প্রচ্ছদ / আনন্দ/বিনোদন / খুশির দিনে পরস্পর তরমুজ ছুড়ে মজা করা কি হারাম?

খুশির দিনে পরস্পর তরমুজ ছুড়ে মজা করা কি হারাম?

প্রশ্ন

মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, গতকাল আফগানিস্তানে পবিত্র ঈদুল ফিতর রাষ্ট্রীয়ভাবে পালিত হয়েছে।

আফগানীদের ঈদ উদযাপনের একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যায়, একদল লোক পরস্পর তরমুজ ছুড়ে আনন্দ করছে।

এ দৃশ্য দেখে যেমন অনেকেই খুশি হয়েছেন। আবার অনেকেই সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। এটা নাজায়েজ বা অতিরঞ্জন বলে মন্তব্য করেছেন।

এক ভাই খুশির দিন এভাবে তরমুজ ছুড়ে আনন্দ করাকে সাহাবায়ে কেরামের সুন্নাহ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

এ বিষয়ে আপনাদের মতামত জানতে চাচ্ছি।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

এ সংক্রান্ত একটি হাদীস পাওয়া যায়।

হাদীসে আসছে যে,

عَنْ بَكْرِ بْنِ عَبْدِ اللَّهِ قَالَ: كَانَ أَصْحَابُ النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ، يَتَبَادَحُونَ بالبَّطِيخ، فإِذا كَانَت الحَقَائِقُ كَانُوا هُمُ الرِّجَالُ

বাকর ইবনে আবদুল্লাহ (রহঃ) বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর সাহাবীগণ একে অপরের প্রতি তরমুজ নিক্ষেপ করেও রসিকতা করতেন। কিন্তু তারা কঠিন বাস্তবতার সম্মুখীন হলে যোগ্য পুরুষই প্রতিপন্ন হতেন। [আদাবুল মুফরাদ, হাদীস নং-২৬৬]

সুতরাং এভাবে আনন্দ প্রকাশকে নাজায়েজ বলার সুযোগ নেই। বরং যদি অপরজনের ক্ষতি না হয়, বা অসহনীয় কষ্ট না পান তাহলে এভাবে খুশি প্রকাশ বা রসিকতা করা জায়েজ।

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী, নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

জমির মালিকের উপর যাকাত আবশ্যক হবে?

প্রশ্ন আমার বাবা এবং বড় ভাইয়ের সমন্বয়ে ২০ থেকে ২২ বিঘা জমি আছে এবং বাজারে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস