প্রচ্ছদ / নামায/সালাত/ইমামত / উস্তাদ নামাযে ভুল করলে ছাত্রের জন্য লুকমা দেয়া বেআদবী?

উস্তাদ নামাযে ভুল করলে ছাত্রের জন্য লুকমা দেয়া বেআদবী?

প্রশ্ন

From: মো:শামীম বড়াইগ্রাম নাটোর
বিষয়ঃ মাদ্রাসার উস্তাদ নামাজে ভুল করলে ছাত্র লোকমা দেয়া কি বেয়দবি হবে?

প্রশ্নঃ
আমাদের এলাকাতে এক জন আলিয়া মাদ্রাসার আলেম আছেন তিনি হেফজো
খানার ছাত্রদের নছিহত করেছেন তোমাদের হুজুর নামাজে ভুল করলে তোমরা লোকমা দিবেনা কারন তা বেয়দবি হবে, একারনে আছরের নামাজে ইমাম সাহেব দুই রাকাতে এক বৈঠক তিন রাকাতে এক বৈঠক চার রাকাতে বৈঠক করেনি পাচঁ রাকাতে বৈঠক করে ছালাম ফিরিয়েছে সিজদাহ সো করেনি নামাজ কি হবে? না হলে দায়ি কে?

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

নামাযে ভুল করলে উস্তাদ কেন রাসূল সাঃ নামাযে ভুল করলেও পিছনে থাকা সাহাবীগণ লুকমা দিয়েছেন। সেখানে উস্তাদ কোন ছাড়?

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ: أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ انْصَرَفَ مِنَ اثْنَتَيْنِ، فَقَالَ لَهُ ذُو اليَدَيْنِ: أَقَصُرَتِ الصَّلاَةُ، أَمْ نَسِيتَ يَا رَسُولَ اللَّهِ؟ فَقَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «أَصَدَقَ ذُو اليَدَيْنِ» فَقَالَ النَّاسُ: نَعَمْ، فَقَامَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ، فَصَلَّى اثْنَتَيْنِ أُخْرَيَيْنِ،

হযরত আবূ হুরায়রা রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাঃ একদা [চার রাকাত বিশিষ্ট নামাযে] দুই রাকাত পড়ে সালাম ফিরিয়ে ফেললেন। তখন যুল ইয়াদাইন রাঃ বলেলনঃ নামায কি কমে গেছে নাকি আপনি ভুলে গেছেন হে আল্লাহর রাসূল? তখন রাসূল সাঃ বললেনঃ যুল ইয়াদাইন কি সত্য বলছে? তখন সাহাবাগণ বললেনঃ হ্যাঁ, তখন রাসূল সাঃ দাঁড়িয়ে বাকি দুই রাকাত পড়লেন।[বুখারী, হাদীস নং-৭১৪]

এ হাদীসে পরিস্কার দেখা যাচ্ছে, রাসূল সাঃ নামাযে ভুল করে চার রাকাত বিশিষ্ট নামাযে দুই রাকাত পড়ে সালাম ফিরিয়ে ফেললে সাহাবী লুকমা দিয়েছেন। আর রাসূল সাঃ উক্ত সাহাবীকে তিরস্কার না করে বাকি নামায পূর্ণ করলেন।

বুঝা গেল, নামাযে ইমামের ভুল হলে মুক্তাদী ছাত্র হোক, আর যেই হোক লুকমা দিবে। এটাই সুন্নতে নববী।

আর চার রাকাত বিশিষ্ট নামাযে শেষ বৈঠক হল ফরজ। তা ছেড়ে দিয়ে পঞ্চম রাকাত পড়ে ফেললে, ফরজ বাদ হয়ে যাবার কারণে ফরজ নামাযটি বাদ হয়ে যায়। তাই উক্ত ফরজ আবার আবার আদায় করা জরুরী।

তা’ই উপরোক্ত অবস্থায় আপনাদের সেদিনের আছরের নামায আদায় হয়নি। তা সবার কাযা করে নিতে হবে।

إِذَا صَلَّى الظُّهْرَ خَمْسًا وَلَمْ يَقْعُدْ فِي الرَّابِعَةِ مِقْدَارَ التَّشَهُّدِ فَسَدَتْ صَلاَتُهُ.

وَهُوَ قَوْلُ سُفْيَانَ الثَّوْرِيِّ، وَبَعْضِ أَهْلِ الكُوفَةِ.

যদি কোন ব্যক্তি যোহরের নামায পাঁচ রাকাত পড়ে, কিন্তু চার রাকাত পরে তাশাহুদ পরিমাণ না বসে, তাহলে তার নামাযটি বাতিল হয়ে গেছে। এটাই ইমাম সুফিয়ান সাওরী, এবং কতিপয় আহলে কুফার অভিমত। [সুনানে তিরমিজী, হাদীস নং-৩৯৪ এর আলোচনা]

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

চার রাকাত বিশিষ্ট্য নফল নামাযের মাঝের বৈঠকে দরূদ ও দুআয়ে মাছুরা পড়া যাবে?

প্রশ্ন From: মুফতি মহিউদ্দীন বিষয়ঃ চার রাকাত বিশিষ্ট নফল নামাজে দুরুদ ও দোআ পড়া প্রশ্নঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস