প্রচ্ছদ / আহলে হাদীস / নবীর ডাকে জমিন চিড়ে গাছের সাড়া দেয়া ও কালিমা পড়া এবং নবীকে পাথরের সালাম দেয়া সংক্রান্ত বর্ণনা কি জাল?

নবীর ডাকে জমিন চিড়ে গাছের সাড়া দেয়া ও কালিমা পড়া এবং নবীকে পাথরের সালাম দেয়া সংক্রান্ত বর্ণনা কি জাল?

প্রশ্ন

শ্রদ্ধেয় মুফতী লুৎফুর রহমান ফরায়েজী সাহেব।

আপনি আমাদের এলাকায় এক মাহফিলে এসেছিলেন। সেই মাহফিলে আপনি নবী জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন। এতে আমাদের অনেক উপকার হয়েছে। কিন্তু এলাকার কিছু আহলে হাদীস ভাইরা আপনার বয়ানের একটি বিষয় নিয়ে এলাকায় ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে যে, আপনি জাল হাদীস বলে গেছেন।

আপনি বয়ানে বলেছেন যে, নবীজীকে গাছ সালাম দিতো। নবীজীর হাতের ইশারায় গাছ মাটি চিড়ে নবীর কাছে চলে এসে কালিমা পড়ে নবীজীর নবুওয়াতের স্বাক্ষী দিয়েছে।

এসব নাকি বানোয়াট কথা। জাল হাদীস।

আমাদের জানার বিষয় হলো: আসলেই কি এসব জাল হাদীস দ্বারা প্রমাণিত? নাকি বিশুদ্ধ হাদীস দ্বারা প্রমাণিত? দয়া করে একটু জানালে আমাদের উপকার হতো।

আল্লাহ তাআলা আপনার ইলমে আমলে বরকত দান করুন। আমীন।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

আমার বয়ানে বলা নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের মু’জিজা সম্পর্কিত উপরোক্ত দু’টি কথার কোনটিই বানোয়াট বা জাল নয়। বরং সহীহ হাদীস দ্বারা প্রমাণিত।

সহীহ হাদীসে উপরোক্ত বিষয় বর্ণিত হয়েছে।

عَنِ ابْنِ عُمَرَ، رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُمَا قَالَ: كُنَّا مَعَ رَسُولِ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ، فِي سَفَرٍ فَأَقْبَلَ أَعْرَابِيٌّ فَلَمَّا دَنَا مِنْهُ، قَالَ لَهُ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «أَيْنَ تُرِيدُ؟» قَالَ: إِلى أَهْلِي قَالَ: «هَلْ لَكَ فِي خَيْرٍ؟» قَالَ: وَمَا هُوَ؟ قَالَ: «تَشْهَدُ أَنْ لَا إِلَهَ إِلَّا اللَّهُ وَحْدَهُ لَا شَرِيكَ لَهُ، وَأَنَّ مُحَمَّدًا عَبْدُهُ وَرَسُولُهُ» فَقَالَ: وَمَنْ يَشْهَدُ عَلَى مَا تَقُولُ؟ قَالَ: «هَذِهِ السَّلَمَةُ» فَدَعَاهَا رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ وَهِيَ بِشَاطِئِ الْوَادِي فَأَقْبَلَتْ تَخُدُّ الْأَرْضَ خَدًّا حَتَّى قَامَتْ بَيْنَ يَدَيْهِ، فَاسْتَشْهَدَهَا ثَلَاثًا، فَشَهِدَتْ ثَلَاثًا أَنَّهُ كَمَا قَالَ، ثُمَّ رَجَعَتْ إِلَى مَنْبَتِهَا وَرَجَعَ الْأَعْرَابِيُّ إِلَى قَوْمِهِ، وَقَالَ: إِنِ اتَّبَعُونِي أَتَيْتُكَ بِهِمْ، وَإِلَّا رَجَعْتُ، فَكُنْتُ مَعَكَ

হযরত আব্দুল্লাহ বিন উমর রাঃ থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, এক সফরে আমরা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর সাথে যাচ্ছিলাম। পথিমধ্যে এক গ্রাম্য ব্যক্তি আসল। যখন সে নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর কাছে আসলো তখন নবীজী তাকে বললেন, কোথায় যাচ্ছো? তিনি বললেন, আমার বাড়ি যাচ্ছি। নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, তুমি কল্যাণ চাও? তিনি বলেন, সেটি কী? নবীজী বললেন, তুমি একথা স্বাক্ষী দাও যে, আল্লাহ তাআলা ছাড়া কোন মা’বুদ নেই। আর মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আল্লাহর বান্দা এবং রাসূল। লোকটি বললেন: আপনি যা বলছেন, একথার পক্ষে আপনার কোন সাক্ষী আছে? নবীজী বললেন, এই যে সামনের গাছ সাক্ষী দিবে। তারপর নবীজী উক্ত গাছকে নিজের দিতে ডাকলেন। গাছটি উপত্যকার এক কিনারায় ছিল। ডাক দিতেই ডাকে সাড়া দিয়ে উক্ত গাছ জমিন চিড়ে নবীজীর কাছে চলে আসে। নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম গাছটির কাছে তিনবার সাক্ষী দিতে বলেন, গাছটি তিনবারই সাক্ষী দিল। তারপর গাছটি আপন স্থানে ফিরে গেল। এ দৃশ্য দেখে উক্ত গ্রাম্য ব্যক্তিটি নিজের কওমের কাছে ফিরে গেল। যাবার সময় বলে গেল যে, যদি আমার গোষ্ঠি আমার কথা মানে তাহলে আমি তাদের নিয়ে আপনার কাছে আসবো, নতুবা আমি একাই আপনার কাছে চলে আসবো এবং আপনার সঙ্গী হবো। [সুনানে দারামী, হাদীস নং-১৬, সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদীস নং-৬৫০৫, মাযমাউয যাওয়ায়েদ-৮/২৯৫]

এ হাদীসকে কোন মুহাদ্দিস জাল বা বানোয়াট বলেননি। সবাই এটাকে সহীহ বা হাসান বলেছেন।

عَنْ جَابِرِ بْنِ سَمُرَةَ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «إِنِّي لَأَعْرِفُ حَجَرًا بِمَكَّةَ كَانَ يُسَلِّمُ عَلَيَّ قَبْلَ أَنْ أُبْعَثَ إِنِّي لَأَعْرِفُهُ الْآنَ

হযরত জাবের বিন সামুরা রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন যে, আমি ঐ পাথরকে এখনো চিনতে পারি, যে পাথর মক্কা মুকাররমায় আমার নবুওয়াতপ্রাপ্তির আগ থেকেই আমাকে সালাম দিতো। [সহীহ মুসলিম, হাদীস নং-২২৭৭, সুনানে দারামী, হাদীস নং-২০]

সুতরাং আমার উপরোক্ত কথাকে বানোয়াট ও জাল বলা হাদীস সম্পর্কে অজ্ঞতা ছাড়া কিছু নয়।

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

প্রধান মুফতী: জামিয়াতুস সুন্নাহ লালবাগ, ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া ইসলামিয়া দারুল হক লালবাগ ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com 

আরও জানুন

বিয়ের অনুমতি প্রদানকারীর উপস্থিতিতে উকীল একজন সাক্ষীর সামনে বিয়ে করালে বিবাহ হবে?

প্রশ্ন আসসালামুআলাইকুম। আমার স্বামী আমাকে অজ্ঞাতাবসত তিন তালাক দেন। আমি দ্বীনের পথে আসার পর জানতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস