা রহঃ এর উদ্ভাবনকৃত মাসায়েল এর তীব্র বিরোধীতা করে থাকে। আরো সহজ করে বললে তারা হানাফী মাযহাবের তীব্র বিরোধী। হানাফী মাযহাবের মাসায়েলকে …

আরো পড়ুন

আহলে হাদীস মতাদর্শীদের হাদীস অস্বিকারকারী হিসেবে কাফির বলা যাবে?

প্রশ্ন From: মুফতী রিজওয়ান রফিকী বিষয়ঃ অাহলে হাদিস প্রশ্নঃ লা-মাযহাবীগণ তো অনেক সহিহ হাদীসকে অস্বীকার করে থাকে। তাহলে কি কাদের মুসলমান বলা যাবে? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم হাদীসটি যদি মুতাওয়াতির পর্যায়ের হয়, তাহলে সেই হাদীস অস্বিকারকারী কাফির হবে। আর যদি হাদীসটি সেই পর্যায়ের না হয়, বরং জঈফ বা মতভেদপূর্ণ …

আরো পড়ুন

কাযাকৃত নামাযের জন্য তওবাই যথেষ্ট নাকি কাযা নামায আদায়ও করতে হবে?

প্রশ্ন আসসালামুআলাইকুম। আমার বয়স ২৪ বছর, এতদিন আমি নামায পড়েছি আবার ইচ্ছাকৃতভাবে ছেড়েও দিয়েছি, গীবত, পরনিন্দা, বেপর্দা, গান বাজনা, ব্নধু বান্ধব, ইত্যাদি এমন কোনো পাপ নেই যা আমার দ্বারা মনে হয় সংঘটিত হয়নি,, এখন আমি তওবা করতে চাই,, আপনার কাছে আমার প্রশ্ন হলো আমি যে নামাযগুলো কাযা করেছি যা সংখ্যা …

আরো পড়ুন

জুমআর খুৎবা মাতৃভাষায় দেয়া সুন্নাহ সম্মত?

আবূ মুয়াবিয়া লুৎফুর রহমান ফরায়েজী জুমআর খুতবা অন্য কোন ভাষায় প্রদান করা বিদআত। আরবী ছাড়া অন্য কোন ভাষায় খুতবা প্রদান করা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এবং পরবর্তীতে কোন সাহাবী থেকেই প্রমাণিত নয়। নবীজী সাঃ এর মৃত্যুকালের শেষ সময়ে আরবের বাহিরের অনেক অনারবী মুসলমানই মসজিদে নববীতে এসে নামায পড়তো। কিন্তু কোনদিনও …

আরো পড়ুন

ইসলামের অপব্যাখ্যাকারীদের নাম নিয়ে দোষ বলা কি নিষিদ্ধ গীবতের অন্তর্ভূক্ত?

প্রশ্ন From: মোঃরাসেল বিষয়ঃ গীবত বিষয়ে প্রশ্নঃ হযরত আমার প্রশ্ন হল গীবত করা হরাম তা জানি কিন্তু শুনেছি কিছু গীবত করা জায়েজ তা যানাবেন। আর একটা প্রশ্ন হল আমি যদি ইসলামের অপব্যখ্যা করে (আহলে হাদীস), নবীর নামে ভুল হাদিস বলে এমন ব্যক্তির নাম নিয়ে Facebook ,internet, বা সাধারন মানুষকে তাদের …

আরো পড়ুন

রুকুতে মহিলারা কতটুকু ঝুঁকবে? দলীলসহ জানতে চাই

প্রশ্ন From: Mamun বিষয়ঃ মহিলাদের নামাজ প্রশ্নঃ জনাব, আস সালামু আলাইকুম, আমার প্রশ্ন হলঃ নামাজে মহিলাদের কিছু ভিন্নতা আছে বলে আমরা জানি। কিছু কিছু ভিন্নতা (যেমন হাত উঠানো, হাত বাধা, তাসাহূদে বসা, সিজদাহ করা্‌ ইত্যাদির তফাৎ বুঝতে পেরেছি, বা জেনেছি। এ বিষয়ে কোন প্রশ্ন নেই। আমার প্রশ্ন হল, রুকু নিয়ে। …

আরো পড়ুন

তারাবীহ শব্দ কি হাদীস দ্বারা প্রমাণিত নয়?

প্রশ্ন তারাবীহ শব্দটি কোন হাদিস দ্বারা প্রমাণিত কি? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم তারাবীহ শব্দটি সাহাবায়ে কেরাম এবং তাবেয়ীগণের বক্তব্যের আলোকে প্রমাণিত। তারাবীহ শব্দটি বহুবচন। যার এক বচন হল, ‘তারবীহাতুন’। যার অর্থ হল, চার রাকাআত পর একবার বিশ্রাম নেয়া। তিনের অধিক পরিমাণ চার রাকাআত পরপর বিশ্রাম নেবার নাম হল, ‘তারাবীহ’। …

আরো পড়ুন

নামাযে কোথায় ও কিভাবে হাত বাঁধা সুন্নত?

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ দ্বীন। আদম আলাইহিস সালাম থেকে নিয়ে ঈসা আলাইহিস সালাম পর্যন্ত কোন নবীকে আল্লাহ তাআ’লা পূর্ণাঙ্গ দ্বীন ও শরীয়ত প্রদান করেননি। কারণ, তারা সাময়িক নবী ছিলেন। নিজ সম্প্রদায়ের নবী ছিলেন। মৃত্যুর সাথে সাথে তাদের নবুয়তের দায়িত্ব শেষ হয়ে যেতো। এরপর নতুন নবী আসতেন। তিনি এসে …

আরো পড়ুন

তারাবীহ এর রাকাত সংখ্যা ও লা-মাযহাবী বন্ধুদের জালিয়াতিসমূহ

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী এ বিষয়ে ৪টি শিরোনামে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করবো ইনশাআল্লাহ। যথা- ১-আট রাকাত তারাবী দাবীদাররা মূলত তারাবী মানেই না। ২-তারাবী নামায আট রাকাত হতেই পারে না। ৩-লা-মাযহাবীদের প্রকাশিত বইয়ের আলোকেই তারাবী নামায বিশ রাকাত। ৪-তারাবী নামায নিয়ে লা-মাযহাবীদের অবিশ্বাস্য জালিয়াতি তারাবী নামায আট রাকাত দাবীদার মূলত তারাবী মানেই না! …

আরো পড়ুন