প্রচ্ছদ / তালাক/ডিভোর্স/হুরমত / ‘তুমি আমার মাকে কষ্ট দিলে আমাকে পাবে না’ বলার দ্বারা কি তালাক পতিত হয়?

‘তুমি আমার মাকে কষ্ট দিলে আমাকে পাবে না’ বলার দ্বারা কি তালাক পতিত হয়?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম,  আমার নাম মোহাম্মদ শিমুল মিয়া, জেলা নেত্রকোনা, বিভাগ ময়মনসিংহ।

কোন একদিন আমার স্ত্রীকে বলেছিলাম যদি আমার আম্মাকে কষ্ট দেও তাহলে আমায় পাবে না। এমনটা যে বলেছিলাম তা সঠিকভাবে মনেও পড়েনা বলে একদিন স্ত্রীকে বলি তোমায় কি এমন বলেছিলাম কখনো, যে আম্মাকে কষ্ট দিলে আমায় পাবে না?

স্ত্রী বলেছিল, তুমি এমন বলেছিলা যে যদি তুমি আম্মাকে কষ্ট দেও তাহলে আমার মন পাবে না। কিন্তু এর পরেও আমার মনে হয় আমি বলেছিলাম আমায় পাবে না। কিন্তু বিষয়টা নিয়ে দুশ্চিন্তা করতে করতে আমার ঘুম, খাওয়া দাওয়া, চলাফেরা করতে সমস্যা হচ্ছে। আমি আমার স্ত্রীকে অনেক ভালবাসি। কিন্তু তালাক সম্পর্কে কিছু টপিকস পড়ে আমার রাত দিন শুধু দুশ্চিনতা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে যে আমি কোন ভুল করে ফেলছি কিনা। আমি তো এমনও বলিনাই যে তোমাকে ছেড়ে দিলাম এর মত বাক্য বা দিব, বা তুমি তালাক যদিও শর্তযুক্ত ছিল।

শুধু এইটুকুই মনে হয় যে আমি বলেছিলাম আম্মাকে কষ্ট দিলে আমায় পাবে না। তাছাড়া এইটুকু বলেছিলাম ভবিষ্যত অর্থে। অর্থাৎ আম্মাকে কষ্ট দিলে এর পরে আমায় সে পাবেনা বা মন পাবেনা। আমায় পাবে না বা মন পাবে না কোনটাতেই  তালাক হয়ে যায় কিনা  উত্তর দিয়ে আমাকে সাহায্য করবেন বলে আশা রাখি। তবে এইটুকু শিউর  যেহেতু তালাক, ছেড়ে দেয়া, খুলে দেয়া, বিচ্ছিন্ন মত কোন শব্দ  মুখে বলিনাই সুতরাং মনে মনেও ভাবি নাই।

দয়াকরে আমায় সঠিক উত্তর দিয়ে সাহায্য করবেন, আমি প্রায় পাগলের মত সবসময় এই বিষয় মনে মনে দুশ্চিন্তায় মগ্ন  থাকি।

আমি আমার স্ত্রীকে অনেক ভালবাসি, সারাজীবন, মৃত্যুর পরেও থাকতে চাই।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

উপরোক্ত কথার দ্বারা কোন তালাক পতিত হবে না। সুতরাং পেরেশান হবার কিছু নেই।

عَدَمَ الْوُقُوعِ، بِلَا أُحِبُّكِ لَا أَشْتَهِيكِ لَا رَغْبَةَ لِي فِيكِ وَإِنْ نَوَى. وَوَجْهُهُ أَنَّ مَعَانِيَ هَذِهِ الْأَلْفَاظِ لَيْسَتْ نَاشِئَةً عَنْ الطَّلَاقِ لِأَنَّ الْغَالِبَ النَّدَمُ بَعْدَهُ فَتَنْشَأُ الْمَحَبَّةُ وَالِاشْتِهَاءُ وَالرَّغْبَةُ، (رد المحتار، كتاب الطلاق، باب الكنايات-4/526-527)

إذَا قَالَ لَا أُرِيدُك أَوْ لَا أُحِبُّك أَوْ لَا أَشْتَهِيك أَوْ لَا رَغْبَةَ لِي فِيك فَإِنَّهُ لَا يَقَعُ وَإِنْ نَوَى فِي قَوْلِ أَبِي حَنِيفَةَ – رَحِمَهُ اللَّهُ تَعَالَى – كَذَا فِي الْبَحْرِ الرَّائِقِ (الفتاوى الهندية-1/175)

إذَا قَالَ: لَا حَاجَةَ لِي فِيك أَوْ لَا أُرِيدُ أَوْ لَا أُحِبُّك أَوْ لَا أَشْتَهِيك أَوْ لَا رَغْبَةَ لِي فِيك فَإِنَّهُ لَا يَقَعُ، وَإِنْ نَوَى فِي قَوْلِ أَبِي حَنِيفَةَ (البحر الرائق، كتاب الطلاق، باب الكنايات فى الطلاق-3/327)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

পেশাবের দশ পনের মিনিট পর পেশাবের ফোটা আসার সন্দেহ হলে করণীয় কী?

প্রশ্ন From: আব্দুলাহ আনাস বিষয়ঃ পবিত্রতা প্রশ্নঃ আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন হুজুর? এক ব্যক্তি বড় দীর্ঘ দিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস