প্রচ্ছদ / নামায/সালাত/ইমামত / তারাবী নামাযে মুক্তাদী ভুলে রুকু না করলে তার নামাযের হুকুম কী?

তারাবী নামাযে মুক্তাদী ভুলে রুকু না করলে তার নামাযের হুকুম কী?

প্রশ্ন

আস সালামু আলাইকুম।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছু।

আমি একদিন তারাবির নামাজ জামাতে আদায়ের সময় শারিরিক দুর্বলতার জন্য রুকুর সময় তন্দ্রাভাব আসে। যখন তন্দ্রা ভাব কাটে তখন ইমাম সামিয়াল্লাহু লিমান হামিদাহ বলেন। এতে আমার মনে হয় আমি হয়তো বা রুকু করিনি অথবা আমার মনে নেই যে আমি রুকু করেছি। এই ভেবে আমি যথারীতি সালাত আদায় করেছি।

এখন সালাত কি শুদ্ধ ও সম্পন্ন হবে???

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

যদি আপনার প্রবল ধারণা হয় যে, আপনি রুকু করেননি। তাহলে আপনার নামায হয়নি। কারণ নামাযের মাঝে রুকু করা ফরজ। কোন কারণে তা তরক হলে নামায হবে না। ইচ্ছে করে হোক বা অনিচ্ছায় হোক। সর্বাবস্থায় রুকু, সেজদা, শেষ বৈঠক তরক করলে নামায হয় না।

مِنْ فَرَائِضُهَا) الَّتِي لَا تَصِحُّ بِدُونِهَا الخ (ومنها الركوع) (الدر المختار مع رد المحتار، كتاب الصلاة، باب صفة الصلاة-2/127-133)

وأما الفرض فيفوت بفوات الأصل لا الوصف فلا ينجبر بغيره “سهوا” بتقديم أو تأخير أو زيادة أو نقص لما روينا (حاشية الطحطاوى على مراقى الفلاح، كتاب الصلاة، باب سجود السهو-460-461

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

চার রাকাত বিশিষ্ট্য নফল নামাযের মাঝের বৈঠকে দরূদ ও দুআয়ে মাছুরা পড়া যাবে?

প্রশ্ন From: মুফতি মহিউদ্দীন বিষয়ঃ চার রাকাত বিশিষ্ট নফল নামাজে দুরুদ ও দোআ পড়া প্রশ্নঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস