প্রচ্ছদ / কুরবানী/জবেহ/আকীকা / নিজের ওয়াজিব কুরবানী রেখে মৃতের নামে নফল কুরবানী দিলে নিজের ওয়াজিব কুরবানী সাকিত হবে কি?

নিজের ওয়াজিব কুরবানী রেখে মৃতের নামে নফল কুরবানী দিলে নিজের ওয়াজিব কুরবানী সাকিত হবে কি?

প্রশ্ন

নিজের ওয়াজিব কুরবানী রেখে মৃত মা/বাবার নামে কুরবানী দিলে কুরবানী দাতার ওয়াজিব আদায় হয়ে যাবে এবং মৃতরা ছাওয়াব পাবে।
শামী ৯/৪৮৪ তাতার খানিয়া ১৭/৪৪৪ كتاب الاضحية الفصل السابع.কিফায়াতুল মুফতী ৮/২২৩ কিতাবুন্নাওয়াঝেল ১৪/৫১৪-৫১৬ দেখার ও সঠিক উওর কোন টি জানানোর সবিনয় অনুরোধ রইল।’

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

মৃত ব্যক্তি যদি ওসিয়ত না করে যায়, তাহলে যার উপর কুরবানী ওয়াজিব এমন ব্যক্তি যদি নিজের ওয়াজিব কুরবানী রেখে মৃতের নামে নফল কুরবানীর নিয়তে কুরবানী করে, তাহলে কুরবানীদাতার উপর থেকে ওয়াজিব সাকিত হবে কি না?

এ মাসআলাটি নিয়ে ফিক্বহের কিতাবে মাঝে মতভেদ আছে। তেমনি আমাদের আকাবিরদের মাঝেও মতভেদ রয়েছে।

একদল ফুক্বাহাদের মতে কুরবানীদাতার নিজের ওয়াজিব কুরবানী আদায় হবে না বরং মৃতের নামে নফল কুরবানী হবে। তাই আরেকটি কুরবানী নিজের নামে করা আবশ্যক।

কিন্তু কতিপয় ফুক্বাহাদের মতে, এক্ষেত্রে মৃত ব্যক্তি সওয়াব পাবে, আর কুরবানীদাতার নিজের ওয়াজিব কুরবানীও আদায় হয়ে যাবে।

প্রথম মতটি যারা পোষণ করেন, তাদের বক্তব্য হল, কুরবানী ব্যক্তির উপর স্বতন্ত্রভাবে আবশ্যক। অন্যেরটি আদায় করার দ্বারা নিজেরটি আদায় হবে না।

তবে যদি শুধুমাত্র সওয়াব পৌছানো মাকসাদ হয়, তাহলে নিজের নামে কুরবানী করে, সওয়াব মৃতের নামে পৌছানোর নিয়ত করলে ব্যক্তির উপর থেকে কুরবানীর ওজুব সাকিত হবে, এবং মৃত সওয়াব ও পাবে।

কিন্তু নিজের নামে কুরবানী না করে, শুধু সওয়াব পৌঁছানো নয়, বরং পুরো কুরবানীটাই মৃতের নামে করলে কুরবানীদাতার উপর থেকে কুরবানীর আবশ্যকতা সাকিত হবে না। [ফাতাওয়া কাসিমিয়া-২২/২৭৫-২৭৬, ফাতাওয়া মাহমুদিয়া-১৭/৩৩০ ঢাবেল]

وهى واجبة على حر موسر عن نفسه لأنه أصل فى الوجوب عليه (مجمع الأنهر، كتاب الأضحية، دار الكتب العليمة بيروت-4\166/ مصرى قديم-2\516)

وتجب على كل حر مسلم موسر مقيم عن نفسه، وقوله عن نفسه لأنه أصل فى الوجوب عليه (البحر الرائق، كتاب الأضحية-8/318)

দ্বিতীয় মতটিকে যারা প্রাধান্য দিয়েছেন। তাদের মাঝে রয়েছেনঃ

ক) মুফতী কেফায়েতুল্লাহ দেহলবী রহঃ। [কেফায়াতুল মুফতী-৮/২০৫]

খ) মুফতী সালমান মানসূরপুরী দামাত বারাকাতুহু। [কিতাবুন নাওয়াজেল-১৪/৫১৪-৫১৬]

وإن تبرع بها عنه له الأكل، لأنه يقع على ملك الذابح والثواب للميت، ولهذا لو كان على الذابح واحدة سقطت عنه أضحية كما فى الأجناس، قال الشرنبلالى: لكن فى سقوط الأضحية عنه تأمل، أقول صرح فى فتح القدير فى الحج عن الغير بلا أ/ر أنه يقع عن الفاعل فيسقط به الفرض عنه وللآخر الثواب فراجعه (رد المحتار، كتاب الأضحية-9\484 زكريا)

ولو ضحى عن ميت من مال نفسه بغير أمر الميت جاز، وله أن يتناول منه ولا يلزمه أن يتصدق به، لأنها لم تصر ملكا للميت، بل الذبح حصل على ملكه، ولهذا لو كان على الذابح أضحية سقطت عنه (فتاوى قاضى خان على هامش الهندية-3\352)

سئل عمن يضحى عن الميت، قال: يصنع به كما يصنع بأضحيته يريد به أنه يتناول من لحمه كما يتناول من لحم أضحيته، فقيل له أتصير عن الميت؟ قال: الأجر للميت، والملك للمضحى، وبه قال سلمة وابن مقاتل وأبو مطيع، وقال عصام، يتصدق بالكل، وفى الكبرى، المختار أنه لا يلزمه (الفتاوى التاتارخانية، كتاب الأضحية، الفصل السابع فى التضحية عن الغير وفى التضحية بشاة الغير عن نفسه-17\444، رقم-27771)

وأجاز نحير بن يحيى ومحمد بن سلمى ومحمد بن مقاتل فيمن يضحى عن الميت أنه يصنع به مثل ما يصنع بأضحية نفسه من التصدق والأكل والأجر للميت والملك للذابح (بزازية على هامش الهندية-6\295)

تبرع بالأضحية عن ميت، جاز له الأكل منها والهداية والصدقة، لأن الأجر للميت والملك للمضحى، وهو المختار، بخلاف ما لو كان بأمر الميت، حيث لا يأكل فى المختار (فتح المعين، كتال الأضحية-3\382، فتاوى قاضى خان على هامش الهندية-3\352)

আমরা আমাদের ইতোপূর্বের প্রকাশিত এ সংক্রান্ত ফাতওয়ায় প্রথম মতটি প্রাধান্য দিয়ে ফাতওয়া প্রদান করেছি।

কিন্তু এখন নতুন করে তাহকীক করে বলতে চাই যে, যার উপর কুরবানী ওয়াজিব তিনি নিজের নামেই কুরবানী প্রদান করবেন। আর মৃতকে সওয়াব পৌছানো মাকসাদ হলে, তার নামে কুরবানী না করে, বরং শুধু সওয়াব পৌঁছানোর নিয়ত করবেন। এটাই নিরাপদ পন্থা।

তবে যদি কেউ না জানার কারণে, নিজের ওয়াজিব কুরবানীর নিয়ত না করে, মৃতের নামে নফল কুরবানীর নিয়ত করে, তাহলে আশা করা যায়, তার ওয়াজিব কুরবানীটিও শুদ্ধ হয়ে যাবে।

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

আত্মীয়তা বজায় রাখার খাতিরে পর্দা লঙ্ঘণ করা যাবে কি?

প্রশ্ন নাম ঠিকানা প্রকাশে অনিচ্ছুক বিষয়ঃ পর্দা প্রশ্নঃ অনেক সময় গায়রে মাহরাম আত্মীয়রা বাড়িতে আসলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *