প্রচ্ছদ / অপরাধ ও গোনাহ / পড়াশোনার উজরের কারণে গর্ভের সন্তান নষ্ট করার হুকুম কী?

পড়াশোনার উজরের কারণে গর্ভের সন্তান নষ্ট করার হুকুম কী?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম। জরুরি প্রয়োজন, অনুগ্রহ করে তাড়াতাড়ি জানাবেন প্লিজ।

আমি ও আমার ওয়াইফ দুজনেই ভার্সিটিতে ভর্তি পরীক্ষা দিচ্ছি। আমাদের বিয়ের কথা মেয়ের বংশে সবাই জানে কিন্তু ছেলের বাড়িতে শুধু ফ্যামিলি বাদে কাউকে জানানো হয়নি। এক্সাম ও ভর্তি হওয়ার মিনিমাম ছয় মাস পর আয়োজন করে বউ ঘরে তুলে আনা হবে। এমতাবস্থায় কিছুদিন আগে জানতে পারলাম আমার ওয়াইফ সাত সপ্তাহের প্রেগন্যান্ট। আমার ও তার পড়াশুনা এবং পারিবারিক সম্মানের কথা চিন্তা করে আমরা এখন সন্তান নিতে চাচ্ছি না। শুনেছি চার মাস পর ভ্রুণদেহে রুহ আসে এবং তার আগে  গর্ভপাত করা জায়েজ! আমাদের পরিস্থিতি বিবেচনা করে গর্ভপাত করা যাবে কি?

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

এটা কোন শরয়ী উজর নয়। তাই এমতাবস্থায় চার মাস না হবার পরও গর্ভপাত করা মাকরূহে তানযিহী বা অনুত্তম কাজ হবে।

ويكره أن تسقى لإسقاط حملها، وجاز لعذر حيث يتصور (الدر المختار مع رد المحتار، كتاب الحظر والإباحة، باب الإستبراء وغيره-9/615)

المرضعة إذا ظهر بها الحبل وانقطع لبنها، وليس لأبى الصغير ما يستأجره الظئر، ويخاف هلاك الولد، قالوا: يباح لها أن تعالج فى استنزال الدم ما دام الحمل نطفة أو علقة أو مضغة لم يخلق له عضو (الفتاوى الخانية على هامش الهندية، كتاب الحظر والإباحة، فصل الختان-3/410، البحر الرائق-8/379، الفتاوى الهندية-5/356، رد المحتار-9/615)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

মুসলমানের জন্য কাফেরের সাথে বিবাহ করার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: সারওয়ার বিষয়ঃ অমুসলিম বা কাফের এর সাথে সম্পর্ক করা যাবে কি না?? প্রশ্নঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস