প্রচ্ছদ / দান-সদকা-হাদিয়া / বিয়ের অনুষ্ঠানে দেয়া উপহার সামগ্রীর মালিকানা কার?

বিয়ের অনুষ্ঠানে দেয়া উপহার সামগ্রীর মালিকানা কার?

প্রশ্ন

মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, বিয়ে শাদীতে যে উপহার সমাগ্রী এবং টাকা পয়সা প্রদান করা হয়। সেগুলো কার মালিকানায় থাকবে?

যেমন মেয়ের বাড়িতে যে অনুষ্ঠান মেয়ের বাবা করে থাকে, সেখানে যদি গয়না ও উপহার সামগ্রী উঠে। সেই সাথে টাকা পয়সাও প্রদান করে থাকে।

প্রশ্ন হল, এসবের মালিকানা কার?

বাবার নাকি মেয়ের? নাকি জামাইয়ের?

দয়া করে জানালে অনেক উপকার হতো।

জাযাকাল্লাহ।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

যারা উপহার প্রদান করেন, যদি তারা তা উল্লেখ করে দেন কার জন্য প্রদান করেছে, তাহলে যাকে দেয়া হচ্ছে তাকেই এর প্রাপক ধরা হবে।

আর যদি নাম উল্লেখ ছাড়া প্রদান করে থাকে, তাহলে দেখতে হবে যে, এ এলাকার উরফ তথা প্রথা কি?

যদি এর দ্বারা উদ্দেশ্য হয়ে থাকে, যিনি মেহমানদারীর আয়োজন করেছেন সেই পিতাকে আর্থিক সহযোগিতা করা। তাহলে এর মালিকানা বাবা হবে।

আর যদি রেওয়াজ থাকে যে, এটা মেয়ের জন্য, তাহলে মেয়েই মালিক হবে।

আর যদি ছেলের হয়, তাহলে ছেলে তথা বর হবে মালিক।

আর যদি কোন রেওয়াজ না থাকে, তাহলে যিনি হাদিয়া প্রদান করেছেন তার কাছ থেকে জেনে মালিকানা নির্ধারণ করে নিবে। বা পারস্পরিক আলোচনা সাপেক্ষে মালিকানা নির্ধারণ করে নিতে পারবে।

فإن كان من أقرباء الأب، أو من معارفه، فهى للأب، وإن كان من أقرباء الأم أو من معارفها، فهى للأم هكذا حكى عن الشيخ الإمام أبى القاسم والفقيه أبى الليث، وفى النوازل: وبه نأخذ، وفى الينابيع: وقال بعضهم: إذا قالوا: للولد، فهى له، وإن لم يقولوا شيئا، فهى للوالد، وكذالك إذا اتخذ وليمة لزفاف إلى بيت زوجها، فأهدى أقرباء الزوج أو اقرباء المرأة ابنته، وهذا كله إذا لم يقل المهدى أهديت للأب أو للأم فى المسألة الأولى، وللزوج أو للمرأة فى المسألة الثانية، وتعذر الرجوع إلى قول المهدى، أما إذا قال: فالقول قول المهدى، لأنه المملك، وفى الخانية: وقال بعضهم فى الأحوال كلها تكون الهبة للوالد، لأنه هو الذى اتخذ الوليمة، وقال بعضهم: يكون للولد والاعتماد على ماقلنا أولا (الفتاوى التاتارخانية، كتاب الهبة، الفصل الثالث فيما يتعلق بالتحليل وما يتصل به-14/440-441، رقم-61645-61646، رد المحتار، كتاب الهبة-12/605)

الثابت بالعرف كالثابت بالنص (قواعد الفقه-74، شرح عقود رسم المفتى-95)

الثابت بالعرف كالمشروط شرعا (قواعد الفقه-125)

المعروف عرفا كالمشروط شرعا (الأشباه والنظائر-156)

المعتمد البناء على العرف (رد المحتار-4/309

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

কবর না দিয়ে ফ্রিজিং করে রাখা লাশের সুওয়াল জওয়াব হবে কি?

প্রশ্ন মুহতারামের কাছে আমার প্রশ্ন হল, কোন ব্যক্তি মৃত্যুবরণ করার পর তাকে যদি ফ্রিজিং করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস