হোম / নামায/সালাত/ইমামত

নামায/সালাত/ইমামত

সারাক্ষণ প্রস্রাব ঝড়ে এমন ব্যক্তির জন্য ইমামতী করার হুকুম কী?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, সারাক্ষণ প্রস্রাব ঝড়ে এমন ব্যক্তির জন্য ইমামতী করার হুকুম কী? উত্তর بسم الله الرحمن الحيم এমন ব্যক্তির জন্য সুস্থ্য ব্যক্তিদের ইমামতী করা জায়েজ নয়। فإن المعذور صلاته ضرورية فلا يصح اقتداء غيره به “كالرعاف” الدائم وانفلات الريح (مراقى الفلاح، كتاب الصلاة، باب الإمامة-288-289) …

আরো পড়ুন

সেজদা অবস্থায় প্রস্রাবের ফোটা ঝড়ে এমন ব্যক্তির জন্য ইমামতী করার হুকুম কী?

প্রশ্ন সেজদা অবস্থায় প্রস্রাবের ফোটা ঝড়ে, এমন ব্যক্তির জন্য ইমামতী করার হুকুম কী? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم এমন ব্যক্তির জন্য সুস্থ্য ব্যক্তিদের ইমামতী করতে পারবে না। তাই ইমামতী করা থেকে বিরত থাকতে হবে। السادس السلامة من الأعذار فإن المعذور صلاته ضرورية فلا يصح اقتداء غيره به الخ (مراق الفلاح-157، …

আরো পড়ুন

পিছনের রাস্তা দিয়ে কিছুক্ষণ পরপর বায়ু বের হয় এমন ব্যক্তি ইমামতী করতে পারবে কি?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, আমি একটি মসজিদের ইমাম। ক’দিন যাবত আমার একটা সমস্যা হচ্ছে। সেটি হল, আমি রুকু সেজদায় গেলেই পিছনের রাস্তা দিয়ে বাতাস বের হয়ে যায়। চিকিৎসা করানোর পরও কোন কাজ হচ্ছে না। এখন আমার প্রশ্ন হল, আমার জন্য ইমামতী করার অনুমতি আছে কি? উত্তর بسم …

আরো পড়ুন

সারাক্ষণ রক্ত পেশাব বা বাতাস বের হয় এমন ব্যক্তি কিভাবে নামায পড়বে?

প্রশ্ন যে ব্যক্তির সারাক্ষণ প্রস্রাব ঝরে, বা কিছুক্ষণ পরপরই পিছনের রাস্তা দিয়ে বাতাস বের হয়, বা শরীরের কোন অঙ্গ দিয়ে রক্ত বা পূঁজ বের হতে থাকে, এমন ব্যক্তি কিভাবে পবিত্রতা অর্জন করে নামায পড়বে? দয়া করে জানালে কৃতার্থ হবো। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم মাজূর ব্যক্তির প্রতি নামাযের ওয়াক্ত আসার …

আরো পড়ুন

জুমআর খুৎবা মাতৃভাষায় দেয়া সুন্নাহ সম্মত?

আবূ মুয়াবিয়া লুৎফুর রহমান ফরায়েজী জুমআর খুতবা অন্য কোন ভাষায় প্রদান করা বিদআত। আরবী ছাড়া অন্য কোন ভাষায় খুতবা প্রদান করা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এবং পরবর্তীতে কোন সাহাবী থেকেই প্রমাণিত নয়। নবীজী সাঃ এর মৃত্যুকালের শেষ সময়ে আরবের বাহিরের অনেক অনারবী মুসলমানই মসজিদে নববীতে এসে নামায পড়তো। কিন্তু কোনদিনও …

আরো পড়ুন

‌আল্লাহ তাআলা সব ভাষা জানার পরও নামায আরবী ভাষাতেই কেন পড়তে হয়?

প্রশ্ন From: মোঃ জহিরুল ইসলাম বিষয়ঃ নামাজ/নামাজের মধ্যে শব্দ আরবি ভাষাতেই হতে হয় প্রশ্নঃ আসসালামু আলায়কুম।আমরা জানি নামাজ/নামাজের মধ্যে শব্দ আরবি ভাষাতে পরতে হয় যদিও আমাদের মাতৃ ভাষা আরবি না হয়। আল্লাহ্‌ সুবাহানাহুয়াতালা সব ভাষা জানেন তাকে যে ভাষাতে ডাকা হোকনা কেন। আমার জানার ইচ্ছা বা প্রশ্ন হল শরীয়তের হুকুম …

আরো পড়ুন

রুকুতে মহিলারা কতটুকু ঝুঁকবে? দলীলসহ জানতে চাই

প্রশ্ন From: Mamun বিষয়ঃ মহিলাদের নামাজ প্রশ্নঃ জনাব, আস সালামু আলাইকুম, আমার প্রশ্ন হলঃ নামাজে মহিলাদের কিছু ভিন্নতা আছে বলে আমরা জানি। কিছু কিছু ভিন্নতা (যেমন হাত উঠানো, হাত বাধা, তাসাহূদে বসা, সিজদাহ করা্‌ ইত্যাদির তফাৎ বুঝতে পেরেছি, বা জেনেছি। এ বিষয়ে কোন প্রশ্ন নেই। আমার প্রশ্ন হল, রুকু নিয়ে। …

আরো পড়ুন

সিজদায় ইমামের অযু ভেঙ্গে গেলে করণীয় কী? ইমামের খলীফা নামায কিভাবে শেষ করবেন?

প্রশ্ন মুহাম্মাদ কাওছার, সিলেট শাহপরান (রহ.) আসসালামু আলাইকুম … প্রশ্ন ইমামের ওযু নস্ট হলে আর সিজদারত হলে কিভাবে খলিফা বানাবেন এবং খলিফা কিভাবে ( শুরু) থেকে নামাজ শেষ করবেন? উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم ইমাম সাহেব সেজদা থেকে মাথা তুলে পিছনের মুসল্লিদের মাঝে যাকে উপযুক্ত …

আরো পড়ুন

নামাযে মাতৃভাষায় দুআ করা যাবে?

প্রশ্ন From: nazmul huda বিষয়ঃ namaz প্রশ্নঃ মোঃ নাজমুল হুদা- ঢাকা পলিটেকনিক-তেজগাঁও-ঢাকা-১২০৮ আসসালামুয়ালাইকুম। হযরত আমরা নামাজ ভঙ্গের কারণ এর মধ্যে জানি। ১-নামাজের ভিতর কথা বলা,২-নামাজে সাংসারিক কথা বলা। আমি জানি যে হুজুর (সঃ),সাহাবী(রাঃ),তাবেয়ী, তারা যে কোন সমস্যায় পরলে নফল নামাযে দাড়াতেন। এবং আল্লাহ রব্বুল আলামিন এর নিকট দুয়া করতেন। আমি …

আরো পড়ুন

তারাবীহ শব্দ কি হাদীস দ্বারা প্রমাণিত নয়?

প্রশ্ন তারাবীহ শব্দটি কোন হাদিস দ্বারা প্রমাণিত কি? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم তারাবীহ শব্দটি সাহাবায়ে কেরাম এবং তাবেয়ীগণের বক্তব্যের আলোকে প্রমাণিত। তারাবীহ শব্দটি বহুবচন। যার এক বচন হল, ‘তারবীহাতুন’। যার অর্থ হল, চার রাকাআত পর একবার বিশ্রাম নেয়া। তিনের অধিক পরিমাণ চার রাকাআত পরপর বিশ্রাম নেবার নাম হল, ‘তারাবীহ’। …

আরো পড়ুন

নামাযে কোথায় ও কিভাবে হাত বাঁধা সুন্নত?

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ দ্বীন। আদম আলাইহিস সালাম থেকে নিয়ে ঈসা আলাইহিস সালাম পর্যন্ত কোন নবীকে আল্লাহ তাআ’লা পূর্ণাঙ্গ দ্বীন ও শরীয়ত প্রদান করেননি। কারণ, তারা সাময়িক নবী ছিলেন। নিজ সম্প্রদায়ের নবী ছিলেন। মৃত্যুর সাথে সাথে তাদের নবুয়তের দায়িত্ব শেষ হয়ে যেতো। এরপর নতুন নবী আসতেন। তিনি এসে …

আরো পড়ুন

তারাবীহ এর রাকাত সংখ্যা ও লা-মাযহাবী বন্ধুদের জালিয়াতিসমূহ

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী এ বিষয়ে ৪টি শিরোনামে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করবো ইনশাআল্লাহ। যথা- ১-আট রাকাত তারাবী দাবীদাররা মূলত তারাবী মানেই না। ২-তারাবী নামায আট রাকাত হতেই পারে না। ৩-লা-মাযহাবীদের প্রকাশিত বইয়ের আলোকেই তারাবী নামায বিশ রাকাত। ৪-তারাবী নামায নিয়ে লা-মাযহাবীদের অবিশ্বাস্য জালিয়াতি তারাবী নামায আট রাকাত দাবীদার মূলত তারাবী মানেই না! …

আরো পড়ুন