প্রচ্ছদ / নফল ইবাদত / নও মুসলিম ব্যক্তির জন্য খতনা করার বিধান কি?

নও মুসলিম ব্যক্তির জন্য খতনা করার বিধান কি?

প্রশ্ন

আসসালামুআ’লাইকুম।

আমি আমার নাম আপনাদের ওয়েবসইটে  প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক। দয়া করে আমার নাম আপনাদের ওয়েবসইটে প্রকাশ করবেন না। আমি নওমুসলিম (হিন্দু থেকে মুসলমান হয়েছি)। প্রায় ২ বছর হল আমি মুসলমান হয়েছি। কিন্তু আমি এখনও খতনা করি নাই। আমার বয়স ২২ বছর। আমার খতনা করা বিষয়ে মাসায়লা কি ? আমার পরিবারের সাথে আমার কোন সম্পর্ক নাই। আমি এখনও ছাত্র এবং এখনও নিজে আর্থিক্ভাবে সাবলম্বী না। সেই কারনে আমি এই বিষয়ে কিছু করতে পারি নাই। এই বিষয়ে আমার কি করনীয় আপনার কাছে জানতে চাচ্ছি।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحمن

আপনি জাহান্নামী ধর্ম ত্যাগ করে জান্নাতী ধর্মে দীক্ষিত হয়েছেন শুনে খুবই ভাল লাগছে। আল্লাহ তাআলা আপনাকে কবুল করুন।

খতনা করাটা শুধু ইসলামী দৃষ্টিকোণ থেকেই উত্তম নয়। বরং এর দ্বারা শারিরীকও অনেক উপকার নিহিত রয়েছে। এর দ্বারা অনেক রোগ বালাই থেকেও মুক্ত থাকা যায়।

যদি সম্ভব হয়, তাহলে ডাক্তারদের সাথে আলাপ করে দেখে নিন। তারা এ বিষয়ে বলতে পারবেন। খতনা করার পর কিছু ওষুধ আছে তা ব্যবহার করলে খুব দ্রুত তা শুকিয়ে যায়। ইবরাহীম আঃ আশি বছর বয়সেও খতনা করেছিলেন। {বুখারী, হাদীস নং-৩৩৫৬, মুসলিম, হাদীস নং-২৩৭০}

সেই হিসেবে খতনা করিয়ে নেয়াটাই উচিত। তারপরও যদি করতে সক্ষম না হন, সহ্যের বেশি কষ্ট হয়, তাহলে খতনা করা লাগবে না।

আপনি মুসলমান হয়েছেন। এবার আপনার দায়িত্ব হল আপনার পূর্বের জ্ঞাতি ভাইদেরও দ্বীনের দাওয়াত দেয়া। তাদের ইসলামের সুশিতল ছায়ায় নিয়ে আসার মেহনত করা।

হিন্দু ভাইদের দাওয়াত দেবার বিষয়ে আপনি “ইসলামী দাওয়াহ ইনষ্টিটিউট বাংলাদেশ মান্ডা শেষ মাথা, মুগদার মাওলানা জুবায়ের আহমাদ সাহেবের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। হযরতের নাম্বার-০১৯১৭৫৯৭৫৫১।

আল্লাহ তাআলা আফিয়াতও ও ইস্তিকামাতের সাথে দ্বীনের উপর অটল থাকার তৌফিক দান করুন। সকল কিছুকে আসান করে দিন। আমীন।

(صَبِيٌّ حَشَفَتُهُ ظَاهِرَةٌ بِحَيْثُ لَوْ رَآهُ إنْسَانٌ ظَنَّهُ مَخْتُونًا وَلَا تُقْطَعُ جَلْدَةُ ذَكَرِهِ إلَّا بِتَشْدِيدِ أَلَمِهِ تُرِكَ عَلَى حَالِهِ كَشَيْخٍ أَسْلَمَ وَقَالَ أَهْلُ النَّظَرِ لَا يُطِيقُ الْخِتَانَ) تُرِكَ أَيْضًا (رد المحتار، كتاب الخنثى، مسائل شتى-6/758، كرتاشى، الهندية، كتاب الكراهية، الباب التاسع عشر فى الختان-5/357)

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

আরও জানুন

স্ত্রী রাগের মাথায় স্বামীকে তিন তালাক দিলে কয় তালাক হয়?

প্রশ্ন মুহতারাম আসসালামু আলাইকুম জরুরী ভিত্তিতে জানতে চাই৷ প্রশ্ন হল- স্বামী-স্ত্রীর কথা কাটাকাটিতে স্ত্রী রাগের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *