প্রচ্ছদ / তালাক/ডিভোর্স/হুরমত / তালাক দেবার ইচ্ছে করা ছাড়া ভুয়া তালাকনামায় দস্তখত করলে কি তালাক হয়ে যাবে?

তালাক দেবার ইচ্ছে করা ছাড়া ভুয়া তালাকনামায় দস্তখত করলে কি তালাক হয়ে যাবে?

প্রশ্ন

 

কেউ যদি সন্তান না হওয়ার কারণে প্রথম বিবেক তালাক না দিয়ে, ভুয়া/ফলস তালাকনামা নিয়া আরেক বিয়ে করতে চাচ্ছে,তবে তালাকনামা নিয়া চাই সেই লোক বিয়ে করতে পারুক বা না পারুক,তার প্রথম বিবি কি সত্যি তালাক হয়ে যাবে কি না? চাই ভুয়া দলীলে প্রথম বিবি রাজি থাকুক বা না থাকুক।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

প্রশ্নটির সূরত দু’টি। যথা-

১ ভুয়া তালাকনামায় এমন যদি লেখা হয় যে, “আমি আমার স্ত্রীকে তালাক দিয়েছি” টাইপ স্বীকারোক্তিমূলক বক্তব্য।

২ ভুয়া তালাকনামায় এমন লিখা হয় যে, “আমি আমার স্ত্রীকে তালাক দিলাম” টাইপ বক্তব্য।

১ম সূরতে যদি উক্ত তালাকনামা লেখার আগে স্বাক্ষ্যি রাখে যে, আমি আমার স্ত্রীকে তালাক দিবো না, তবে ভুয়া তালাকনামা দিয়ে আরেকজনকে বিয়ে করবো, তারপর যদি ভুয়া তালাকনামায় তালাক দেবার স্বীকারোক্তি লেখে,তাহলে স্ত্রী তালাকপ্রাপ্তা হবে না।

যদিও মিথ্যার আশ্রয় নেবার কারণে লোকটি গোনাহগার হবে।

আর ২য় সূরতের আবার দু’টি হালাত। যথা-

ক)তালাকনামাটি স্ত্রীর সামনেই লিখিত করা হয়।

খ)তালাকনামাটি স্ত্রীর অনুপস্থিতে লিপিবদ্ধ করা হয়।

যদি তালাকনামটি স্ত্রীর সামনেই প্রস্তুত করা হয়, কিন্তু স্বামী মুখে স্ত্রীকে তালাক না দেয়,তাহলে কোন তালাক পতিত হবে না।

আর যদি স্ত্রীর অগোচরে তালাকনামা প্রস্তুত করে সাইন করে স্বামী। তাহলে আগে তালাক না হলেও লিখার মাধ্যমে এখন তালাক পতিত হয়ে যাবে। কারণ তালাকনামায় পূর্বের তালাকের স্বীকারোক্তি নয়, বরং এখন তালাক দিচ্ছে। আর তালাক ঠাট্টা করে দিলেও পতিত হয়ে যায়। সেই হিসেবে তালাক হয়ে যাবে।

عَنْ الْبَزَّازِيَّةِ وَالْقُنْيَةِ لَوْ أَرَادَ بِهِ الْخَبَرَ عَنْ الْمَاضِي كَذِبًا لَا يَقَعُ دِيَانَةً، وَإِنْ أَشْهَدَ قَبْلَ ذَلِكَ لَا يَقَعُ قَضَاءً أَيْضًا. اهـ.(رد المحتار، كتاب الطلاق، مطلب فى المسائل اللتى تصح مع الاكراه-4/443، البحر الرائق-3/246، النحر الفائق-2/317

فى تنوير الابصار: (إيمَاءُ الْأَخْرَسِ وَكِتَابَتُهُ كَالْبَيَانِ) بِاللِّسَانِ (بِخِلَافِ مُعْتَقَلِ اللِّسَانِ) وَقَالَ الشَّافِعِيُّ: هُمَا سَوَاءٌ فِي وَصِيَّةٍ وَنِكَاحٍ وَطَلَاقٍ

وفى رد المحتار: وَظَاهِرُهُ أَنَّ الْمَعْنَوِيَّ مِنْ النَّاطِقِ الْحَاضِرِ غَيْرُ مُعْتَبَرٍ.(رد المحتار، كتاب الخنثى، مسائل شتى-10/460-461

وَإِنْ كَانَتْ مَرْسُومَةً يَقَعُ الطَّلَاقُ نَوَى أَوْ لَمْ يَنْوِ (الفتاوى الهندية، كتاب الطلاق، الفصل السادس الطلاق بالكتابة-1/378، خانية على هامش الهندية-1/471

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

মায়ের আপন মামাতো বোনকে বিয়ে করা কি জায়েজ আছে?

প্রশ্ন From: মো রাশেদ বিষয়ঃ বিয়ে সম্পর্কিত প্রশ্নঃ আস্সালামু আলাইকুম।জনাব আশা করি ভাল আছেন।আমার একটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *