প্রচ্ছদ / আজান ও ইকামত / নামাযের সময় শুরু হবার আগে আজান দিলে করণীয় কী?

নামাযের সময় শুরু হবার আগে আজান দিলে করণীয় কী?

প্রশ্ন

নামাযের সময় শুরু হওয়র আগে আজান দিলে নামাজের হুকুম কী?

প্রশ্নকর্তা-মোহাম্মদ সোহেল।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

আগে আজান দিয়ে দিলে, সময় হবার পর আবার আজান দিতে হবে। সময় হবার পর আবার আজান না দিয়ে নামায পড়লে নামায খেলাফে সুন্নত হবে।

বাকি নামাযের ফরজিয়্যাত আদায় হয়ে যাবে। তবে আজান না দেয়ায় সুন্নতটি তরক হবে।

عَنِ ابْنِ عُمَرَ، أَنَّ بِلَالًا أَذَّنَ قَبْلَ طُلُوعِ الْفَجْرِ، فَأَمَرَهُ النَّبِيُّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ أَنْ يَرْجِعَ

হযরত ইবনে উমর রাঃ থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, নিশ্চয় হযরত বেলাল রাঃ একদা ফজরের সময় হবার আগেই আজান দিলেন। তখন নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে পুনরায় আজান দিতে আদেশ করলেন। [সুনানে আবূ দাউদ, হাদীস নং-৫৩২, তাহাবী শরীফ, হাদীস নং-৮৬৪, সুনানে দারাকুতনী, হাদীস নং-৯৫৪]

(وَإِنْ أَذَّنَ قَبْلَ دُخُولِ الْوَقْتِ لَمْ يُجْزِهِ وَيُعِيدُهُ فِي الْوَقْتِ) لِأَنَّ الْمَقْصُودَ مِنْ الْأَذَانِ إعْلَامُ النَّاسِ بِدُخُولِ الْوَقْتِ فَقَبْلَ الْوَقْتِ يَكُونُ تَجْهِيلًا لَا إعْلَامًا وَلِأَنَّ الْمُؤَذِّنَ مُؤْتَمَنٌ قَالَ – صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ – «الْإِمَامُ ضَامِنٌ وَالْمُؤَذِّنُ مُؤْتَمَنٌ اللَّهُمَّ أَرْشِدْ الْأَئِمَّةَ وَاغْفِرْ لِلْمُؤَذِّنِينَ» وَفِي الْأَذَانِ قَبْلَ الْوَقْتِ إظْهَارُ الْخِيَانَةِ فِيمَا ائْتُمِنَ فِيهِ وَلَوْ جَازَ الْأَذَانُ قَبْلَ الْوَقْتِ لَأَذَّنَ عِنْدَ الصُّبْحِ خَمْسَ مَرَّاتٍ لِخَمْسِ صَلَوَاتٍ وَذَلِكَ لَا يُجَوِّزُهُ أَحَدٌ (المبسوط للسرخسى-1/134)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা-জামিয়া ফারুকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

জিলহজ্জের প্রথম দশকের চুল নখ না কাটার বিধানটির সময়সীমা কতটুকু?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম। আমরা ইতোপূর্বে আপনাদের ফাতওয়া বিভাগ থেকে প্রকাশিত একটি ফাতওয়ার মাধ্যমে জানতে পেরেছি …