প্রচ্ছদ / নামায/সালাত/ইমামত / প্রথম রাকাতে যে সূরা পড়া হল দ্বিতীয় রাকাতে সেই সূরার পর এক সূরা বাদ দিয়ে পরের সূরা পড়ার বিধান কী?

প্রথম রাকাতে যে সূরা পড়া হল দ্বিতীয় রাকাতে সেই সূরার পর এক সূরা বাদ দিয়ে পরের সূরা পড়ার বিধান কী?

প্রশ্ন:

মুহতারাম, আমি একজন জেনারেল এডুকেটেড। আমি নামাজে সূরা ফাতেহার সাথে সূরা মিলানোর ক্ষেত্রে অনেক সময় প্রথম রাকাতে যে সূরা মিলিয়েছে দ্বিতীয় রাকাতে তার পরে একটি সূরা বাদ দিয়ে তারপরের সূরা পড়ি। জানার বিষয় হলো, এভাবে নামাজ পড়লে কোন সমস্যা হবে কিনা?

নিবেদক

মোঃ হারুনুর রশিদ

রামপুরা, ঢাকা

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

 প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে দ্বিতীয় রাকাতে যে সূরাটি বাদ দেয়া হয়েছে,তা যদি ছোট হয় তাহলে মাকরূহে তানজিহী হবে।

তবে যদি দ্বিতীয় সূরাটি প্রথম সূরা অপেক্ষা এ পরিমাণ লম্বা হয় যে, তা পড়লে দ্বিতীয় রাকাত প্রথম রাকাত অপেক্ষা দীর্ঘ হয়ে যাবে,তাহলে তা ছেড়ে দিয়ে পরের সূরা পড়া যাবে।  মাকরূহ হবে না।

جاء في “فتح القدير” 352:1، ط: التهانوية: والانتقال من آية من سورة إلى آية من سورة أخرى أو من هذه السورة بينهما آيات مكروه، وكذا الجمع بين سورتين بينهما سور أو سورة في ركعة، أما في الركعتين فإن كان بينهما سور أو سورتان لا يكره، وإن كان سورة قيل يكره، وقيل إن كانت طويلة لا يكره كما إذا كانت سورتان قصيرتان.اهـ.  

“الفتاوى التاتارخانية” إذا جمع السورتين بينهما سورة واحدة فإنه يكره، وفي الذخيرة بالاتفاق، وإن كان في الركعتين، فإن كان بينهما سورة لا يكره، وإن كانت سورة واحدة، قال بعضهم: يكره، وقال بعضهم: إن كانت السورة طويلة لا يكره، وقال بعضهم: لا يكره اصلا.اهـ.

وفي “رد المحتار” 3330:2، ط: الأزهر، ( قوله ويكره الفصل بسورة قصيرة ) أما بسورة طويلة بحيث يلزم منه إطالة الركعة الثانية إطالة كثيرة فلا يكره شرح المنية : كما إذا كانت سورتان قصيرتان، ، وهذا لو في ركعتين أما في ركعة فيكره الجمع بين سورتين بينهما سور أو سورة فتح.اهـ.

ويراجع ايضا: “شرح المنية” ص494، ط: اشرفية، “فتاوى محمودية” 510:10.

والله أعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

মোঃ মিজানুর রহমান

শিক্ষার্থী: ফতোয়া বিভাগ

তা’লীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

সত্যায়ন

মুফতী লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী– তা’লীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

বিবাহের মাঝে প্রয়োজনের অতিরিক্ত ব্যয় করার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: মোঃ আবুল কাশেম বিষয়ঃ বিয়ের মধ্যে লাইটিং,ডেকোরেটর,গেট,অনেক মানুষ খাওয়ানো এবং সাজ-সজ্জা প্রসেঙ্গ। প্রশ্নঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস