প্রচ্ছদ / নামায/সালাত/ইমামত / নামাযের মাঝে নিয়ত পরিবর্তন ও নফল আদায়কারীর পেছনে ফরজ নামাযের ইক্তিদা করার হুকুম

নামাযের মাঝে নিয়ত পরিবর্তন ও নফল আদায়কারীর পেছনে ফরজ নামাযের ইক্তিদা করার হুকুম

প্রশ্ন

আসসালামু অলাইকুম

আমার দুটি প্রশ্ন

প্রশ্ন ১) নামাযের মধ্যে কি নিয়ত পরিবর্তন করা যায়?

প্রশ্ন ২) আমি সুন্নত বা নফল নামায আদায় করছি। ঠিক সে সময় আরো কয়েকজন লোক এসে আমাকে  ইমাম বানিয়ে ফরয নামায পড়া শুরু করে দিল এমতাবস্থায় কি নিয়ত পরিবর্তন করা যাবে?

আশাকরি দ্রুত উত্তর দিয়ে বাধিত করবেন

আমি মুহাম্মদ ফরিদ

পবিত্র মক্কা, সৌদি আরব

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

নামায এক নিয়তে শুরু করার পর নামাযের ভিতরে নিয়ত পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই।

নফল বা সুন্নাতের নিয়ত বাঁধা ব্যক্তির পিছনে ফরজের নিয়তে ইক্তিদা করা ব্যক্তির নামায শুদ্ধ হবে না। বরং তা নফল হিসেবে সাব্যস্ত হবে।


(قوله ولا عبرة بنية متأخرة) لأن الجزء الخالي عن النية لا يقع عبادة فلا ينبني الباقي عليه (رد المحتار،  كتاب الصلاة، باب شروط الصلاة، طبع سعيد ودار الفكر-1/417)
(قَوْلُهُ وَلَا تَبْطُلُ بِنِيَّةِ الْقَطْعِ) وَكَذَا بِنِيَّةِ الِانْتِقَالِ إلَى غَيْرِهَا (رد المحتار،  كتاب الصلاة، باب شروط الصلاة، طبع سعيد ودار الفكر-1/441)

الواجبات والفرائض لا تتأدي بمطلق النية اجماعا، كذا في الغياثية. فلا بد من التعيين، فيقول: نويت ظهر اليوم أو عصر اليوم أو فرض الوقت أو ظهر الوقت، كذا في شرح مقدمة أبي الليث. ولو افتتح الظهر ثم نوي التطوع أو العصر أو الفائتة أو الجنازة وكبر يخرج عن الأول ويشرع في الثاني والنية بدون التكبير ليس بمخرج، كذا في التتارخانية ناقلا عن العتابية (الفتاوى الهندية، كتاب الصلاة، الفصل الرابع فى النية-65-66) 

وَلَا يُصَلِّي الْمُفْتَرِضُ خَلْفَ الْمُتَنَفِّلِ) لِأَنَّ الِاقْتِدَاءَ بِنَاءٌ، وَوَصْفُ الْفَرْضِيَّةِ مَعْدُومٌ فِي حَقِّ الْإِمَامِ فَلَا يَتَحَقَّقُ الْبِنَاءُ عَلَى الْمَعْدُومِ (هداية، كتاب الصلاة، باب الإمامة، دار احياء التراث العربي – بيروت – لبنان-1/59، اشرفى-1/127)

(قَوْلُهُ: وَلَا يُصَلِّي الْمُفْتَرِضُ خَلْفَ الْمُتَنَفِّلِ) لِأَنَّ الِاقْتِدَاءَ بِنَاءٌ وَوَصْفُ الْفَرْضِيَّةِ مَعْدُومٌ فِي حَقِّ الْإِمَامِ فَلَا يَتَحَقَّقُ الْبِنَاءُ عَلَى الْمَعْدُومِ (الجهورة النيرة، كتاب الصلاة، باب صفة الصلاة، المطبعة الخيرية-1/62)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com 

আরও জানুন

ইতিকাফের কাযা করার সময় কি রোযা রাখা শর্ত?

প্রশ্ন প্রশ্নকারীর নাম: লুৎফর রহমান ঠিকানা: খৈশাইর জেলা/শহর: নারায়ণগঞ্জ দেশ: বাংলাদেশ প্রশ্নের বিষয়: ইতিকাফ বিষয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস