প্রচ্ছদ / তালাক/ডিভোর্স/হুরমত / স্ত্রীর দিকে নিসবত করার নিয়ত ছাড়া শুধু “তালাক” শব্দ বললেই কি স্ত্রী তালাক হয়ে যায়?

স্ত্রীর দিকে নিসবত করার নিয়ত ছাড়া শুধু “তালাক” শব্দ বললেই কি স্ত্রী তালাক হয়ে যায়?

প্রশ্ন

নামঃ হাবিব

দেশঃ বাংলাদেশ

প্রশ্নের বিষয়ঃ তালাক সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নের উত্তর জানতে চাই।

আসসালামু আলাইকুম মুফতি সাহেব, আশা করি আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন। আমার জন্য নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর জানা অতি জরুরী। দয়া করে উত্তর দিবেন।

আমি এই মুহুর্তে অবিবাহিত। ইন শা আল্লাহ দ্রুতই বিয়ে করতে যাচ্ছি। সাম্প্রতিককালে আপনাদের সাইটের মাধ্যমে ‘তালাক’ বিষয়ক বিভিন্ন লেখা পড়ার পর থেকে আমার মনে নানা চিন্তার উদ্ভব হতে থাকে। বিশেষ করে আপনাদের একটি পোস্ট  “যখনই বিয়ে করব আমার স্ত্রী তিন তালাক” এরকম কথা যে বলেছে সে ব্যক্তি বিয়ে করলেই কি তার স্ত্রী তালাক হয়ে যাবে? (https://ahlehaqmedia.com/1650) — এই লেখাটি পড়বার পর থেকে আমি নানারকম ওয়াসওয়াসার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি। আমার প্রশ্নগুলো হলো

১) আমি জেনেছি কেউ যদি ‘তালাক’ শব্দ উচ্চারণ করে, সেটা বুঝেই হোক আর মজা করেই হোক, সেটা স্ত্রীর উপর পতিত হয়ে যায়। কিন্তু মনে মন বললে তা হয় না। আমার প্রশ্ন হলো কেউ যদি ওয়াসওয়াসার কারণে তালাকের কথা অসাবধাণতা বশত শব্দ না করে উচ্চারণ করে, (যেমনটা আমরা অনেক জিকির করার সময় করি, শব্দ না শুনলেও ব্যক্তি জানে সে উচ্চারণ করেছে) , এমতাবস্থায় কি তালাক পতিত হবে কিনা ?

২) আগের প্রশ্নের উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, তাহলে আমি একদিন এ রকম অনেকক্ষণ ধরে ওয়াসওয়াসার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলাম, এমন সময় অসাবধানতা বশতঃ আমার মুখ দিয়ে বের হয়ে যাবার সময়ই নিজেকে সামলে নিয়ে বলি ” ‘বিয়ে করলে আমার স্ত্রী তালাক’ এই জাতীয় কথা আমি বলি না, এগুলা আমার কথা নয় “… আমার এরূপ বলার মধ্যে দিয় বিয়ে করলে আমার স্ত্রীর উপর তালাক পতিত হবে কিনা , দয়া করে জানাবেন।

৩) আমি শুনেছি, তালাকের সাথে ভবিষ্যত বাচক শব্দ ব্যবহার করলে ( যেমন তালাক দিবো, ছেড়ে দিবো ) তালাক হয় না। ওয়াদা রূপে গণ্য হয়, এমনকি এই ওয়াদা ভংগ হলেও তালাক হয় না। এটা কি ঠিক ?

দয়া করে জানাবেন হুজুর।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

১ নং এর জবাব

স্ত্রীর দিকে নিসবত করার নিয়ত ছাড়া এমনিতেই তালাক শব্দ বলার দ্বারা তালাক পতিত হয় না।

يشترط بالاتفاق القصد فى الطلاق، وهو إرادة التلفظ به ولو لم ينو فلا يقع طلاق فقيه يكره ولا طلاق حاك عن نفسه أو غيره لأنه لام يقصد معناه، بل قصد التعليم والحكاية، (الفقه الاسلام وادلته، كتاب الطلاق، باب شروط الطلاق-7/368)

لو كرر مسائل الطلاق بحضرة زوجته ويقول: أنت طالق ولا ينوى طلاقا لا تطلق، (فتح القدير، كتاب الطلاق، باب ايقاع الطلاق-4/4)

২ নং এর জবাব

নাহ, এমন শব্দ বললে তালাক পতিত হবে না।

৩ নং এর জবাব

আপনি ঠিকই শুনেছেন। ভবিষ্যতকালীন শব্দ দ্বারা তালাক প্রদান করলেও তালাক পতিত হয় না।

صيغة المضارع لا يقع بها الطلاق الا اذا غلب فى الحال كما صرح به الكمال بن الهمام (الفتاوى الحامدية، كتاب الطلاق-38، رشيدة)

وفى الدر المختار، بخلاف قوله طلقى نفسك فقالت أنا طالق، أو أنا اطلق نفسى، لم يقع لأنه وعد، (رد المحتار، كتاب الطلاق، باب تفويض الطلاق-3/319

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

আরও জানুন

কাবিননামার আঠার নং কলাম অনুপাতে স্ত্রী নিজের উপর তালাক পতিত করার অধিকার পায়?

প্রশ্ন From: Hasan বিষয়ঃ তালাকের ব্যাপারে ফতোয়ার আবেদন প্রশ্নঃ তালাক সম্পর্কে ফতোয়ার আবেদন =================== জনাব, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস