হোম / আহলে হাদীস

আহলে হাদীস

বিতর সালাত সম্পর্কে মুযাফফর বিন মুহসিনের নজীরবিহীন প্রতারণা ও জালিয়াতি

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু মুযাফফর বিন মুহসিন তার ‘জাল হাদীছের কবলে রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এর ছালাত’ বইয়ে বিতর নামায সম্পর্কেও অনেক জালিয়তি ও ভুল তথ্য পেশ করেছেন। তিনি চেষ্টা করেছেন একথা প্রমাণ করার যে, বিতর ছালাত এক রাকাত অথবা তিন রাকাত হলে দুই সালামে কিংবা দ্বিতীয় রাকাতে বৈঠক ব্যতিত এক …

আরো পড়ুন

মুযাফফর বিন মুহসিন কেন জাল হাদীসের কবলে? আল্লামা আলবানী একাডেমীর অবিশ্বাস্য জালিয়াতি

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু লেখক মুযাফফর বিন মুহসিন তার  জাল হাদীছের কবলে রাসূলুল্লাহ ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ছালাত বইতে হানাফী জাল হাদীস ধরার জন্য যেন জাল পেতেছেন। অবশেষে নিজের পাতা জালে নিজেই আটকা পড়েছেন। মানসুখ কাহিনী : ঐতিহাসিক মিথ্যাচার শিরোনামে তিনি রাসূল সা. যে সারা জীবন রফয়ে ইয়াদায়ন করেছেন তার …

আরো পড়ুন

রফউল ইয়াদাইনের মাসআলায় মুযাফফর বিন মুহসিনের আজব প্রতারণা

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু এ মাসআলায় আমাদের লা-মাযহাবী বন্ধু মুযাফফর বিন মুহসিন তার জাল হাদীছের কবলে রাসূলুল্লাহ ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ছালাত নামক বইটিতে বলেছেন: ‘জ্ঞাতব্য : রাফউল ইয়াদায়েনের সুন্নাতকে রহিত করার জন্য আব্দুল্লাহ ইবনু জুবাইর, আব্দুল্লাহ ইবনু আব্বাস, আব্দুল্লাহ ইবনু মাসউদ (রা.) এই অন্যতম শ্রেষ্ঠ কয়েকজন ছাহাবীর নামে উক্ত …

আরো পড়ুন

শুধু তাকবীরে তাহরীমার সময় রফয়ে ইয়াদাইন সুন্নত

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু একাধিক হাদীস ও অধিকাংশ সাহাবী ও তাবেয়ীর আমল একথা প্রমাণ করে যে, নামাযে শুধু প্রথম তাকবীরের সময় কান পর্যন্ত হাত তোলা সুন্নত। রুকুতে যাওয়ার সময় এবং রুকু থেকে ওঠার সময় হাত তোলা সুন্নত নয়। সাহাবীগনের যুগে মদীনা শরীফ এবং কুফা এই দুটি শহরেই অধিকাংশ সাহাবী …

আরো পড়ুন

স্বশব্দে আমীন বলার হাদীসগুলো কী সহীহ?

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু জোরে আমীন বলার হাদীস : একটু পর্যালোচনা জোরে আমীন বলা সম্পর্কিত হাদীসগুলি সম্পর্কে মূল কথা হলো, যেটি সহীহ, সেটি সুস্পষ্ট(صريح) নয়। আর যেটি সুস্পষ্ট সেটি সহীহ নয়। যেমন: ১ বুখারী ও মুসলিম প্রভৃতি গ্রন্থে اذا امن الامام فامنوا হাদীসটি উদ্ধৃত হয়েছে। এ বাক্যটির একটি অর্থ …

আরো পড়ুন

সহীহ হাদীসের আলোকে নামাযে নিরবে আমীন বলা সুন্নত

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু আমীন সম্পর্কেও কিছু লোক বাড়াবাড়ি করে। তারা বলে নামাযে আমীন জোরে বলতে হবে। আস্তে বলা সুন্নতের পরিপন্থী। তাদের একথা সঠিক নয়। হাদীস শরীফ, অধিকাংশ সাহাবী ও তাবেয়ী’র আমল দ্বারা একথাই প্রমাণিত হয় যে, আমীন আস্তে বলাই সুন্নত। নিমস্বরে আমীন বলা অধিকাংশ সাহাবী ও তাবেয়ীর আমল …

আরো পড়ুন

দুই সেজদার মাঝের বৈঠকে দুআ করা কী ওয়াজিব?

প্রশ্ন From: Muhamad jobayar বিষয়ঃ দুই সেজদার মাজে দুয়া  পড়া কি ওয়াজিব। প্রশ্নঃ আসসালামু ওয়ালাইকুম, আমরাতো দুয়া পড়তে হবে বা দুয়া পড়া ওয়াজিব মনে করি না, কিন্তু এখানে শায়েখ কি বলছেন,দুই সিজদাহর মাঝে দুআ পড়া ওয়াজিব,এ দোআ যদি কেউ ভুলে ছেড়ে দেয় তাহলে তাকে সাহু সিজদাহ করতে হবে আর যদি …

আরো পড়ুন

কুরআন পড়ে ঈসালে সওয়াবের কোন প্রমাণ হাদীস নেই?

প্রশ্ন কুরআন পড়ে মৃত ব্যক্তির জন্য ঈসালে সওয়াবের কথা কী হাদীসে আছে? আজকাল কিছু লা মাযহাবী আলেমরা বলছেন যে, এর কোন প্রমাণ নাকি হাদীসের কোথাও নেই। দয়া করে জানালে কৃতজ্ঞ হবো। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم কুরআন পড়ে ঈসালে সওয়াবের কথা হাদীসে বিদ্যমান রয়েছে। এটা অস্বিকার করার কোন সুযোগ নেই। …

আরো পড়ুন

উমরী কাযা মাসআলায় কয়েকটি জরুরী জ্ঞাতব্য

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু আগের লেখাটি পড়ে নিনঃ কুরআন ও সুন্নাহের আলোকে উমরী কাযার বিধান   ১. আলোচ্য মাসআলার শিরোনামটি ‘উমরী কাযা’ সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রসিদ্ধির নিরিখেই অবলম্বন করা হয়েছে। অন্যথায় এর সঠিক নাম হবে قضاء الفوائت ‘কাযাউল ফাওয়াইত’। এ নামটিই বিষয়বস্তুর অধিক উপযুক্ত । কেননা ‘উমরী কাযা’ নামে …

আরো পড়ুন

কুরআন ও সুন্নাহের আলোকে উমরী কাযার বিধান

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু তাওহীদ, রিসালত ও আখেরাতের আলোচনার পর কুরআনে সর্বাধিক গুরুত্ব নামাযের প্রতি দেওয়া হয়েছে। বস্তুত শরীয়তে ঈমানের পরেই নামাযের স্থান এবং তা ইসলামের অন্যতম স্তম্ভ। এক হাদীসে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন: رأس الامر الاسلام وعموده الصلاة وذروة سنامه الجهاد. رواه الترمذى فى سننه ۲/۸۹ …

আরো পড়ুন

মির্যা গোলাম আহমদ কাদিয়ানী হানাফী মাযহাবের অনুসারী ছিল না আহলে হাদীস?

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী উপমহাদেশের অধিকাংশ গায়রে মুকাল্লিদ তথা কথিত আহলে হাদীসরা একথা প্রচার করে থাকে যে, মীর্যা গোলাম আহমদ কাদিয়ানী হানাফী ছিল। কাদিয়ানী হানাফী হওয়ার কারণে মুজাদ্দিদ, মসীহ, মাহদী এবং অবশেষে নবুুয়তের দাবি করে থাকে। একথাও বলা হয় যে, কাদিয়ানী তার অনুসারীদের হানাফীদের অনুসরনের কথা বলে গেছে। হানাফী ফিক্বহ এবং …

আরো পড়ুন