প্রচ্ছদ / কুরবানী/জবেহ/আকীকা / কুরবানীর গোস্ত দিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান করার নিয়তে কুরবানী করলে কুরবানী হবে কি?

কুরবানীর গোস্ত দিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান করার নিয়তে কুরবানী করলে কুরবানী হবে কি?

প্রশ্ন

কোরবানীর গোস্ত দিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান করবো বা মেহমানদের আপ্যায়ন করাবো- এমন নিয়তে কোরবানী করা যাবে কি?

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

এভাবে নিয়ত করে কুরবানী করলে কুরবানী শুদ্ধ হবে না। কারণ, এতে গোস্ত খাওয়ার নিয়তে কুরবানী হয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া আল্লাহর বিধান পূর্ণ করার জন্য এ কুরবানী করা হচ্ছে না, বরং আত্মীয়দের খাওয়ার জন্য পশু জবাই করা হচ্ছে।

তাই এভাবে নিয়ত করে কুরবানী করলে কুরবানী শুদ্ধ হবে না।

তবে যদি আল্লাহর হুকুম পালন করার উদ্দেশ্যে কুরবানী করে থাকে,আর এরপর কুরবানীর গোস্ত দিয়ে বিয়ের মেহমানদারী করে,তাহলে কুরবানীও শুদ্ধ হবে। আবার মেহমানদারদের খাওয়ানোও বৈধ হবে।

তবে যদি বড় পশুর সাত ভাগের মাঝে আলাদা অংশ ওলীমার জন্য রাখে,তাহলে ওলীমার অংশ রাখার কারণে কুরবানী নষ্ট হবে না। বরং শরীক সবার কুরবানী শুদ্ধ হয়ে যাবে।

মাসআলা দু’টি আলাদা। এক হল, কুরবানীর অংশটিকে বিয়ের মেহমানদারীর জন্য কুরবানী করা। আর দ্বিতীয় মাসআলা হল, কুরবানীর অংশ নয়, বরং কুরবানীর পশুতে আলাদা অংশে ওলীমার অংশ রাখা।

প্রথম সূরতে কুরবানী শুদ্ধ হবে না। দ্বিতীয় সূরতে কুরবানী শুদ্ধ হবে।

او كان شريك السبع من يريد اللحم أو كان نصرانيا ونحو ذلك لا يجوز للآخرين (الفتاوى الهندية، كتاب الاضحية، الباب الثامن فيما يتعلق بالشركة فى الضحايا-5/304)

وإن كان أحدهم يريد اللحم لم يجز عن واحد منهم (تاتارخانية-17450, رقم-27793)

وإن كان شريك الستة نصرانيا أو مريد اللحم لم يجز عن واحد (الدر المختار مع رد المحتار-9/472)

فلو أراد أحدهم بنصيبه اللحم…… لا يجوز عن واحد منهم (ملتقى الأبحر-2/517)

ويأكل من لحم الأضحية ويطعم الأغنياء والفقراء ويدخل لقوله عليه السلام: كنت نهيتكم عن أكل لحوم الأضاحى، فكلوا منها وادخروا (الفتاوى الهندية-4/449)

ولم يذكر الوليمة ولكن ينبغى ان تجوز لأنها تقام شكرا لله على نعمة النكاح، وردت بها السنة فإذا قصد بها الشكر أو إقامة السنة فقد أراد القربة، (رد المحتار-9/472)

ولم يذكر ما اذا اراد أحدهم الوليمة وهى ضيافة التزويج وينبغى ان يجوز لأنها إنما تقام شكرا لله على نعمة النكاح، (تبيين الحقائق، زكريا-6/485، امدادية ملتان-6/8، هندية-5/304، بدائع الصنائع، زكريا-4/209، كرتاشى-5/71

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

চলন্ত বাসে কিভাবে নামায আদায় করবে?

প্রশ্ন চলন্ত বাসে যদি বাস থামিয়ে নামায পড়ার সুযোগ না থাকে, তাহলে কিভাবে নামায আদায় …

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস