প্রচ্ছদ / কুরবানী/জবেহ/আকীকা / এক ভরি স্বর্ণ এবং এক হাজার টাকার মালিক মহিলার উপর কি কুরবানী আবশ্যক?

এক ভরি স্বর্ণ এবং এক হাজার টাকার মালিক মহিলার উপর কি কুরবানী আবশ্যক?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ,

হজরত! একজন মহিলার কাছে এক ভরি স্বর্ণ ও একহাজার টাকা আছে। তার উপর কুরবানী ওয়াজিব হবে কি? ওয়াজিব হলে তো কর্জ করে বা স্বর্ণ বিক্রি করে কুরবানী দিতে হবে। এমতাবস্থায় শরিয়তের হুকুম কী? জানিয়ে বাধিত করবেন।

আস্সাল্লাম আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

যেহেতু এক ভরি স্বর্ণ এবং নগদ এক হাজার টাকা মিলে রূপার নিসাব তথা সাড়ে বায়ান্ন তোলা রূপার সমমূল্য হয়ে যাচ্ছে, তাই উক্ত মহিলার উপর কুরবানী করা আবশ্যক।

তাই আংশিক স্বর্ণ বিক্রি করে হলেও কুরবানী করা আবশ্যক।


لا بد من اعتبار الغنى، وهو ان يكون فى ملكه مائتا درهم او عشرين دينارا ا وشئ تبلغ قيمته ذلك سوى مسكنه وما يأثث به وكسوته وخادمه وفرسه وسلاحه وما لا يستغنى عنه وهو نصاب صدقة الفطر (بدائع الصنائع-4/196، رد المحتار-9/453، الفتاوى الهندية-5/292)

وأما شرائط الوجوب: منها اليسار، وهو ما يتعلق به وجوب صدقة الفطر…… والمسر فى ظاهر الرواية: من له مأتا درهم أو عشرون دينارا أو شيء يبلغ ذلك سوى مسكنه ومتاع مسكنه ومركوبه وخادمه فى حاجته التى لا يستغنى عنها (الفتاوى الهندية-5/292، جديد-5/336-337، المحيط البرهانى-8/455، رقم-10776، الفتاوى الهندية-17/405، رقم-27649)

فى الدر المختار–وَلَوْ بَلَغَ بِأَحَدِهِمَا نِصَابًا دُونَ الْآخَرِ تَعَيَّنَ مَا يَبْلُغُ بِهِ، وَلَوْ بَلَغَ بِأَحَدِهِمَا نِصَابًا وَخُمُسًا وَبِالْآخَرِ أَقَلَّ قَوَّمَهُ بِالْأَنْفَعِ لِلْفَقِيرِ (رد المحتار، كتاب الزكاة، باب زكاة المال-3/229، وكذا فى الهداية-1/196، وكذا فى الهندية-1/179، وكذا فى التاتارخانية-2/237، وكذا فى المبسوط للسرخسى-2/191)

له مال كثير مال غائب فى يد مضاربه أو شريكه ومعه من الحجرين أو متاع البيت ما يضحى به تلزم (رد المحتار، زكريا-9/453، كرتاشى-6/312)

له مال كثير مال غائب فى يد شريكه أو مضاربه، معه ما يشترى به الأضحية من الحجرين أو متاع البيت تلزمه الأضحية، كذا فى القنية (الفتاوى الهندية-5/307، جديد-5/355)

له مال كثير مال غائب فى يد مضاربه أو شريكه ومعه من الحجرين أو متاع البيت ما يشترى به الأضحية تلزم (بزازية على هامش الهندية-6/287، جديد-3/155)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

প্রধান মুফতী: জামিয়াতুস সুন্নাহ লালবাগ, ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া ইসলামিয়া দারুল হক লালবাগ ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com 

আরও জানুন

কুয়েতে প্যাকেটজাত গোস্ত খাওয়ার হুকুম কী?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম। আমি বর্তমানে কুয়েতে থাকি। আমার প্রশ্ন হলো এখানকার মার্কেটে যে সমস্ত প্যাকেটিং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস