প্রচ্ছদ / প্রশ্নোত্তর / জীবদ্দশায় কন্যা সন্তানকে যাবতীয় সম্পদ লিখে দেবার হুকুম কী?

জীবদ্দশায় কন্যা সন্তানকে যাবতীয় সম্পদ লিখে দেবার হুকুম কী?

প্রশ্ন

From: ফাহিমুর রহমান

বিষয়ঃ ওয়ারিশ

কারও যদি শুধু একটি মেয়ে থাকে (কোন ছেলে নেই) আর সব সম্পত্তি মেয়েকে লিখে দিতে চায় এ ক্ষেত্রে শরিয়তের কি কোন নিষেধ আছে? দলিল সহ জানালে উপকৃত হব।

যদি না থাকে তাহলে সব সম্পত্তি প্রদানের ক্ষেত্রে কোন হাদীস বা দলীল আছে কি?

(স্ত্রী আছে কিন্তু তার এ ক্ষেত্রে কোন দ্বিমত নাই)

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

ব্যক্তি তার জীবদ্দশায় সুস্থ থাকাবস্থায়,তার সম্পদের যথেচ্ছা হস্তক্ষেপের অধিকার রাখে। সেই হিসেবে মেয়েকেও মৃত্যুর পূর্বে সমস্ত  সম্পত্তি লিখে দিতে পারবে। তবে মৃতু ব্যক্তি যদি অন্য কোন ওয়ারিসকে তার ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত করার জন্য এমনটি করে থাকে,তাহলে একারনে সে গুনাহগার হবে। কিন্তু এতে করে মেয়ের পূর্ণ সম্পত্তির মালিক হওয়ার মাঝে কোন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হবে না। বরং এ সম্পত্তির মালিক মেয়ে হয়ে যাবে।

এক্ষেত্রে কোন নিষেধাজ্ঞা হাদীসের কিতাবে বিদ্যমান নেই।

 وفى الهندية- ولو وهب رجل شيئا لأولاده في الصحة وأراد تفضيل البعض علي البعض  في ذالك لا رواية لهذا في الأصل عن أصحابنا وروي عن أبي حنيفة رحمه الله تعالى أنه لا بأس به إذا كان التفضيل بزيادة فضل له في الدين وإن كان سواء يكره وروي المعلى عن أبي يوسف رحمه الله تعالى أنه  لا بأس به إذا لم يقصد به الإضرار وإن قصد به الإضرار سوى بينهم يعطي الابنة مثل مايعطي للإبن وعليه الفتوى هكذا في فتاوى قاضيخان ‘ وهو المختار كذافي الظهيرية ‘   (الفتاوى الهندية 4/ 437‘ دار الكتب العلمية بيروت‘ 4/391 زكريا‘ ردالمحتار‘ كتاب الهبة ‘ 12/608 ‘ زكريا‘دارعالم الكتب‘رياض)

وفي البزازية – ولو وهب جميع ماله من إبنه جاز وهو اثم نص عليه محمد ‘ و لو خص بعض أولاده لزيادة رشده لابأس به  (فتاوى البزازية  مع الهندية كتاب الهبة‘ الجنس الثالث في هبة الغير‘ 6/237 مكتبة زكريا )ٍ

 

তথ্যসূত্র

১) ফাতাওয়া কাজী খান ৬/২৩৭

২) ফাতওয়া আলমগীরী-৪/৩৯১

৩) ফাতওয়া শামী-১২/৬০৮

৪) কিতাবুন নাওয়াজেল ১২/২১৩

৫) আহসানুল ফাতওয়া ৭/২৫৬

৬) ফাতওয়া রহিমীয়া ৯/৩১৪

৭) ফাতওয়ায়ে মাহমুদিয়া ১৬/৪৯৬-৫০৫

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

আফজাল হুসাইন ফারুকী

শিক্ষক: তালীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

সত্যায়নে

মুফতি লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক: তালীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

বিবাহের মাঝে প্রয়োজনের অতিরিক্ত ব্যয় করার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: মোঃ আবুল কাশেম বিষয়ঃ বিয়ের মধ্যে লাইটিং,ডেকোরেটর,গেট,অনেক মানুষ খাওয়ানো এবং সাজ-সজ্জা প্রসেঙ্গ। প্রশ্নঃ …

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস