প্রচ্ছদ / আকিদা-বিশ্বাস / ওহাবী কারা? উলামায়ে দেওবন্দ কি ওহাবী?

ওহাবী কারা? উলামায়ে দেওবন্দ কি ওহাবী?

প্রশ্ন

From: মো:শহিদুল ইসলাম
বিষয়ঃ দেওবন্দ কি ওহাবী?

প্রশ্নঃ
প্রায় অনেক সময়,বলতে গেলে প্রতিদিনি ফেসবুকে দেখতে পাই,অনেক ভাই বলে থাকেন তাবলীগ জামাত এবং দেওবন্দ’রা ওহাবী। আর তারা ওহাবী বলে খুবই তিরস্কার করে।এখন আমার জানার বিষয় হলো,সত্যইকি দেওবন্দি’রা ওহাবী?
এবং ওহাবী কাদের বলে?
এবং ওহাবীদের সাথে দেওবন্দের আকিদা কি মিলে যায়?

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

‘ওহাবী’ বলতে শায়েখ আব্দুল ওয়াহহাব নজদী রহঃ এবং শায়েখ ইবনে তাইমিয়া রহঃ এবং ইবনুল কাইয়্যিম রহঃ এর মতাদর্শ অনুসরণকারীদের বলা হয়।

মূলত আব্দুল ওয়াহহাব নজদী রহঃ এর দিকে নিসবত করে ‘ওহাবী’ নামকরণ করা হয়েছে।

উলামায়ে দেওবন্দ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের অনুসারী।

আব্দুল ওয়াহহাব নজদী যদিও আহলে সুন্নাতের অনুসারী এবং ফূরূয়ী মাসায়েলে ইমাম আহমাদ বিন হাম্বল রহঃ এর মাযহাব মানতেন। কিন্তু তার মাঝে খারেজীদের কিছু সিফাত বিদ্যমান ছিল। যেমন মুসলমানদের ব্যাপারে কঠোর নীতি অনুসরণ করে কাফের মুশরিক বলা এবং বিধর্মীদের প্রতি নম্রতা প্রদর্শন ইত্যাদি।

উলামায়ে দেওবন্দের ওহাবীদের সাথে কিছু মাসআলায় মিল রয়েছে। যেমন বেরেলবীদের সাথে কিছু মাসআলায় মিল রয়েছে।

এমন কি বেরেলবীদেরও ‘ওহাবী’ মতবাদের বেশ কিছু মাসআলায় মিল পাওয়া যায়।

যেমন বেরেলবীরা মাযহাব মানাকে জরুরী মনে করে, আব্দুল ওয়াহহাব নজদীও মাযহাব মানাকে জরুরী বলেছেন তার ‘আদদুরারুস সানিয়্যাহ’ কিতাবে। এমন আরো অনেক মাসআলা পাওয়া যাবে, তাতে বেরেলবীদের সাথে আব্দুল ওয়াহহাব নজদীর মিল পাওয়া যাবে।

প্রতিটি দলেরই তার বিরোধী দলের সাথে কিছু মাসআলায় ঐক্যমত্ব পাওয়া যায়, একটি দু’টি মাসআলায় মিল থাকার কারণে তাকে উক্ত দলের অনুসারী বলাটা অজ্ঞতার পরিচায়ক।

শিয়াদের সাথে আহলে সুন্নাতের অনেক মাসআলায় মিল আছে। এর মানেতো এই নয় যে,  সুন্নীরা শিয়া হয়ে গেছে। কিংবা শিয়ারা সুন্নী হয়ে গেছে।

তেমনি ওহাবী মতবাদের সাথে উলামায়ে দেওবন্দের বেশ কিছু মাসআলায় মিল আছে। আবার অনেক মাসআলায় মতভেদ আছে।

যেমন ১ উসীলা দিয়ে দুআ। ২ নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কবর যিয়ারতের উদ্দেশ্যে সফর। ৩ মৃত্যুর পর কারামাত প্রকাশ ইত্যাদি মাসআলায় উলামায়ে দেওবন্দের সাথে আব্দুল ওয়াহহাব নজদীর অনুসারীদের সাথে উলামায়ে দেওবন্দের শক্ত মতভেদ আছে।

উলামায়ে দেওবন্দের প্রথম সারির আকাবির শাইখুল ইসলাম হুসাইন আহমাদ মাদানী রহঃ তার লিখিত “আশ শিহাবুস সাকিব’ গ্রন্থের ২২২ পৃষ্ঠা থেকে ২৪৭ পর্যন্ত ওহাবীদের সাথে উলামায়ে দেওবন্দের মতভেদের ১০টি মাসআলা উল্লেখ করেছেন।

সুতরাং উলামায়ে দেওবন্দকে ঢালাওভাবে ওহাবী বলা চরম গর্হিত্ ও অন্যায়।

উলামায়ে দেওবন্দের গ্রহণযোগ্য কেউ নিজেদের আব্দুল ওয়াহহাব নজদীর অনুসারী দাবী করেননি। নিজেদের ওহাবী বলেও পরিচয় প্রদান করেননি।

সুতরাং দেওবন্দী আলেমদের ওহাবী বলে গালি দেয়া চরম পর্যায়ের মিথ্যাচার ছাড়া কিছু নয়।

كَمَا وَقَعَ فِي زَمَانِنَا فِي أَتْبَاعِ عَبْدِ الْوَهَّابِ الَّذِينَ خَرَجُوا مِنْ نَجْدٍ وَتَغَلَّبُوا عَلَى الْحَرَمَيْنِ وَكَانُوا يَنْتَحِلُونَ مَذْهَبَ الْحَنَابِلَةِ، لَكِنَّهُمْ اعْتَقَدُوا أَنَّهُمْ هُمْ الْمُسْلِمُونَ وَأَنَّ مَنْ خَالَفَ اعْتِقَادَهُمْ مُشْرِكُونَ، وَاسْتَبَاحُوا بِذَلِكَ قَتْلَ أَهْلِ السُّنَّةِ وَقَتْلَ عُلَمَائِهِمْ حَتَّى كَسَرَ اللَّهُ تَعَالَى شَوْكَتَهُمْ وَخَرَّبَ بِلَادَهُمْ وَظَفِرَ بِهِمْ عَسَاكِرُ الْمُسْلِمِينَ عَامَ ثَلَاثٍ وَثَلَاثِينَ وَمِائَتَيْنِ وَأَلْفٍ (رد المحتار، كتاب الجهاد، باب البغاة، كرتاشى-4\262)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

পুরাতন কবরের উপর মসজিদে নির্মাণ করা যাবে?

প্রশ্ন আমার গ্রামের মসজিদ পুনরায় নির্মাণ করার জন্য চেস্টা করতেছি কিন্ত পাসে একটা কবর থাকায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস