প্রচ্ছদ / Tag Archives: ইসলামী আইন

Tag Archives: ইসলামী আইন

ইসলামী শরীয়া বিষয়ে কবি হাসান মাহমুদের অজ্ঞতা ও ধৃষ্টতা (পর্ব-৭) প্রসঙ্গ গান-বাজনা

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী পর্ব-৬ পড়তে ক্লিক করুন গান হাসান মাহমুদ লিখেন: গানকে হারাম, অপমানিত ও নিষিদ্ধ করেছে শারিয়াপন্থীদের (সবাই নন) কেতাব, সংগঠন, শারিয়া আইন এবং কোথাও কোথাও সরকারি আইনও। গানের কুৎসিৎ কথা, কুৎসিৎ অঙ্গভঙ্গি বা গানের অতিরিক্ত নেশায় জীবনের ক্ষতি ইত্যাদির সীমা টানেননি তাঁরা,পুরো সঙ্গীতকেই বাতিল করেছেন ঢালাওভাবে। [শারিয়া কি …

আরও পড়ুন

ইসলামী শরিয়া বিষয়ে কবি হাসান মাহমুদের অজ্ঞতা ও ধৃষ্টতা (পর্ব-৬) প্রসঙ্গ নারী সাক্ষী

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী আগের পর্বটি পড়তে ক্লিক করুন সাক্ষী না থাকায় অপরাধী মুক্ত? হাসান মাহমুদ লিখেন: মনে করুন কোন মা-বোনের চোখের সামনে খুন বা ডাকাতি হল, সেখানে আর কেউ নেই। শারিয়া-আদালতে মামলা গেল, মা-বোন সাক্ষী দিতে গেলেন। কিন্তু শারিয়ায় তাঁদের চাক্ষুষ সাক্ষ্য নেয়া হবে না। কারণ আইনটা হল − “খুনীর …

আরও পড়ুন

ইসলামী শারিয়া বিষয়ে কবি হাসান মাহমুদের অজ্ঞতা ও ধৃষ্টতা (পর্ব-৫) প্রসঙ্গ মুরতাদের শাস্তি

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী ৪র্থ পর্বটি পড়তে ক্লিক করুন মুরতাদের মৃত্যুদণ্ড আল্লাহর আইন নয়? হাসান মাহমুদ লিখেন: সম্প্রতি প্রচণ্ড আন্তর্জাতিক চাপে আফগানিস্তানের মুরতাদ আবদুর রহমানকে ছেড়ে দেয়া হল। এর আগে শারিয়ায় শাস্তি-প্রাপ্ত নাইজেরিয়ার আমিনা লাওয়াল ও সাফিয়া, পাকিস্তানের ডঃ ইউনুস ও জাফরান বিবিকেও ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এ-রকমভাবে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে বারবার …

আরও পড়ুন

ইসলামী শরীয়ত বিষয়ে কবি হাসান মাহমুদের অজ্ঞতা ও ধৃষ্টতা (পর্ব-৪) প্রসঙ্গ তালাক

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী আগের লেখাটি পড়তে ক্লিক করুন হাসান মাহমুদ লিখেন: সূত্র ১।  অর্থাৎ শারিয়া আইনে স্বামী তার স্ত্রীকে তাৎক্ষণিক পুরো তালাক দিতে পারে। কিন্তু রসুলের কিছু হাদিসে আমরা দেখতে পাই উল্টোটা, যেমনঃ (ক) “এক ব্যক্তি তার স্ত্রীকে তিন-তালাক একসাথে দিয়েছে শুনে রসুল (দঃ) রাগে দাঁড়িয়ে গেলেন এবং বললেন, তোমরা …

আরও পড়ুন

ইসলামী শরীয়ত বিষয়ে কবি হাসান মাহমুদের অজ্ঞতা ও ধৃষ্টতা (পর্ব-৩) প্রসঙ্গ নারী নেতৃত্ব

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী আগের লেখাটি পড়তে ক্লিক করুন ১ হাসান মাহমুদ লিখেন: সমস্ত সহি হাদিসে নারী-নেত্রীত্বের বিরুদ্ধে নাম-ধাম সহ সুস্পষ্ট হাদিস আছে মাত্র একটি, মাত্র একজন সাহাবীর বলা। [শারিয়া কি বলে-১৮] উত্তর এটি হাসান মাহমুদ সাহেবের হাদীস সম্পর্কে অজ্ঞতার কারণে বলা। এ সংক্রান্ত একাধিক হাদীস আছে। যেমন- عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ، …

আরও পড়ুন

ইসলামী শরীয়ত বিষয়ে কবি হাসান মাহমুদের অজ্ঞতা ও ধৃষ্টতা (পর্ব-২)

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী আগের পর্বটি পড়তে ক্লিক করুন অজ্ঞতা নং-৩ কবি হাসান মাহমুদ লেখেন: “আসলে পরকীয়ার মৃত্যুদণ্ডের বিধান এসেছে ইহুদী-কেতাব ডিউটেরোনমি থেকে”। [শারিয়া কি বলে-২৮] উত্তর পরকিয়া তথা বিবাহিত ব্যভিচারীর শাস্তি রজম করে মৃত্যুদণ্ডের আইন কোন ইহুদী খৃষ্টান কিতাব থেকে আসেনি। এটি এসেছে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের বাণী থেকে। রাসূল …

আরও পড়ুন

আন্তঃধর্মীয় বিবাহ আইনঃ কী বলে ইসলাম?

মাওলানা মুহাম্মদ আনসারুল্লাহ হাসান মানব রচিত আইন ও বিধানে পরিবর্তন তথা পরিবর্ধন-পরিমার্জন ও সংস্কার সাধন হতে পারে এবং হয়েও আসছে। কারণ সীমাবদ্ধ জ্ঞানের অধিকারী মানুষের স্বাভাবিকভাবেই ভুল হয়। তারা বিভিন্ন চিন্তা-চেতনা ও মন-মানসিকতায় আক্রান্ত হয়। নানা পথ ও মতের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। স্বার্থ ও আবেগের কারণে বিভ্রান্ত হয়। পক্ষান্তরে আল্লাহ রাববুল আলামীন সকল মাখলুকের স্রষ্টা ও বিশ্বজগতের পালনকর্তা। তাঁকে কখনো ভুল-ভ্রান্তি স্পর্শ করে না। তাঁর কোনো ভুলভ্রান্তি ও ত্রুটি-বিচ্যুতি হতে পারে না। তিনি সকল দোষ ও দুর্বলতা এবং সকল সীমা ও সীমাবদ্ধতার উর্ধ্বে মহান পূত-পবিত্র সত্ত্বা। সুতরাং তার নাযিলকৃত আইন ও বিধানে কোনো ধরনের পরিবর্তন ও সংস্কার হতে পারে না। আল্লাহর বিধানে কোনো ধরনের পরিবর্তন সাধন বা কোনো ধরনের বিরুদ্ধাচরণ চরম অন্যায় ও জঘন্যতম অপরাধ। যারা আল্লাহর বিধানে হাত দেওয়ার দুঃসাহস করে, আল্লাহর আইনে পরিবর্তন ও সংস্কারের চিন্তা-ভাবনা করে তারা চরম দুষ্কৃতিকারী, বড় জালিম এবং আল্লাহর জমিনে ফাসাদ সৃষ্টিকারী। তারা ইসলাম থেকে বহিষ্কৃত। আল্লাহ তাআলা কুরআন মজীদে বিবাহ ও তালাকের বিধান বর্ণনা করার পর ইরশাদ করেছেন- تِلْكَ حُدُودُ اللَّهِ فَلَا تَعْتَدُوهَا وَمَنْ يَتَعَدَّ حُدُودَ اللَّهِ فَأُولَئِكَ هُمُ الظَّالِمُونَ (তরজমা) এ সবই আল্লাহর নির্ধারিত সীমারেখা। সুতরাং তোমরা তা লঙ্ঘন করো না। যারা আল্লাহর সীমা লঙ্ঘন করে তারা বড়ই জালিম।-সূরা বাকারা (২) : ২২৯ অনুরূপভাবে উত্তরাধিকার সম্পত্তির বণ্টনে আল্লাহ তাআলা কুরআনে নির্ধারিত অংশগুলোকে ‘আল্লাহর পক্ষ থেকে নির্ধারিত হিস্যা’  আখ্যায়িত  করে ঘোষণা করেছেন- تِلْكَ حُدُودُ اللَّهِ وَمَنْ يُطِعِ اللَّهَ وَرَسُولَهُ يُدْخِلْهُ جَنَّاتٍ تَجْرِي مِنْ تَحْتِهَا الْأَنْهَارُ خَالِدِينَ فِيهَا وَذَلِكَ الْفَوْزُ الْعَظِيمُ * وَمَنْ يَعْصِ اللَّهَ وَرَسُولَهُ وَيَتَعَدَّ حُدُودَهُ يُدْخِلْهُ نَارًا …

আরও পড়ুন

অমুসলিম রাষ্ট্রের সাথে মুসলিম রাষ্ট্রের যুদ্ধ হলে অমুসলিম রাষ্ট্রের অধিবাসী মুসলিমরা কার পক্ষ নিবে?

প্রশ্ন কোন মুসলিম দেশের সাথে যদি কোন অমুসলিম (সংখ্যাগরিষ্ট) দেশের যুদ্ধ শুরু হয়ে তবে ইসলামী শরীয়াহ মতে অমুসলিম দেশের মুসলমানগণ কার পক্ষে যুদ্ধ করবে বা কাকে সমর্থন করবে? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم অবশ্যই মুসলমানদের পক্ষে যুদ্ধ করবে এবং মুসলমানদের সমর্থন করবে। নিজেদের মারাত্মক ক্ষতি হবার শংকা হলে সেখান থেকে …

আরও পড়ুন

মুসলিম ও অমুসলিম রাষ্ট্র কোন মানদণ্ডের ভিত্তিতে নির্ণিত হয়?

প্রশ্ন মুসলিম ও অমুসলিম দেশ কিসের মানদন্ডে বা উপর ভিত্তি করে নির্ণয় করা হয়? উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم প্রশ্নটি অপূর্ণাঙ্গ। মুসলিম অমুসলিম এর মানদণ্ড কীসের ভিত্তিতে জানার প্রশ্ন করছেন? বর্তমান প্রচলিত রূপ হিসেবে? নাকি শরয়ী দৃষ্টিকোণ থেকে। বর্তমান প্রচলিত দৃষ্টিকোণ থেকে যে দেশের সংবিধানে …

আরও পড়ুন
আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস