প্রচ্ছদ / Tag Archives: আজান সম্পর্কিত

Tag Archives: আজান সম্পর্কিত

আজানের পর হাত উঠিয়ে দুআ করার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: Absar Ali বিষয়: আজান এর পর হাত তুলে দুআ করার বিধান। প্রশ্ন: আসসালামু আলাইকুম। আমার প্রশ্নটা হল, আজান এর পর হাত তুলে দুআ করা কি শরীয়তসম্মত? প্লিজ একটু তাড়াতাড়ি জানাবেন। আবসার আলী। ইন্ডিয়া। ওয়েস্ট বেঙ্গল। উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم আজানের পর হাত …

আরও পড়ুন

ইকামত শুরু হলে কখন দাঁড়ানো সুন্নাহ সম্মত?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম। মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, চট্টগ্রামসহ বেশ কিছু এলাকায় আমি দেখেছি যে, ইকামত দেবার সময় মুসল্লিগণ বসে থাকে। কেউ দাঁড়াতে চাইলে তাকে বসে থাকতে বলাও অনেক স্থানে। যখন মুয়াজ্জিন হাইয়া আলাল ফালাহ বলার পর বসা থেকে উঠে কাতার সোজা করা হয়। আমি এক ইমামকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম …

আরও পড়ুন

আজানের দুআর শেষে ‘ইন্নাকা লা তুখলিফুল মী’আদ’ বলা কি বিদআত?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, আমাদের এলাকার কিছু লা মাযহাবীরা বলে যে, আজানের দুআর শেষে ‘ইন্নাকা লা তুখলিফুল মী’আদ’ বলা নাকি বিদআত। এ বিষয়ে হুজুরের কাছ থেকে সঠিক বক্তব্য আশা করছি। দয়া করে জানালে কৃতার্থ হবো। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم আজানের দুআর শেষে ‘ইন্নাকা লা তুখলিফুল মী’আদ’ …

আরও পড়ুন

একাকী নামায আদায়কারী ব্যক্তি ইকামত দিবে নাকি দিবে না?

প্রশ্ন From: Md. Monirul Islam বিষয়ঃ একাকী নামাযে একামত বলা প্রশ্নঃ আমি যদি একাকী নামায পড়ি তাহলে একামত বলা কি জরুরী? না বললে কোন সমস্যা হবে? বিস্তারিত জানালে ভাল হয়। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم একাকী নামাযী ব্যক্তি যদি মুসাফির হয়, তাহলে তার জন্য ইকামত দিয়ে নামায পড়তে হবে। ইকামত …

আরও পড়ুন

একই ব্যক্তির জন্য ইকামত দিয়ে ইমামতী করার হুকুম কী?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারকাতুহু। সম্মানিত মুফতি সাহেব, আমাদের এলাকায় একটি ইবাদত খানা আছে যেটির জন্য নির্দিষ্ট কোন মুয়াজ্জিন ও ইমাম নির্ধারিত নেই। তবে সেই ইবাদত খানায় এলাকার একজন মুরব্বি নিয়মিত নামাজ পড়ান। তিনি নিজে ইকামত দেন এবং নিজেই ইমামতি করেন অথচ মুসল্লিগণের মদ্ধ্যে এমন ব্যাক্তিও উপস্থিত থাকেন যারা সহিহ …

আরও পড়ুন

নামাযের সময় শুরু হবার আগে আজান দিলে করণীয় কী?

প্রশ্ন নামাযের সময় শুরু হওয়র আগে আজান দিলে নামাজের হুকুম কী? প্রশ্নকর্তা-মোহাম্মদ সোহেল। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم আগে আজান দিয়ে দিলে, সময় হবার পর আবার আজান দিতে হবে। সময় হবার পর আবার আজান না দিয়ে নামায পড়লে নামায খেলাফে সুন্নত হবে। বাকি নামাযের ফরজিয়্যাত আদায় হয়ে যাবে। তবে আজান …

আরও পড়ুন
আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস