প্রচ্ছদ / অপরাধ ও গোনাহ / ফেইসবুকসহ স্যোশাল মিডিয়ায় ইসলাম প্রচার কতটুকু বৈধ?

ফেইসবুকসহ স্যোশাল মিডিয়ায় ইসলাম প্রচার কতটুকু বৈধ?

প্রশ্ন

ফেইসবুকসহ স্যোশাল মিডিয়ায় ইসলাম প্রচার কতটুকু বৈধ? দয়া করে জানাবেন।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

ইসলাম  সর্বত্র পৌছে দেবার চেষ্টা করা প্রতি ঈমানদের জন্য কর্তব্য। সেই হিসেবে যেহেতু ইন্টারনেটের সীমানাহীন প্লাটফর্মে কোটি মানুষ সম্পৃক্ত। তাই ময়দানেও চোখের গোনাহসহ যাবতীয় গোনাহ থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতে পারলে ইসলাম প্রচার করা জায়েজ আছে।

কিন্তু ইসলাম প্রচার করতে গিয়ে নিজেই গোনাহে জড়িত হয়ে পড়ার সম্ভাবনা বা নিশ্চিত ধারণা হয়, তাহলে ইন্টারনেট জগতে ইসলাম প্রচারের নামেও অংশগ্রহণ করা জায়েজ নয়।

সুতরাং যারা নেট জগতে নিজেকে গোনাহমুক্ত রেখে কাজ করেন, তাদের জন্য এ ময়দানে কাজ করা জায়েজ।

কিন্তু যাদের গোনাহে জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা তাদের জন্য  জায়েজ নয়।

هُوَ الَّذِي أَرْسَلَ رَسُولَهُ بِالْهُدَىٰ وَدِينِ الْحَقِّ لِيُظْهِرَهُ عَلَى الدِّينِ كُلِّهِ وَلَوْ كَرِهَ الْمُشْرِكُونَ [٩:٣٣]

তিনিই প্রেরণ করেছেন আপন রসূলকে হেদায়েত ও সত্য দ্বীন সহকারে, যেন এ দ্বীনকে অপরাপর দ্বীনের উপর জয়যুক্ত করেন, যদিও মুশরিকরা তা অপ্রীতিকর মনে করে। [সূরা তাওবা-৩৩]

قُل لِّلْمُؤْمِنِينَ يَغُضُّوا مِنْ أَبْصَارِهِمْ وَيَحْفَظُوا فُرُوجَهُمْ ۚ ذَٰلِكَ أَزْكَىٰ لَهُمْ ۗ إِنَّ اللَّهَ خَبِيرٌ بِمَا يَصْنَعُونَ [٢٤:٣٠]

মুমিনদেরকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টি নত রাখে এবং তাদের যৌনাঙ্গর হেফাযত করে। এতে তাদের জন্য খুব পবিত্রতা আছে। নিশ্চয় তারা যা করে আল্লাহ তা অবহিত আছেন।  [সূরা নূর-৩০]

হযরত আবূ হুরায়রা রাঃ থেকে বর্ণিত।

فَالْعَيْنَانِ زِنَاهُمَا النَّظَرُ، وَالْأُذُنَانِ زِنَاهُمَا الِاسْتِمَاعُ، وَاللِّسَانُ زِنَاهُ الْكَلَامُ، وَالْيَدُزِنَاهَا الْبَطْشُ، وَالرِّجْلُ زِنَاهَا الْخُطَا، وَالْقَلْبُ يَهْوَى وَيَتَمَنَّى، وَيُصَدِّقُ ذَلِكَ الْفَرْجُ وَيُكَذِّبُهُ

রাসূল সাঃ ইরশাদ করেন, চোখের জিনা হল [হারাম] দৃষ্টিপাত। কর্ণদ্বয়ের জিনা হল, [গায়রে মাহরামের যৌন উদ্দীপক] কথাবার্তা মনযোগ দিয়ে শোনা। জিহবার জিনা হল, [গায়রে মাহরামের সাথে সুড়সুড়িমূলক] কথোপকথন। হাতের জিনা হল, [গায়রে মাহরামকে] ধরা বা স্পর্শকরণ। পায়ের জিনা হল, [খারাপ উদ্দেশ্যে] চলা। অন্তর চায় এবং কামনা করে আর লজ্জাস্থান তাকে বাস্তবে রূপ দেয় [যদি জিনা করে] এবং মিথ্যা পরিণত করে [যদি অন্তরের চাওয়া অনুপাতে জিনা না করে]। {সহীহ মুসলিম, হাদীস নং-২৬৫৭, মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং-৮৯৩২}

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

হাশরের ময়দানে সূর্য কতটুকু কাছে থাকবে?

প্রশ্ন হাশরের ময়দানে সূর্য কতটুকু কাছে থাকবে? বক্তাদের ওয়াজের মাঝে বিপরীতমুখী বক্তব্য শুনতে চাই। সঠিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস