প্রচ্ছদ / তালাক/ডিভোর্স/হুরমত / ইদ্দত কাকে বলে? ইদ্দত কতদিন পালন করতে হয়?

ইদ্দত কাকে বলে? ইদ্দত কতদিন পালন করতে হয়?

প্রশ্ন

From: ওয়ালীউল্লাহ
বিষয়ঃ ইদ্দত

প্রশ্নঃ
আসসালামু আলাইকুম,
জনাব,
ইদ্দত কি ?
এর প্রকার আছে কি ?  থাকলে কি কি ?
ইদ্দত কখন কিভাবে পালন করতে হয় ?
এ ক্ষেত্রে কতটুকু সহজ করা যায় ?
বিস্তারিত জানিয়ে বাধিত করবেন আশা করি।
জাযাকাল্লাহ খাইর।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

ইদ্দতের আভিধানিক অর্থ হলো গণনা করা।

পরিভাষায় ইদ্দতের অর্থ হলো: মহিলাদের ঐ সময় পর্যন্ত অন্যত্র বিয়ে করা থেকে বিরত থাকা যা তার ইতোপূর্বের বিবাহের প্রভাব প্রকাশ যেমন অন্তসত্মা ইত্যাদি প্রকাশের সম্ভাবনা শেষ হবার জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিস্তারিত বললে ইদ্দত বলা হয়, স্বামী যদি মহিলাকে তালাক দেয়, বা খোলা করে, কিংবা ঈলা ইত্যাদি করে বা কোনভাবে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে, অথবা স্বামী মারা যায়, তাহলে এসব সূরতে কিছুদিনের জন্য নিজেকে ঘরে আবদ্ধ রাখা। সেই সময়ের মধ্যে উক্ত ঘর থেকে জরুরত ছাড়া বের না হওয়া এবং অন্যত্র বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ না হওয়াকে ইদ্দত বলা হয়।

তালাক বা স্বামীর ইন্তেকাল যেভাবেই হোক বিবাহ বিচ্ছেদ হলে ইদ্দত পালন করা মহিলাদের উপর আবশ্যক।

তালাকের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদ হলে তিন হায়েজ পরিমাণ হলো ইদ্দত যদি হায়েজ আসে। আর যদি হায়েজ না আসে, তাহলে তিন মাস পর্যন্ত ইদ্দত পালন করতে হয়।

আর যদি স্বামী মারা যায়, তাহলে চার মাস দশ দিন ইদ্দত পালন করতে হয়।

বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকে বা স্বামী ইন্তেকালের পর থেকেই ইদ্দতের সময়কাল শুরু হয়।

العدة: بكسر العين وتشديد الدال الممفتوحة ما تمكثه المرأة بعد طلاقها أو وفاة زوجها، لمعرفة براءة رحمها (معجم لغة الفقهاء، كرتاشى-306)

هى لغة بالكسر: الإحصاء… واصطلاحا: تربص يلزم المرأة أو ولى الصغيرة عند زوال النكاح…. الخ

فى رد المحتار: وأولى منه قول ابن كمال: هى اسم لأجل ضرب الانتفاء ما بقى من آثار النكاح أو الفراش (الدر المختار مع رد المحتار، كتاب الطلاق، باب العدة-177-179)

فالعدة فى عرف الشرع اسم لأجل ضرب لانقضاء ما بقى من آثار النكاح (بدائع الصنائع-3\300)

هى انتظار مدة معلومة يلزم المرأة بعد زوال النكاح حقيقة أو شبهة المتأكد بالدخول أو الموت (الفتاوى الهندية، قديم-1\526، جديد-1\579)

وإذا طلق الرجل امرأته بائنا أو رجعيا أو وقعت الفرقة بينهما بغير طلاق وهى حرة ممن تحيض فعدتها ثلاثة أراء لقوله تعلى: والمطلقت يتربصن بأنفسهن ثلاثة قروء (البقرة-228)…. وإن كانت ممن لا تحيض من صغر او كبر فعدتها ثلاثة أشهر لقوله تعالى: واللائي يئسن من المحيض من نسائكم إن ارتبتم فعدتهن ثلاثة اشهر (الطلاق-4)…. وإن كانت حامل فعدتها أن تضع حملها لقوله تعالى: وأولات الأحمال أجلهن أن يضعن حملهن (الطلاق-4) ….. وعدة الحرة فى الوفاة أربعة أشهر وعشرا لقوله تعالى: ويذرون أزواجا يتربصن بأنفسهن أربعة أشهر وعشرا (البقرة-234) (هداية، باب العدة-2\422-423)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

পরিচালক: শুকুন্দী ঝালখালী তা’লীমুস সুন্নাহ দারুল উলুম মাদরাসা, মনোহরদী নরসিংদী।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

টাইগার/স্পিড/রেডবুল ইত্যাদি এনার্জি ড্রিংকস খাওয়া কি হালাল?

প্রশ্ন محمد حنجالا টাইগার, স্পিড, রেডবুল এসব এনার্জি ড্রিংকস পান করা কি হালাল? এসব পণ্যের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস