হোম / অপরাধ ও গোনাহ / শিক্ষকের সাথে রসিকতা করা মহিলার স্বামী কি দাইয়ূস?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

শিক্ষকের সাথে রসিকতা করা মহিলার স্বামী কি দাইয়ূস?

প্রশ্ন

From: আব্দুল বাতেন
বিষয়ঃ পর্দা পুশিদা

প্রশ্নঃ
কোন বিবাহিত মেয়ে যদি তার কওমী মাদ্রাসার হুজুরদের সাথে হাস্য রসিকতা করে তবে কি ঐ মেয়ের স্বামী দাইয়ুস হিসেবে চিহ্নিত হবে ? এক্ষেত্রে কি স্বামী ঐ মেয়েকে মাদ্রাসায় পড়া বাদ দেওয়াবে ? অথবা এক্ষেত্রে কি করণীয় জানিয়ে মনের পেরেশানী দূর করবেন ।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

শুধুমাত্র হাসি রসিকতা করার কারণে স্বামী দাইয়ূস হবে না। কারণ, পরপুরুষকে স্ত্রীর সাথে একান্ত সময় কাটানোর সুযোগ করে দেয়া ব্যক্তিকে মূলত দাইয়ূস বলে। বাকিগুলোকে দাইয়ূসের দিকে ধাববান বলা যায়, সরাসরি দাইয়ূস বলার সুযোগ নেই।

তবে প্রয়োজনীয় কথা ছাড়া অপ্রয়োজনীয় কথা বলা, বা হাসি রসিকতায় নিমগ্ন হওয়া অবশ্যই শরীয়ত গর্হিত কাজ। হারাম কাজ।

স্বামীর উচিত তার স্ত্রীকে এ বিষয়ে সতর্ক করা। প্রয়োজনে অন্য প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করাতে পারে। বা প্রয়োজনীয় ইলম শিখা হয়ে গেলে পড়াশোনা বন্ধ করেও দিতে পারে।

الدَّيُّوثُ الَّذِي لَا غَيْرَةَ لَهُ مِمَّنْ يَدْخُلُ عَلَى امْرَأَتِهِ (البحر الرائق-5/48، تبيين الحقائق-3/208)

إِنِ اتَّقَيْتُنَّ فَلَا تَخْضَعْنَ بِالْقَوْلِ فَيَطْمَعَ الَّذِي فِي قَلْبِهِ مَرَضٌ وَقُلْنَ قَوْلًا مَعْرُوفًا (32) وَقَرْنَ فِي بُيُوتِكُنَّ وَلَا تَبَرَّجْنَ تَبَرُّجَ الْجَاهِلِيَّةِ الْأُولَى

তোমরা যদি আল্লাহকে ভয় পাও তবে আকর্ষণধর্মী ভঙ্গিতে কথা বলনা, যাতে যাদের মাঝে যৌনলিপ্সা আছে তারা তোমাদের প্রতি আকৃষ্ট হয়। বরং তোমরা স্বাভাবিক কথা বল। এবং তোমরা অবস্থান কর স্বীয় বসবাসের গৃহে, জাহেলী যুগের মেয়েদের মত নিজেদের প্রকাশ করো না। {সূরা আহযাব-৩২}

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী – মা’হাদুত তালীম ওয়াল  বুহুসিল ইসলামী ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া ফারূকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

অমুসলিমের দেয়া হাদিয়া-গিফট গ্রহণের হুকুম কী?

প্রশ্ন From: মোঃ মনিরুল ইসলাম বিষয়ঃ অমুসলিমদের হাদিয়া জায়েয কি না। প্রশ্নঃ কোন অমুসলিম এর …