প্রচ্ছদ / কুরবানী/জবেহ/আকীকা / ওজন করে পশু ক্রয় করে কুরবানী দিলে কুরবানী হবে না?

ওজন করে পশু ক্রয় করে কুরবানী দিলে কুরবানী হবে না?

প্রশ্ন

ওজন করে পশু ক্রয় করে কুরবানী করলে কি কুরবানী হবে না? বর্তমানে গরু ছাগল ওজন করে বিক্রির প্রবণতা দেখা দিয়েছে। এতে কিছু মাওলানা বলছেন যে, এভাবে ক্রয়বিক্রয় জায়েজ নেই। তাই ওজন করে ক্রয় করা পশু দিয়ে কুরবানী করলে কুরবানী হবে না।

বিষয়টি দয়া করে বিস্তারিত জানালে কৃতার্থ হবো।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

গরু ছাগল ওজন করে ক্রয়বিক্রয় করার দু’টি সূরত। যথা-

ওজন করে ওজনের মূল্য হিসেবে বিক্রি করা হয়। যেমন গরুটি একশত কেজি। সুতরাং একশত কেজি গোস্তের মূল্য প্রদান করে গরুটি ক্রয় করা হলো।

ওজন হিসেবে গরু বা ছাগলটির গোস্ত ক্রয় করা হয়নি। বরং এটার মূল্য নির্ধারণে একটি অনুমাণ করার জন্য গরুটি মাপা হয়েছে তথা ওজন দেয়া হয়েছে। ওজনের মাধ্যমে গরু বা বকরীটির মূল্যমান অনুমান করে দরদাম ঠিক করে তা ক্রয় করা।

প্রথম সূরতে ক্রয়বিক্রয়টি জায়েজ হবে না। কারণ, এতে পণ্য এর পরিমাণ সুনির্দিষ্ট হচ্ছে না। অথচ সুনির্দিষ্ট মনে করে তা  ক্রয় করা হচ্ছে। তাই এটি জায়েজ হবে না।

তাই এর দ্বারা কুরবানীও বিশুদ্ধ হবে না।

কিন্তু দ্বিতীয় পদ্ধতিতে ক্রয়বিক্রয় বিশুদ্ধ। তাই এমন ক্রয়কৃত পশু দিয়ে কুরবানী করাও বিশুদ্ধ হবে।

আর বর্তমানে যেহেতু এভাবে ওজন করে ক্রয় বিক্রয় করা প্রচলিত হয়ে গেছে। এছাড়া মূল্য নির্দিষ্ট করা উদ্দেশ্য হয় না, বরং মূল্য পরিমাণ অনুমান করা উদ্দেশ্য হয়ে থাকে। তাই এভাবে ওজন করে গরু ছাগল ইত্যাদি ক্রয় বিক্রয় করা জায়েজ আছে।  [আহসানুল ফাতাওয়া-৬/৪৯৭, ঈযাহুল মাসায়েল-১৫৮, ফাতাওয়া কাসিমিয়া-১৯/৩৫৩, ফাতাওয়া উসমানী-৩/৯৯]

لأن الحیوان لا یوزن عادة ولا یمکن معرفة ثقله بالوزن لأنه یخفف نفسه مرة بصلابته ویثقل أخری (الهدایة مع الفتح: ۷/۲۷)

 وفي الفتح: إنما قلنا: إن الحیوان لیس بموزون (لأنه لا یوزن عادة) فلیس فيه أحد المقدرین الشرعیین الوزن أو الکیل، لأن الحیوان لا یعرف قدر ثقله بالوزن لأنه یثقل نفسه ویخففها فلا یدری حاله․ (فتح القدیر ۷/۲۶، کتاب البیوع، ط: اشرفيه)

قال أبو حنيفة وأبو يوسف يجوز بيع اللحم بالحيوان، لأن الحيوان ليس من مال الربوا، وهو بيع موزون بغير موزون الخ (أوجز المسالك، قديم-5/105، فتح القدير، مصرى قديم-7/27، كويته-6/167، زكريا-7/25، رد المحتار، زكريا-7/415، كرتاشى-5/180، حاشية چلپی مع كنز الدقائق، امدادية ملتان-4/91، زكريا-4/460)

وقال محمد: إن  كان بغير جنسه كلحم البقر بالشاة الحية، جاز كيفما كان الخ (رد المحتار،  زكريا-7/415، كرتاشى-5/180)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

কুরবানীর জন্য মান্নত করা পশুতে কাউকে শরীক নিতে পারবে?

প্রশ্ন আসসালামু আলাইকুম হযরত.. একটি প্রশ্ন জানার ছিলো প্রশ্নটি হলো এক ব্যক্তির একটি গরু ছিলো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস