হোম / ট্যাগ আর্কাইভ

ট্যাগ আর্কাইভ

রোযাদার স্বামীর গুপ্তাঙ্গ স্পর্শ করার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: Rasel বিষয়ঃ রোজা বিষয়ক আসসালামু আলাইকুম। কোন এক রমজান মাসে দিনের বেলায় স্ত্রী  স্বামীকে  চুম্বন করে এবং এক পর্যায়ে স্বামীর গুপ্তাঙ্গটি তার মুখে নেয়। উল্লেখ্য, স্ত্রী সেদিন রোজা রাখেনি । প্রশ্ন হচ্ছে, এতে করে কী উক্ত স্বামীর রোজা কি ভেঙ্গে গেছে? (উল্লেখ্য, এর ফলে স্বামীর বীর্যপাত হয়নি)। উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم …

আরো পড়ুন

স্পর্শ করার দ্বারা বীর্যপাত হলে রোযা ভেঙ্গে যাবে কি?

প্রশ্ন স্ত্রীর সাথে সহবাস না করে স্ত্রীকে ছোঁয়ার কারনে বীর্যপাত হলে কি রোযা ভঙ্গ হয়ে যাবে? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم হ্যাঁ, স্পর্শের কারণে বীর্যপাত হলে রোযা ভঙ্গ হয়ে যাবে। তবে কাফফারা আবশ্যক হবে না। তাই বীর্যপাতের আশংকা হলে, রোযা রাখা অবস্থায় স্ত্রীকে উত্তেজনার সাথে স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকা আবশ্যক। …

আরো পড়ুন

রোযাদারের রক্ত মিশ্রিত থুথু পেটের ভিতরে চলে গেলে রোযার হুকুম কী?

প্রশ্ন দাঁতের সমস্যার কারনে অনেকের দাঁত দিয়ে রক্ত পড়ে। এক্ষেত্রে প্রায় সময় এমন হয়; ঘুম থেকে উঠার পর মুখ দিয়ে থুতুর সঙ্গে রক্ত বের হয়। অনেক সময় রক্তের পরিমান খুবই বেশি হয়। রক্তের থোক বলা চলে। অনেক সময় থুতু ফেলার আগে অনিচ্ছাকৃতভাবে গলার ভিতরে চলে যায়। অনেক সময় এমন হয় …

আরো পড়ুন

হস্তমৈথুনের মাধ্যমে ভঙ্গকৃত রোযার ক্ষেত্রে করণীয় কী?

প্রশ্ন মাননীয় মুফতি সাহেব! আস সালামুআলাইকুম। আপনাদের সাইটের মাধ্যমে অনেক অজানা বিষয় জানতে পেরেছি। আমার জানার বিষয় হচ্ছে হস্তমৈথুন্যজনিত কারনে আমি বিগত বছরগুলোর অনেক রোজা নষ্ট করেছি। এখন সেগুলো কিভাবে আদায় করব? যথাসম্ভব দ্রুত উত্তর জানালে ভাল হয়। উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم আগামী রমজান …

আরো পড়ুন

স্ত্রীর মুখের লালা গলায় চলে গেলে রোযার হুকুম কী?

প্রশ্নঃ আসসালামু আলাইকুম। রোজা অবস্থায় স্ত্রীর ঠোটে চুমু দেওয়ার ফলে যদি একের লালা অন্যের মুখে চলে যায় তাতে কী রোজা ভেঙে যাবে? উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم মুখে যাবার পর যদি তা গিলে ফেলা হয়, তাহলে রোযা ভেঙ্গে যাবে। পরবর্তীতে কাযা ও কাফফারা উভয়ই আবশ্যক …

আরো পড়ুন

রমজানে রোযা রাখা অবস্থায় স্ত্রীর সাথে জোরপূর্বক সহবাস করলে স্ত্রীর উপর কাযা ও কাফফারা আবশ্যক হয়?

প্রশ্ন রমজান মাসে স্বামী যদি জোরপূর্বক স্ত্রীর সাথে সহবাস করে, তাহলে স্ত্রীর উপর কাযা ও কাফফারা উভয়ই আবশ্যক হবে? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم স্ত্রী রাজি না থাকা অবস্থায় জোরপূর্বক যদি স্বামী সহবাস করে, তাহলে স্ত্রীর রোযা ভেঙ্গে যাবে। কিন্তু তার উপর শুধু পরবর্তীতে কাযা রাখা আবশ্যক হবে কাফফারা দিতে …

আরো পড়ুন

তারাবীহ না পড়লে রোযা হবে না?

প্রশ্ন From: মোঃ আফসার হোসেন বিষয়ঃ তারাবীর নামাজ আস সালামু আলাইকুম, রোজা রাখার ক্ষেত্রে তারাবীর নামাজের গুরুত্ব কী? তারাবীর নামাজ না পরলে কী রোজা হবেনা? অনেকে বলে তারাবীর নামাজ না পরলে রোজা আল্লাহর দরবারে পৌছায় না। এর সত্ততা কতটুকু? উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم রোযা রাখা ফরজ। তারাবীহ পড়া সুন্নতে …

আরো পড়ুন

প্রচন্ড অসুস্থ্য ব্যক্তি রোযা না রাখতে পারলে হুকুম কী?

প্রশ্ন জনাব  আসসালামু আলাইকুম , আমার লিভারে সমস্যা এবং জন্ডিস এর প্রদাহ জনিত রোগে ভুগছি দুমাস হচ্ছে। জন্ডিস একটা সময়ে কমে যাবে কিন্তু লিভারে ফ্যাট জমা হওয়ার দরুন শারীরিক অক্ষমতায় অন্তত ৬ মাস বা তার বেশি সময় আমাকে ডায়েট , এক্সারসাইজ এবং দৈনিক চারবেলা মেডিসিনের মধ্যে থাকতে হচ্ছে। তাড়াতাড়ি সুস্থ …

আরো পড়ুন

রোযা অবস্থায় স্ত্রীর সাথে সহবাসপূর্ব কাজ করলে রোযার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: মুস্তাকিম বিষয়ঃ রোজা রেখে সহবাস পূর্ববর্তী কাজ প্রসঙ্গে রোজা রেখে সহবাস পূর্ববর্তী সকল কাজ হল যেমন চুমু দেয়া, আলিঙ্গন করা, শিঙ্গার করা, স্তন মন্থন করা বা লজ্জা স্থানে হাত দিয়ে আদর করা এবং এতে মজি বাহির হওয়া এক কথায় সহবাস পূর্ববর্তী সকল কাজই সংঘটিত হয়েছে কিন্তু মহান সৃষ্টিকর্তার …

আরো পড়ুন

সহবাসের কাল্পনিক সুখ পেলে রোযা ভাঙ্গবে কি?

প্রশ্ন আমি মুসলিম আমার প্রশ্ন হচ্ছে আমি স্বজাগ থাকা অবস্থায় যদি কোন কারনে সহবাস এর মতো তৃপ্তি পাই অথচ আমার বীরয বের হয়নি তাহলে কি আমার নামায রোজা হবে??? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم রোযা ভঙ্গের কোন কারণ না থাকলে রোযা ভাঙ্গবে না। তবে এভাবে রোযা রেখে খারাপ চিন্তা মুক্ত …

আরো পড়ুন

ফজরের আজানের সময় সেহরী খেলে রোযার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: এ.এইচ.হৃদয় বিষয়ঃ ফজরের আযান অবস্থায় সাহরী খেলে রোজা হবে। আসসালামু আলাইকুম ওরাহমাতুল্লাহ! আমার একটি প্রশ্ন আছে তা হলো, ফজরের আযান অবস্থায় সাহরী খেলে কি রোজা হবে, বিস্তারিত দলিল প্রমাণ সহ উত্তর দিলে ভালো হয়। যাযাকাল্লাহ। উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم ফজরের আযানের সাথে …

আরো পড়ুন

নাক কান ও চোখে ওষুধ প্রবেশ করালে রোযা ভাঙ্গবে কি?

প্রশ্ন From: ডা: শামীম মিসির বিষয়ঃ রোজায় ওষুধ. সেবন রোজা রেখে চোখের, নাকের, কানের ড্রপ দেয়া যাবে কি? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم যদি নাকে, কানে ও চোখে ড্রপের মাধ্যমে ওষুধ দিলে তা খাদ্যনালীতে চলে যায়। তাহলে রোযা ভেঙ্গে যাবে। যদি না যায়, তাহলে ভাঙ্গবে না। তাই রোযা অবস্থায় এসব …

আরো পড়ুন