প্রচ্ছদ / প্রশ্নোত্তর / পুকুর ও আম/লিচু বাগান ভাড়া নেয়ার হুকুম কী?

পুকুর ও আম/লিচু বাগান ভাড়া নেয়ার হুকুম কী?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম

মুহ্তারাম নিম্মোক্ত দুই প্রকার ব্যবসার শরীয়াহ্ হুকুম অর্থাৎ জায়েজ না নাজায়েজ তা বিস্তারিত জানালে খুবই উপকৃত হব।

আমি কারো কাছ থেকে একটি আম বাগান/লিচু বাগান/পুকুর দরকষাকষির মাধ্যমে নিদৃষ্ট টাকার বিনিময়ে নিদৃষ্ট সময়ের জন্য এই চুক্তির ভিত্তিতে মালিকানা গ্রহণ করবো যে আমি উক্ত আম বাগান/লিচু বাগান/পুকুর আবাদ করবো এবং এর ফলে যে মুনাফা/ক্ষতি হবে তা সম্পূর্ণ আমার এবং নিদৃষ্ট সময় পর তার আম বাগান/লিচু বাগান/পুকুর  তাকে ফিরত দেয়া হবে এবং আমার মালিকানা বিলুপ্ত হবে এবং যত টাকার বিনিময়ে সে আমাকে তার আম বাগান/লিচু বাগান/পুকুর দিয়েছিল সে টাকা সম্পূর্ণ আমাকে ফিরত দিবে।

এভাবে চুক্তি করা শরীয়তসম্মত কি না?

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নির্ধারিত ভাড়ামূল্যে ফলের বাগানের জমি বা পুকুর ভাড়া নিয়ে তাতে চাষ করা ও এর ফল ভোগ করা জায়েজ আছে।

কিন্তু ভাড়াকৃত বা চুক্তিকৃত টাকা ফেরত দেবার শর্তে বাগান বা পুকুর গ্রহণ করা এবং এর উপার্জন ভোগ করে মেয়াদ শেষে বাগান বা পুকুর মালিককে ফেরত দেবার সময় প্রদানকৃত টাকা ফেরত নেয়া সম্পূর্ণরূপে হারাম ও নাজায়েজ। কারণ, এটা ঋণের বিপরীতে সুদের অন্তর্ভূক্ত।

তাই এ পদ্ধতির চুক্তি জায়েজ নয়।

সুতরাং আপনার প্রশ্নোক্ত পদ্ধতির লেনদেন বা চুক্তিটি শরীয়তসম্মত নয়।

 

ما صلح بدلا فى البيع يصلح بدلا فى الإجارة، لأن البدل فى الإجارة ثمن المنفعة، وهى تابعة للعين، وما صلح بدلا عن الأصل صلح بدلا عن التبع (شرح المجلة رستم باز-1/260، رقم-463)

وما صلح ثمنا فى البيع صلح أجره فى الإجارة، لان الأجرة بثمن المنفعة (مجمع الأنهر، كتاب الأجارة، دار الكتب العلمية بيروت-3/513، مصرى قديم-2/369، الفاوى الهندية-4/412، جديد-4/442، رد المحتار، زكريا-9/5، كرتاشى-6/4، البحر الرائق، زكريا-8/506، كويته-7/298)

ومن استأجر أرضا على أن يكربها ويزرعها ويسقيها، فهو جائز (الهداية، كتاب الاجارة، باب الإجارة الفاسدة، أشرفى-3/306، البحر الرائق، زكريا-8/43، كويته-8/24، رد المحتار، زكريا-9/82، كرتاشى-6/60)

وتصح إجارة أرض للبناء والغرس، وسائر الانتفعات (رد المحتار، زكريا-9/40، كرتاشى-6/30)

ويجوز كراء الأرض بالشجر الذى يمكث فيها زمنا طويلا (كتاب الفقه على مذاهب الأربعة، دار الفكر بيروت-3/133)

كل قرض شرط فيه الزيادة فهو حرام بلا خلاف…… الفضل الشروط فى القرض ربا محرم لا يجوز للمسلم من أخيه المسلم أبدا، لاجماع المجتهدين على حرمته (إعلاء السنن، رسالة كشف الدجى على حرمة الربوا، إدارة القرآن كرتاشى-14/518)

كل قرض جر نفعا حرام أى إذا كان مشروطا (رد المحتار، زكريا-7/395، كرتاشى-5/166)

كل قرض جر منفعة فهو وجه من وجوه الربا (تكملة فتح الملهم، كتاب المساقات والزارعة، مكتبة دار العلوم كرتاشى-1/575)

الربا هو القرض على أن يؤدى إليه أكثر أو افضل مما أخذ (حجة الله البالغة، الربا سحت باطل-2/282)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com 

আরও জানুন

বিয়ের অনুমতি প্রদানকারীর উপস্থিতিতে উকীল একজন সাক্ষীর সামনে বিয়ে করালে বিবাহ হবে?

প্রশ্ন আসসালামুআলাইকুম। আমার স্বামী আমাকে অজ্ঞাতাবসত তিন তালাক দেন। আমি দ্বীনের পথে আসার পর জানতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস