হোম / অপরাধ ও গোনাহ / যিনাকৃত মহিলার মেয়েকে বিয়ে করার হুকুম কী?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

যিনাকৃত মহিলার মেয়েকে বিয়ে করার হুকুম কী?

প্রশ্ন

প্রশ্ন :-  আমি বর্তমানে ইসলামিক পথে চলার চেষ্টায় আছি। আমি কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার পাশ করেছি। কিন্তু অতীতে আমি ইসলামকে না জানার কারনে ভুল করে আমার  বিবাহের আগে একটি মেয়ের সঙ্গে কয়েকবার জেনার কাজে যুক্ত হয়ে পড়ি।
কয়েকদিন পর নিজের ভুল  বুঝতে পেরে আল্লার ভয়ে ঐ জেনার কাজ থেকে তওবা করে নিয়েছি। এতিমধ্যে ঐ জেনাকারি মেয়েটির মেয়ে আমাকে খুব ভালোবেসে ফেলে। আমি প্রথমে সংকোচে পড়ে গেছিলাম তারপর  আমিও তাকে খুব ভালোবেসে ফেলেছি।তাকে বিয়েও করেছি প্রায় ১৭ মাস। আমি বিয়ের আগে যার সঙ্গে জেনা করেছি সে বর্তমানে আমার শাশুড়ি। মাননীয় হুজুরের কাছে জানতে আগ্রহী যে আমার বিবাহিত  স্ত্রী কি আমার জন্য বৈধ ইসলাম শরিয়ত অনুযায়ি। অনুগ্রহ করে আমার  প্রশ্নের উত্তর পেলে উপকৃত হয়। আমি আমার স্ত্রীকে খুব ভালোবাসি। আমাকে ইসলাম শরিয়ত অনুযায়ি কি করা উচিত বর্তমানে।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

না, উক্ত মেয়ের সাথে আপনার বিয়ে শুদ্ধ হয়নি। কারণ, যিনাকৃত মহিলার উপরের আত্মীয় এবং নিচের আত্মীয় স্বজন যিনাকারীর জন্য হারাম হয়ে যায়। সেই হিসেবে উক্ত মহিলার কন্যা আপনার জন্য বিয়ে করা হারাম ছিল। তাই উক্ত মেয়েকে বিয়ে করা শুদ্ধ হয়নি।

অতি দ্রুত তার থেকে বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়া আপনার উপর আবশ্যক। নতুবা তওবা করার পরও আপনার এখন যিনার গোনাহ হচ্ছে।

قَوْلُهُ: وَحَرُمَ أَيْضًا بِالصِّهْرِيَّةِ أَصْلُ مَزْنِيَّتِهِ) قَالَ فِي الْبَحْرِ: أَرَادَ بِحُرْمَةِ الْمُصَاهَرَةِ الْحُرُمَاتِ الْأَرْبَعَ حُرْمَةَ الْمَرْأَةِ عَلَى أُصُولِ الزَّانِي وَفُرُوعِهِ نَسَبًا وَرَضَاعًا وَحُرْمَةَ أُصُولِهَا وَفُرُوعِهَا عَلَى الزَّانِي نَسَبًا وَرَضَاعًا كَمَا فِي الْوَطْءِ الْحَلَالِ وَيَحِلُّ لِأُصُولِ الزَّانِي وَفُرُوعِهِ أُصُولُ الْمُزَنِيّ بِهَا وَفُرُوعُهَا. (رد المحتار، كتاب النكاح، فصل فى المحرمات-4/99)

عن عمران بن الحصين فى الرجل يقع على أم أمرأته، قال تحرم عليه أمرأته (المصنف لابن أبى شيبة-3/469، رقم-16226)

عن أبى هانيء رضى الله عنه قال: قال رسول الله صلى الله عليه وسلم: من نظر إلى فرج إمرأة لم تحل له أمها ولا ابنتها (المصنف لابن أبى شيبة-3/469، رقم-16229)

عن شعبة قال: سئلت الحكم وحمادا عن رجل زنى بأم امرأته، قال: أحب ان يفارقها (المصنف لابن أبى شيبة-3/469، رقم-16233)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী – মা’হাদুত তালীম ওয়াল  বুহুসিল ইসলামী ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া ফারূকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

অযু করা পানি পাত্রে ছিটকে পড়লে উক্ত পানির হুকুম কী?

প্রশ্ন : আমি সর্বদা মগে পানি নিয়ে ওজু করি । প্রায়ই ওজুর সময় মুখ ধোয়া …