প্রচ্ছদ / পরিবার ও সামাজিকতা / স্ত্রী স্বামীকে সহবাসে বাঁধা প্রদান করলে গোনাহগার হবে?

স্ত্রী স্বামীকে সহবাসে বাঁধা প্রদান করলে গোনাহগার হবে?

প্রশ্ন

From: তানভীর
বিষয়ঃ কত দিন পর সহবাস করা উত্তম কুরআন ও হাদিসের আলোকে জানালে উপকৃত হবে?

প্রশ্নঃ
কত দিন পর সহবাস করা উত্তম এবং কোনকোন দিন সহবাস না করা উত্তম। আমার স্ত্রীকে আমি রাতে ডাকলে সে বিরক্তি বোধ করে এবং সে বলে আমার এসব কাজ ভালো লাগে না।আমার ক্লান্ত লাগছে। সে অসুস্থ বোধের কারণে যদি আমার কাছে না আসে তাহলে গুনাহগার হবে কি?

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

স্বাভাবিক অবস্থায় চার মাসে অন্তত একবার স্ত্রী সহবাস করা স্বামীর উপর ওয়াজিব। আর যদি স্ত্রী যুবতী হয়, স্ত্রীর চাহিদা বেশি হয়, তাহলে কমপক্ষে চার দিনে একবার করা উচিত।

যদি স্ত্রী অসুস্থ্য হয়, তাহলে স্ত্রীকে কষ্ট না দেয়া উচিত। এক্ষেত্রে অসুস্থ্য হবার কারণে স্ত্রী সহবাস করতে বাধা প্রদান করলে গোনাহগার হবে না। সুস্থ্য ও স্বাভাবিক অবস্থায় স্বামীর তীব্র চাহিদার সময় স্ত্রী সহবাস করতে না দিলে স্ত্রী গোনাহগার হবে।

فى الدر المختار: ويسقط حقها بمرة ويجب ديانة أحيانا ولا يبلغ مدة الإيلاء إلا برضاها

وفى رد المحتار: أن المراد إيلاء الحرة ويؤيد ذلك ان عمر رضى الله تعالى عنه لما سمع فى الليل امرأة تقول : فوالله لاولا الله تخشى عواقبه لزحزح من هذا السرير جوانبه……. عن أبى حنيفة أن لها يوما وليلة من كل أربع ليال وباقيها له لأن له أن يسقط حقها فى الثلاث بتزيج ثلاث حرائر (الدر المختار مع رد المحتار، كتاب النكاح، باب القسم، زكريا-4/380، كرتاشى-3/203، الموسوعة الفقهية الكويتية-22/144، سنن سعيد بن منصور، باب الغازى، يطيل الغيبة عن أهله، دار الكتب العلمية بيروت-2/174، رقم-2463، مصنف عبد الرزاق-7/152، رقم-12594)

عَنْ ‌أَبِي هُرَيْرَةَ رَضِيَ اللهُ عَنْهُ، عَنِ النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ قَالَ: إِذَا دَعَا الرَّجُلُ امْرَأَتَهُ إِلَى فِرَاشِهِ فَأَبَتْ أَنْ تَجِيءَ، لَعَنَتْهَا الْمَلَائِكَةُ ‌حَتَّى ‌تُصْبِحَ (صحيح البخارى، النسخة الهندية-2/482، رقم- 5193)

هذا دليل على تحريم امتناعها من فراشه لغير عذر شرعى (فتح الملهم، كتاب النكاح، باب تحريم امتناعها من فراش زوجها-6/599، تحت رقم الحديث-3524)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

ইকামতের বাক্য দুইবার করে বলা সঠিক নয়?

প্রশ্ন From: মোঃ সোহাগ হোসেন বিষয়ঃ ইকামত প্রশ্নঃ আসসালামু আলাইকুম, আমাদের প্রায় প্রতি মসজিদেই ইকামত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস