প্রচ্ছদ / আকিদা-বিশ্বাস / ওমানের ইবাজী মতাদর্শীদের পিছনে আহলে সুন্নাতের অনুসারীদের নামায হবে কি?

ওমানের ইবাজী মতাদর্শীদের পিছনে আহলে সুন্নাতের অনুসারীদের নামায হবে কি?

السوال

لإسم: حسان

البلد: بنغلاديش

أسكن:  سلطنة عُمان

السلام عليكم ورحمة الله وبركاته

المحترم،

اعترف كل الشكر والتقدير والاحترام على جهودكم الميمون في خدمة الدين. وأدعو الله تعالى أن يسهل أموركم ويتقبل منكم. 

انا أسكن في سلطنة عُمان. وكما تعرفون أن أهل عمان يتدينون بمذهب الإباضي. وإن الإباضية عندها عقائد الدينية تختلف عن اهل السنة والجماعة. مثلاً أهل الإباضي ينكرون رؤية الله تعالى في الجنة. وهذا مخالف لأهل السنة.  و هنا أسأل في خدمتكم، هل يجوز أن أصلي خلفهم؟ علماً هنا لا يتوفر الامام سني . ويزعمون أنهم أهل الحق والاستقامة . وأن نسبة الإباضي إلى عبدالله بن إباض التميمي ولكن المؤسس الحقيقي هو التابعي الكبير جابر بن زيد .و رسلت بعض صفحات من كتبهم . وشكرا وجزاكم الله خيرا في الدنيا والآخرة

الجواب

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

الإباضية إحدى الفرق الضالة ، كما جاء في فتوى اللجنة الدائمة رقم 6935 ، ونصها :

السؤال : هل تعتبر فرقة الإباضية من الفرق الضالة من فرق الخوارج وهل يجوز الصلاة خلفهم ؟

فكان جواب اللجنة كما يلي :

الحمد لله وحده والصلاة والسلام على رسوله وآله وصحبه .. وبعد :

فرقة الإباضية من الفرق الضالة لما فيهم من البغي والعدوان والخروج على عثمان بن عفان وعلي رضي الله عنهما ، ولا تجوز الصلاة خلفهم .

وبالله التوفيق .

اللجنة الدائمة للبحوث العلمية والإفتاء

فهذه الفرق الاباضية من اهل البدع والضالة، وبدعتهم البدع المكفرة، : كقولهم بخلق القرآن ، ونفي رؤية المؤمنين لربهم في الجنة ، والقول بتكفير مرتكب الكبيرة أو تخليده في النار ، و القول بتحريف القرآن ، وغير ذلك

فلهذا هم مرتكب البدع المكفرة، فلا يجوز تمكين أهل البدع المكفِّرة من إمامة الصلاة ، لعدم صحة الصلاة خلفهم عند جمع من أهل العلم ، ولكونهم أهلا للهجر والزجر لا للإمامة والتقديم ، ولما يترتب على تقديمهم للصلاة من اغترار الجاهل بهم .

প্রশ্নের সারমর্ম হল

ইবাজী মতবাদ নামে উমানে একটি ফিরক্বা রয়েছে। যারা নিজেদের হক মনে করে। অথচ তাদের সাথে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের বেশ কিছু পার্থক্য রয়েছে।

সেখানে সুন্নী ইমাম পাওয়া যায় না্ তাই’ প্রবাসী সুন্নী মুসলমানগণ ইবাজী মতাদর্শী ইমামের পিছনে নামায পড়তে পারবেন কি না?

প্রশ্নকর্তা- হাসসান

উমান প্রবাসী।

উত্তর

ইবাজী ফিরক্বা। আহলে সুন্নত ওয়াল জামাআত বহির্ভূত একটি ভ্রান্ত ফিরকা।

তাদের কয়েকটি ভ্রান্ত মতবাদ তুলে ধরা হল।

আল্লাহ তাআলাকে আখেরাতে দেখা সম্ভব নয়।

অথচ তা পরিস্কার সহীহ হাদীসের বিপরীত আকিদা।

তওবা করতে পারেনি এমন পাপী মুসলমানরাও কাফিরদের মত চিরস্থায়ী জাহান্নামী হবে।

এটিও আহলে সুন্নত ওয়াল জামাআত বিরোধী আকিদা।

অধিকাংশ ইবাজী মতাদর্শী কুরআনকে মাখলুক মনে করে।

এটি যে ভ্রান্ত আকিদা, তাতে কোন সন্দেহ নেই।

তাদের আকিদা তাদের বিস্তারিত দলীলসহ দেখতে ক্লিক করুন।

এছাড়াও আরো কিছু ভ্রান্ত আকিদা রয়েছে তাদের মাঝে।

ফাতওয়া লাযনাতুত দায়িমার ৬৯৩৫ নং ফাতওয়ায় উক্ত ফিরকাকে ভ্রান্ত ফিরকা বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

লাযনাতুত দায়িমার ফাতওয়ার প্রশ্নোত্তরটি হুবহু নকল করা হল-

প্রশ্ন

ইবাজী ফিরক্বাকে খারেজীদের ভ্রষ্ট ফিরক্বায় গণ্য করা হবে কি? আর তাদের পিছনে নামায পড়ারই বা কি বিধান?

উত্তর

সালাত ও সালামের পর।

ইবাজী ফিরকা একটি পথভ্রষ্ট ফিরক্বা। যেহেতু তাদের মাঝে আছে ধর্মদ্রোহীতা, বাড়াবাড়ি এবং হযরত উসমান বিন আফফান ও হযরত আলী রাঃ বিষয়ে খারেজী মনোভাব। তাদের পিছনে নামায পড়া জায়েজ হবে না।

আল্লাহ তাআলাই তৌফিকদাতা

আল্লাযনাতুত দায়িমা লিলবুহুসিল ইলমিয়্যাহ ওয়াল ইফতা

সুতরাং এ মতাদর্শীদের পিছনে নামায পড়া যাবে না। ইবাজী সম্প্রদায় সম্পর্কে বিস্তারিত এবং ভারসাম্যপূর্ণ আলোচনা দেখতে পড়ুন الاباضية عقيدة ومذهبا ড. সাবের তায়ীমাকৃত।

সুন্নী ইমাম না পেলে আপনারা নিজেদের মাঝে কাউকে ইমাম নিযুক্ত করে জামাত পড়ে নিন।

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা-জামিয়া ফারুকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

মানুষ কি জান্নাতে চিরস্থায়ী হবে নাকি দীর্ঘস্থায়ী? রূহের কী মৃত্যু হয়?

প্রশ্ন From: Sharmin Hasan বিষয়ঃ মানুষ কি কখনো জান্নাত অথবা জাহান্নাম থেকে বিলীন হয়ে যাবে? …

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস