প্রচ্ছদ / তালাক/ডিভোর্স/হুরমত / এক তালাক দেবার পর ইদ্দত শেষে আরো দুই তালাক দিলে পতিত হবে কি?

এক তালাক দেবার পর ইদ্দত শেষে আরো দুই তালাক দিলে পতিত হবে কি?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম

আমি তানভীর হোসেন।

সঙ্গত কারণে প্রায় দুই বছর আগে আমি আমার স্ত্রীকে ১ তালাক কোর্টের মাধ্যমে ডাকযোগে প্রেরন করি।

যাতে করে সে সংশোধন হয়ে ফিরে আসে।

আমি প্রায় ৭ থেকে আট মাস এভাবে আপেক্ষা করি। সে তার পক্ষ থেকে কোন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করে নি।

তাই আমি মামলা মোকদ্দমা এড়াতে কাজী সাহেবের নিকট তালাক এর সার্টিফিকেট গ্রহন করতে গেলে উনি বললেন ১ তালাকে তালাকের সার্টিফিকেট হয় না। ৩ তালাকের চিঠি পাঠালে সার্টিফিকেট দেয়া যাবে।

তখন আমি নিরূপায় হয়ে কাজী সাহেবের লিখিত তালাক নামায় সই করি, কিন্তু উল্যখ্য যে আমার ৩ তালাকের নিয়ত ছিল না।

কারণ আমি জানতাম যে প্রথমারের তালাকেই তার সাথে আমার সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়েছে, শুধু মাত্র তালাকের সার্টিফিকেট প্রাপ্তির জন্যই এটা প্রেরণ করা।

তো কাজী সাহেব ৩ তালাকের চিঠিটি আমার প্রাক্তন স্ত্রীর গ্রামের বাড়িতে পাঠালে, সে খানে কাউকে না পাউয়ায় ডাক কর্তৃপক্ষ আমাকে চিঠি ফিরত পাঠায়।

উল্লেখ যে আমি প্রথম বার এবং ২য় বার কোন সময় ই মুখে উচ্চারণ করে তাকে তালাক দেই নি, প্রথম বার ১ তালাক এর চিঠি প্রেরন করেছি,

এবং ২য় বার শুধুমাত্র সার্টিফিকেট প্রাপ্তির জন্য সরকারের নিয়ম এর কারনে কাজী সাহেবর লিখিত তালাক পত্রে সই করেছি।, দিলে দিলে তালাকের নিয়ত ছিল না মুখেও তাকে বলি নাই।

 

কিন্তু এখন আমার প্রাক্তন স্ত্রী তার ভুল বুঝতে পারে এবং আমার কাছে ফিরে আসতে চায়, এই ক্ষেত্রে আমার করণীয় কী?

এবং শরীয়ত মোতাবেক সে কি আমার কাছে ফিরে আসতে পারবে কি না? জানালে আমি উপকৃত হইতাম।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

আপনার স্ত্রী আবার বিয়ের মাধ্যমেই আপনার কাছে ফিরে আসতে পারে।

অর্থাৎ আপনার স্ত্রীকে আবার ফিরিয়ে আনতে হলে পুনরায় মোহর ধার্য করে শরয়ী নীতি মোতাবিক বিয়ে করতে হবে।

তবে পরবর্তীতে আপনি আর দুই তালাকের মালিক  থাকবেন।

কারণ, আপনার প্রথম লিখিত এক তালাক পতিত হয়েছে। তালাক দেবার তিন হায়েজ অতিক্রান্ত হবার পর থেকে আপনার স্ত্রীর সাথে সম্পর্ক বিচ্ছেদ হয়ে গেছে। এ কারণে আপনার ৭/৮ মাস পর দেয়া দুই তালাক পতিত হয়নি।

 

فإن طلقها ولم يراجعها، بل تركها حتى انقضت عدتها بانت (بدائع الصنائع-3/283)

وأما حكم الطلاق البائن.. هو نقصان عدد الطلاق وزوال الملك أيضا حتى لا يحل له وطوها إلا بنكاح جديد، …… ولا يحرم حرمة غليظية حتى يجوز له نكاحها من غير أن تتزوج آخر، لأن ما دون الثلاثة، وإن كان بائنا، فإنه يوجب زوال الملك لا زوال حل المحلية (بدائع الصنائع-3/295)

لا ملك بعد انقضائها، فإذا انتقضت العدة لم يبق محل الإمساك، والطلاق الرجعى فى الحال سبب لزوال الملك عند انقضاء العدة (البناية شرح الهداية-5/456)

فوقوع الفرقة بانقضاء العدة فى الرجعى، بدونه فى البائن، وزوال حل المناكحة متى تم ثلاثا، كذا فى المحيط البرهانى (الفتاوى الهندية-1/348)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী, নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

কাবিননামার আঠার নং কলাম অনুপাতে স্ত্রী নিজের উপর তালাক পতিত করার অধিকার পায়?

প্রশ্ন From: Hasan বিষয়ঃ তালাকের ব্যাপারে ফতোয়ার আবেদন প্রশ্নঃ তালাক সম্পর্কে ফতোয়ার আবেদন =================== জনাব, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস