প্রচ্ছদ / নির্বাচিত / রমজানে বিশেষ দুআর আবেদন!

রমজানে বিশেষ দুআর আবেদন!

তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা

[ফিক্বহে ইসলামী ও ফিরাক্বে বাতিলা বিষয়ে গবেষণামূলক উচ্চতর গবেষণা প্রতিষ্ঠান]

১৫০/সি,ওয়াপদা রোড পশ্চিম রামপুরা, ঢাকা।

[রামপুরা পাওয়ার হাউজের দক্ষিণ পাশের ৬ষ্ঠ তলা]

ওয়েব- https://ahlehaqmedia.com/

ইউটিউব-www.youtube.com/ahlehaqmediabd

 

আসসলামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহু!

আহলে হক মিডিয়া ও তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টারের সকল শুভাকাংখী ও শুভানুধ্যায়ীবৃন্দ!

বিগত ১৪৩৫ হিজরীর এ রমজান মাসেই যাত্রা শুরু করেছিল তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ও আহলে হক মিডিয়া।

অনেক কিছু করার স্বপ্ন নিয়ে আমরা এগিয়ে ছিলাম পা। উদ্দেশ্য ছিল মুসলমানদের দ্বীন ও ঈমান বিনষ্টকারী ফিতনা, মুসলমানদের ঐক্য বিনষ্টকারী সকল ফিতনার দালিলিকভাবে মুকাবিলা করতে গড়ে তোলা হবে একটি সুদৃঢ় প্লাটফর্ম। খৃষ্টান মিশনারী, শিয়া, কাদিয়ানী, নাস্তিকতা, হিন্দুইজম, শিরক বিদআত ও গায়রে মুকাল্লিদিয়্যাত ফিতনা মুকাবিলায় একদল অকুতোভয় ইলমী সৈনিক কাজ করে যাবে নিরলস।

থাকবে শিয়া বিশেষজ্ঞ, থাকবে কাদিয়ানী বিশেষজ্ঞ, থাকবে ঈসাইয়্যাত বিশেষজ্ঞ। এমনিভাবে প্রতিটি ফিতনার মুকাবিলায় নির্দিষ্ট কিছু বিজ্ঞ আলেম দিন রাত কাজ করে যাবে। বাংলাদেশের যেকোন স্থানে তারা প্রয়োজনে ছুটে যাবে। তৈরী করবে প্রয়োজনীয় প্রবন্ধ নিবন্ধ, অডিও ভিডিও। প্রতিটি ফিরকার প্রোপাগান্ডার দালিলিক জবাব প্রদান ও হক প্রকাশের জন্য থাকবে আলাদা আলাদা ডিপার্টমেন্ট। থাকবে আলাদা বিশেষজ্ঞ আলেম গবেষক। যারা তাদের বিষয়ে হবে একেজন মুনাজির ও প্রাজ্ঞ বিশেষজ্ঞ।

স্বপ্নকে বাস্তবতায় রূপ দিতে অনেক ভাই অনুরোধ করলেন। আল্লাহর উপর ভরসা করে ১৪৩৫ হিজরীর পবিত্র মাহে রমজানে নেয়া হল অফিস। রাখা হল একজন কম্পিউটার বিশেষজ্ঞ। একজন খাদিম। শুরু হল আমাদের পথচলা। সেই জেনারেল শিক্ষিতদের জন্য নৈশ মাদরাসা।

ইতোমধ্যেই আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড হয়েছে প্রায় একশত ছিয়ান্নব্বইটি [১৯৬] ভিডিও। যাতে ইসলামের মৌলিক বিধানের অটলতা ও হক জামাতগুলোর উপর বাতিলপন্থীদের মিথ্যাচারের দালিলিক জবাব প্রদান করা হয়েছে। আরো প্রস্তুত হচ্ছে বেশ কিছু ভিডিও। উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বিশ্বব্যাপী ইসলামের সঠিক দাওয়াত প্রচারকারী জামাত “দাওয়াত ও তাবলীগ” এর উপর বাতিলপন্থীদের সকল অভিযোগের জবাব প্রকাশ করা হবে। দেয়া হবে পীর মুরিদীসহ আহলে হক উলামায়ে কেরামের উপর উত্থাপিত অনৈতিক অভিযোগের জবাবও।

প্রকাশিত হয়েছে ১,২৪৮ টির উপর প্রশ্নোত্তর। প্রবন্ধ নিবন্ধ ক্যাটাগরিতে প্রকাশিত হয়েছে ১৭২টি পোষ্ট আলহামদুলিল্লাহ।

যা দেশ বিদেশে অবস্থান করা বাংলাভাষী মুসলমানদের দ্বীন ও ঈমান হিফাযতে সুদৃঢ় ভূমিকা রাখছে মর্মে শুভাংখীরা বলছেন। আলহামদুলিল্লাহ!

সাধ ও সাধ্যের মাঝে যোজন যোজন ব্যবধান হয়। আমাদের স্বপ্ন ও বাস্তবায়নেও হয়েছে তাই। ছোট্ট অফিস ও ছোট স্টাফের খরচ বহনেই প্রতি মাসে খরচ হতো পঁয়তাল্লিশ হাজার টাকা [৪৫,০০০/=] এর উপরে।

সূচনা করার দু’ তিন মাস পরেই যা আমাদের জন্য দুঃসাধ্য হয়ে পড়ে। বেতন না দিতে পারায় কম্পিউটার অপারেটর চলে যেতে বাধ্য হয়। দ্বিধান্বিত হয়ে পড়ে প্রতিষ্ঠানটির ভবিষ্যত। এক সময় মনে হয় বন্ধ হয়ে যাওয়াই এর নিয়তি।

কিন্তু দয়ার আধার আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তার দয়ার ভান্ডার খুলে দিলেন। তৈরী করে দিলেন কিছু দ্বীনী ভাইকে। যাদের আন্তরিক দুআ ও সহযোগিতায় সামনে এগিয়ে চলার প্রত্যয় তৈরী হয়। সে সকল ভাইদের নাম উল্লেখ করে দুআ করতে ইচ্ছে হয়। শুধু এতটুকু বলি-আল্লাহ রাব্বুল আলামীন উক্ত ভাইদের তার শান অনুপাতে দুনিয়া ও আখেরাতে উত্তম বদলা দান করুন। আমীন।

অনেক চড়াই উৎরাই, শংকা-সংশয়ের মাঝেই আমরা দ্বিতীয় বছরের পূর্ণতায় পৌঁছে গেলাম আমরা। দ্বীনী ভাইয়েরা কতটুকু উপকৃত হয়েছেন এ প্রতিষ্ঠানের খিদমাত দ্বারা তা তারাই ভাল বলতে পারবেন। তবে একথা আমরা আল্লাহর উপর ভরসা করে বলে দিতে পারি যে, আমাদের এ অল্প দিনের অনভিজ্ঞ কার্যক্রমেও বাতিলপন্থীদের ভীত নড়ে উঠেছে আলহামদুলিল্লাহ। উন্মোচিত হচ্ছে ধীরে ধীরে তাদের মুখোশ।  আল্লাহ রাব্বুল আলামীন এ নগণ্য খিদমাতকে কবুল করুন।

আগামী বর্ষে বড়দের পরামর্শে “আততাখাসসুস ফিততাহক্বীকী ওয়াদদাওয়া” নামে একটি আলাদা বিভাগ খোলা হচ্ছে।

যাতে দাওরায়ে হাদীস পাশ করা মেধাবী ছাত্রদের ভর্তি করা হবে। এবং তাদের বিশেষভাবে ফিরক্বায়ে বাতিলা বিষয়ে যুগোপযোগী কাজ করার জন্য তৈরী করার চেষ্টা করা হবে।

বছরের মাঝখানে আর্থিক সংকটের কারণে প্রতিষ্ঠানের গতিপথ ব্যহত না হয়, তাই পবিত্র রমজান মাসেই পুরো বছরের একটি বাজেট নির্ধারণ করা হল।

আল্লাহর রহমতে শুভাকাংখীদের সার্বিক সহযোগিতায় রমজান মাসে বাজেটের ঘাটতি পূর্ণ হয়ে যাবার বিশেষ দুআর আবেদন রইল।

বার্ষিক খরচ

বাসা ভাড়া– ১৫,০০০ × ১২ = ১,৮০,০০০/= [প্রতি মাসে পনের হাজার টাকা হিসেবে আগামী বছরের জন্য প্রয়োজন এক লাখ আশি হাজার টাকা]

স্টাফ বেতন– ৩৮,০০০ × ১২ = ৪,৫৬,০০০/= [প্রতি মাসে আটত্রিশ হাজার টাকা হিসেবে বছরে চার লাখ ছাপ্পান্ন হাজার টাকা।

বোর্ডিং বাবত- ১০,০০০ × ১২ = ১,২০,০০০/= [প্রতি মাসে দশ হাজার টাকা হিসেবে আগামী বছরের জন্য প্রয়োজন এক লাখ বিশ হাজার টাকা]

নেট বিল আপ্যায়ন ও বিবিধ– ৫,০০০× ১২ =৬০,০০০/= [প্রতি মাসে পাঁচ হাজার টাকা হিসেবে বছরে ষাট হাজার টাকা।

সর্বমোট– ৮,১৬,০০০/= [আট লাখ ষোল হাজার টাকা]

এছাড়া আরো একটি কম্পিউটার ভাল ভিডিও ক্যামেরা এবং কিতাব ক্রয়ের  জন্য প্রয়োজন মোটা অংকের অর্থ।

যেসব খাতে অনুদান নেয়া হবে

১ বাসা ভাড়া, বিদ্যুৎ বিল খাত।

২ ষ্টাফ বেতন খাত।

৩- কুতুবখানা বাবত।

৪- লিল্লাহ বোর্ডিং খাত।

৫-আহলে হক মিডিয়ার সরঞ্জামাদী ক্রয়।

 

শুধুমাত্র গরীব ছাত্রদের জন্য বরাদ্দ খাতে যাকাতের টাকা প্রদান করা যাবে। বাকি খাতে কেবল সাধারণ অনুদান প্রদান করতে হবে।

আমরা জানি আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের খাজানায় কোন কমতি নেই। নেই তার দয়ারও কোন ঘাটতি। তিনি অসীম দয়ালু। তার কাছে এক টাকা যেমন এক কোটিও তেমন। তাই আমরা আশাবাদি আল্লাহ রাব্বুল আলামীন এমন কিছু বান্দাকে তৈরী করে দিবেন যারা এ দ্বীনী খিদমাতে স্বতস্ফুর্তভাবে এখলাসের সাথে এগিয়ে আসবে ইনশাআল্লাহ।

আল্লাহ রাব্বুল আলামীন আমাদের তার প্রিয় হিসেবে কবুল করুন। সকল কাজে ইখলাস ও লিল্লাহিয়্যাত দান করুন। কবুল করুন আমাদের সকলের সকল দ্বীনী খিদমাতকে। আমীন। ছুম্মা আমীন।

সার্বিক যোগাযোগ ও সহযোগিতা পাঠানোর ঠিকানা

মুফতী লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

১৫০/সি,ওয়াপদা রোড পশ্চিম রামপুরা, ঢাকা।

[রামপুরা পাওয়ার হাউজের দক্ষিণ পাশের ৬ষ্ঠ তলা]

একাউন্ট এড্রেস

islami bank bangladesh limited 

Branch Rampura, Dhaka

Account Title– LUTFOR RAHMAN FARAZI AKRAM

Account No– 20502260202166316

সংক্ষেপে–21663

Bkas– 01723785925।

মেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

মোবাইল-০১৭২৩৭৮৫৯২৫, ০১৯৬৬৬৩৮৩৫৬।

আরও জানুন

৮ ই আগস্ট খোলা ও সীমিত কোটায় ভর্তি চলবে এবং ১৫ই আগস্ট থেকে দরস শুরু ইনশাআল্লাহ!

আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ। তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকার সকল বিভাগের শিক্ষক, স্টাফ,  শিক্ষার্থী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *