প্রচ্ছদ / কসম ও মান্নত / ‘যদি আমি এ গাভীর দুধ খাই তাহলে শুকর খাই’ বলার পর করণীয় কী?

‘যদি আমি এ গাভীর দুধ খাই তাহলে শুকর খাই’ বলার পর করণীয় কী?

প্রশ্ন

প্রশ্নটি আমার এক কলিগের পক্ষ হতে আপনাদের নিকট হুবুহু উপস্থাপিত হলো।

প্রশ্নঃ আমার বাবা আমাদের নিজস্ব গাভীর দুধ খাওয়া প্রসঙ্গে রাগ করে বলেছে যে, যদি আমি এই গাভীর দুধ খাই তাহলে আমি শুকর খাই।

(১) এতে কি আমার বাবার কোন পাপ হয়েছে?

(২) যদি কসম হয়/পাপ হয়,তাহলে মুক্ত হবে কিভাবে?

(৩) পুনরায় কোনভাবে কি দুধ খেতে/পান করতে পারবে? উপায় বলুন।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

আল্লাহ তাআলা যে বস্তু হালাল করেছেন, সেটিকে বান্দা হারাম করার দ্বারা বা হারাম বলার দ্বারা হারাম হয় না।

তাই “গাভীর দুধ খাইলে শুকর খাই” বলার দ্বারা কোন কসম সম্পন্ন হয়নি। বাকি একটি অহেতুক কথা হয়েছে। যা থেকে ভবিষ্যতে বিরত থাকা উচিত।

তাই উক্ত গাভীর দুধ খেতে কোন সমস্যা নেই। এতে কোন কাফফারাও প্রদান করতে হবে না।

لو قال إن كانت أكلت هذا الطعام فهو على حرام فأكله فلا حنث عليه (رد المحتار، كتاب الأيمان، مطلب: فى تحريم الحلال-5/508)

ولو قال: هو يأكل الميتة إن فعل كذا لا يكون يمينا (تاتارخانية، كتاب الأيمان، الفصل الثانى، الفاظ اليمين-6/20، رقم-8748)

التعليق بما تسقط حرمته بحال ما كالميتة والخمر، والخنزير لا يكون يمينا (البحر الرائق، كتاب الأيمان-4/483

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী – মা’হাদুত তালীম ওয়াল  বুহুসিল ইসলামিয়া ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া ফারূকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

আরও জানুন

শর্তযুক্ত তালাক থেকে বাঁচার উপায় কি?

প্রশ্ন এক ব্যক্তি ঝগড়ার কারণে তার স্ত্রীকে বলেছে যে, যদি তুমি তোমার বাবার বাড়িতে যাও …

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস