প্রচ্ছদ / অজু/গোসল/পবিত্রতা/হায়েজ/নেফাস / নামাযে মহিলাদের পোশাক কেমন হওয়া আবশ্যক? কোন অঙ্গ খোলা থাকলে নামায হবে না?

নামাযে মহিলাদের পোশাক কেমন হওয়া আবশ্যক? কোন অঙ্গ খোলা থাকলে নামায হবে না?

প্রশ্ন

From: mohammed joynal uddin
বিষয়ঃ অজু/নামাজ

প্রশ্নঃ
আসসালামু আলাইকুম
প্রশ্ন:১। মহিলাদের অজুর সময় মাথায় কাপড় না থাকলে কি অজু হয়? অথবা অজুর পরে মাথার কাপড় পড়লে কি অজু নষ্ট হয়?
প্রশ্ন ২। হাতের কব্জি, পায়ের পাথা এবং মাথার চুলের একটু খোলা থাকলে কি নামাজ হয়?
প্রশ্ন ৩। মহিলাদের পুর্নাঙ্গ নামাজ পড়তে কি ধরনের ড্রেসআপ লাগবে দয়া করে জানাবেন।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

১ নং এর উত্তর

মাথার কাপড় থাকা বা না থাকার সাথে অযু হওয়া বা না হওয়া এবং অযু ভঙ্গ হওয়া ও না হওয়ার কোন সম্পর্ক নেই।

মহিলাদের অযুর সময় মাথার কাপড় না থাকলেও অজু হবে। অযুর পর মাথার কাপড় না থাকলেও অযু ভঙ্গ হবে না।

المعانى الناقضة للوضوء كل ما يخرج من  السبلين،والدم، والقيح،  والقيئ ملء الفم، والنوم مضطجعا، ا, متكئا، والغلبة على العقل بالإغماء، والجنون، والقهقهة فى صلوات ذات ركوع وسجود (هداية، كتاب الطهارة، فصل فى نواقض الوضوء-1/22-26)

وينقضه خروج كل خارج نجس منه إلى ما يطهر (تنوير الأبصار على الشامى، مطلب فى نواقض الوضوء،  زكريا-1/260-261، كرتاشى-1/134، البحر الرائق،  زكريا-1/62، كويته-1/29)

২ নং এর উত্তর

মহিলাদের হাতের কব্জি, পায়ের টাখনুর নিচের অংশ এবং অল্প চুল খোলা থাকলেও নামায হয়ে যাবে। তবে যদি চুলের এক চতুর্থাংশ খোলা থাকে, তাহলে নামায হবে না।

امرأة صلت وربع ساقها أو  ثلث ساقها مكشوف لم تجز صلوتها،…… وقيل الانكشاف عفو بالإجماع (تاتارخانية،  كتاب الصلاة، الفصل الثانى فى فرائض الصلاة وواجبات وسننها وأدابها-2/23، رقم-1547)

وإن انكشف ربع المسترسل: أى النازل عن رأسها فسدت صلوتها، لأنه عورة،  كبيرى، كتاب الصلاة، اما الشرط الثالث، أشرفية-212، كرتاشى-210)

৩ নং প্রশ্নের উত্তর

মহিলাদের নামায শুদ্ধ হবার জন্য এমন পোশাক হওয়া জরুরী যাতে করে তার পুরো শরীর ঢাকা থাকে। শুধুমাত্র হাতের দুই কব্জি থেকে আঙ্গুল, এবং চেহারা ও টাখনুর নিচ থেকে উভয় পা খোলা  থাকবে। এছাড়া বাকি পুরো শরীরই ঢাকা থাকা জরুরী।

بدن الحرة عورة إلا وجهها،  وكفيها،  وقدميها (الفتاوى الهندية،  قديم-1/58، جديد-1/115، رد المحتار، زكريا-2/76، كرتايى-1/405)

عَنْ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا، أَنَّ أَسْمَاءَ بِنْتَ أَبِي بَكْرٍ، دَخَلَتْ عَلَى رَسُولِ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ وَعَلَيْهَا ثِيَابٌ رِقَاقٌ، فَأَعْرَضَ عَنْهَا رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ، وَقَالَ: «يَا أَسْمَاءُ، إِنَّ الْمَرْأَةَ إِذَا بَلَغَتِ الْمَحِيضَ لَمْ تَصْلُحْ أَنْ يُرَى مِنْهَا إِلَّا هَذَا وَهَذَا» وَأَشَارَ إِلَى وَجْهِهِ وَكَفَّيْهِ (سنن أبى داود، كتاب اللباس، باب فيما تبدى المرأة من زينتها، النسخة الهندية-2/567، دار الفكر، رقم-4104)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

মুসলমানের জন্য কাফেরের সাথে বিবাহ করার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: সারওয়ার বিষয়ঃ অমুসলিম বা কাফের এর সাথে সম্পর্ক করা যাবে কি না?? প্রশ্নঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস