প্রচ্ছদ / আধুনিক মাসায়েল / Google adsence থেকে ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে ইনকাম করার হুকুম কী?

Google adsence থেকে ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে ইনকাম করার হুকুম কী?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম। আমার প্রশ্নটি ইন্টার্নেট সম্পর্কিত।
.
আমার প্রশ্নটি হচ্ছে, আমি ইউটিউব এ ভিডিও আপলোড করার মাধ্যমে টাকা উপার্জনের যে ব্যবস্থা আছে তা করতে চাই।

এটা হালাল হবে কি না এটা আমার প্রথম প্রশ্ন।
.
আমার প্রশ্নটা একটু বিস্তারিত বলি।

আমি ইউটিউব এ Android,Computer বা Internet  এর বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের টিউটোরিয়াল তৈরি করে আপলোড করি।

যেহেতু ভিডিওতে কোন অশ্লীল ছবি নেই তাই আমার ধারনা এই ভিডিও হারাম হবে না।।।কিন্তু আমার প্রশ্ন হচ্ছে অন্য যায়গায়। আমার ভিডিওতে Google adsence থেকে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন আসে।। আর এই বিজ্ঞাপন কম্পানিরা গুগল কে টাকা দেয়।

আর গুগল সেই টাকার কিছু অংশ আমাকে দিবে,কেননা আমার ভিডিও দেখতে যেয়ে অই বিজ্ঞাপনের প্রচার কাজ হয়ে গেছে।

গুগল একেক সময়ে একেক বিজ্ঞাপন ভিডিওতে নির্ধারিত করে দেয়। কোন বিজ্ঞাপন গুগল দিবে এটা আমার হাতে নিয়ন্ত্রণ নেই।

সব কিছু ঠিকই আছে।

কিন্তু এখন প্রশ্ন আমার এই যায়গায় যে গুগল বিভিন্ন কম্পানির বিজ্ঞাপন আমার ভিডিওতে দিচ্ছে,সেই বিজ্ঞাপনগুলোর মাঝে কখনো কখনো বেপর্দা নারীর ছবি থাকে।

তো এতে করে আমার প্রাপ্ত টাকা কি হালাল হবে?আমি তো হালাল ভিডিও আপলোড করি।

কিন্তু বিজ্ঞাপনে মাঝে মাঝে বেপর্দা মেয়ের ছবি থাকে।

যেমন ধরুন আমি আপনাকে একটা নমুনা দিচ্ছি। ছবিটিতে আমার ভিডিওর উপর গুগল একটি বিজ্ঞাপন দিয়েছে Dove কম্পানির।

এ কম্পানির পন্য হালাল কিন্তু এই বিজ্ঞাপনে দেখতে পাচ্ছেন একটা বেপর্দা মেয়ের ছবি রয়েছে।

গুগল যে বিজ্ঞাপনগুলো দেয় তা আমার নিয়ন্ত্রনে নেই,নইলে আমি সেই সব বিজ্ঞাপন বাছাই করে দিতাম যেগুলোতে বেপর্দা নারীর ছবি থাকে না।
এখন প্রশ্ন হচ্ছে এই কারনে কি আমার ইউটিউব এ ভিডিও আপলোড করে যে টাকা পেতাম তা হারাম হয়ে যাবে?

আপাতত এইটাই আমার প্রশ্ন।

আমার আরো কয়েকটা প্রশ্ন আছে। উত্তর দিলে খুব খুশি হতাম।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

যদি গুগুল বিজ্ঞাপনে মিউজিক এবং বেগানার নারীর ছবি সম্বলিত কোন কন্টেন্ট না থাকতো, তাহলে আর কোন গায়রে শরয়ী বিষয় না থাকলে জায়েজ উপকারী ভিডিও আপলোড করে গুগুল এডসেন্স থেকে ইনকাম করা নিঃসন্দেহে জায়েজ হতো।

জায়েজ ও উপকারী ভিডিও আপলোডকারী ব্যক্তির নিয়ত যদি পরিশুদ্ধ থাকে, তাহলে তার অনিচ্ছায় গুগুল কর্তৃপক্ষের প্রদর্শিত নাজায়েজ বিজ্ঞাপন যারা স্বেচ্ছায় দেখবে, তারা গোনাহগার হবে।

তবে আপলোডকারীর নিয়ত পরিশুদ্ধ থাকায় এবং বিজ্ঞাপন হালাল ও হারাম মিশ্রিত থাকায় এডসেন্স থেকে অর্জিত উপার্জন পরিপূর্ণ হারাম বলার সুযোগ কম বলেই আমরা মনে করি।

কিন্তু নাজায়েজ নারীর ছবি এবং মিউজিক থাকায় গুগুল এডসেন্স থেকে ইনকাম করা থেকে বিরত থাকাই উচিত।

তবে আমরা ইদানিং শুনতে পাচ্ছি যে, গুগুল কর্তৃপক্ষ যারা গুগুল এডসেন্স একাউন্ট না করবে, তাদের আপলোডকৃত ভিডিওতেও বিজ্ঞাপন চালাবে।

কারণ, এতে তাদের আরো বেশি লাভ। কারণ, যাদের এডসেন্স একাউন্ট করা, তাদের ভিডিওতে ক্লিক পড়ার মাধ্যমে গুগুল কর্তৃপক্ষের টাকা দিতে হয়।

কিন্তু যেসব চ্যানেল এডসেন্সের একাউন্ট করা নেই, সেসব চ্যানেলের ভিডিওতে ক্লিক পড়ার কারণে গুগুল কর্তৃপক্ষ যদিও বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠান থেকে টাকা নিচ্ছে, কিন্তু বিজ্ঞাপন প্রদর্শিত হওয়া চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে টাকা দিতে হয় না। যেহেতু তাদের একাউন্ট করা নেই।

এখন বিষয়টি এই দাঁড়ায় যে,  ইউটিউব চ্যানেলের জন্য গুগুল এডসেন্স একাউন্ট করা হোক বা না হোক সর্বাবস্থায় হারাম বিজ্ঞাপনের সঙ্গী হতে হবেই।

তাই সর্বোত্তম হল, ইউটিউব পুরোপুরি বর্জন করা।

যেহেতু তা অনেক ক্ষেত্রেই সম্ভব নয়। তাই এডসেন্স একাউন্ট করে উপার্জিত টাকা সওয়াবের নিয়ত ছাড়া দান করে দেয়াই অধিক নিরাপদ।

وَتَعَاوَنُوا عَلَى الْبِرِّ وَالتَّقْوَىٰ ۖ وَلَا تَعَاوَنُوا عَلَى الْإِثْمِ وَالْعُدْوَانِ ۚ وَاتَّقُوا اللَّهَ ۖ إِنَّ اللَّهَ شَدِيدُ الْعِقَابِ [٥:٢]

সৎকর্ম ও খোদাভীতিতে একে অন্যের সাহায্য কর। পাপ ও সীমালঙ্ঘনের ব্যাপারে একে অন্যের সহায়তা করো না। আল্লাহকে ভয় কর। নিশ্চয় আল্লাহ তা’আলা কঠোর শাস্তিদাতা। [সূরা মায়েদা-২]

فى معارف السنن- من ملك بملك خبيث ولم يمكنه الرد الى المالك فسبيله التصدق على الفقراء (معارف السنن، كتاب الطهارة، باب ما جاء لا تقبل صلاة بغير طهور-1/34، الفتاوى الشامية، باب البيع الفاسد، مطلب فى من ورث مالا حراما-7/301، كتاب الحظر والإباحة، فصل فى البيع-9/554، بذل المجهود، كتاب الطهارة، باب فرض الوضوء- 1/37

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

ফজরের নামাযে কুনুতে নাজেলা কি হযরত উমর রাঃ সারা বছর পড়তেন?

প্রশ্ন From: মাহমুদ বিষয়ঃ কুনূতে নাযেলা প্রশ্নঃ উমার রাঃ এর আমল হিসেবে আমাদের মসজিদে ফজর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস