প্রচ্ছদ / আধুনিক মাসায়েল / মোবাইলে ইমার্জেন্সী ব্যালেন্স ব্যবহার কি জায়েজ?

মোবাইলে ইমার্জেন্সী ব্যালেন্স ব্যবহার কি জায়েজ?

প্রশ্ন

হযরত খুব জানার ইচ্ছা যে ইমারজেন্সি ব্যলেন্স যা আমরা লোন নিয়ে থাকি, তা পরিশোধের সময় যে ১ টাকা বেশি নিয়ে যায়, তা অনেকেই বলছেন সুদ হবে, আবার অনেকেই ইজারা হয়ে এটা জায়েজ আছে। আবার অনেকেই বলছেন পন্য এবং ছামান আলাদা হওয়াতে এটা জায়েজ আছে…..

হযরত বিষয়টা একটু ক্লিয়ার করলে খুব ভাল হয়,,  প্রয়োজনে মাসআলাটা নেটেও দিয়ে দিবেন আশাকরি। যাতে গুগলে সার্চ দিয়ে দেখা যায়।

 

আমি মালেশিয়া থেকে,,

আমার নাম সাইফুল্লাহ।

বা-রকাল্লাহু ফি হায়াতি.

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

সার্ভিস চার্জ হিসেবে অতিরিক্ত টাকা নেয়াটা জায়েজ হবে। যেহেতু তারা ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে মেসেজ দিয়ে জানায় যে, ব্যালেন্স শেষ হলে ইমার্জেন্সী ব্যালেন্স নিতে পারবে। সুতরাং বুঝা যায় যে, এটি তাদের একটি সার্ভিস। তাই এর চার্জ হিসেবে অতিরিক্ত এক দুই টাকা নেওয়াটা নাজায়েজ হবে না।

তবে যদি কর্তৃপক্ষ পরিস্কার বলে দেয় যে, অতিরিক্ত টাকাটা লোন দেয়া টাকার বিনিময়, তাহলে এটি সুদের আওতাধীন হবে। অন্যথায় হবে না।

الإجارة عقد على المنافع بعوض لأن الإجارة في اللغة بيع المنافع (الهداية شرح البداية، كتاب الإجارة- 3\231، المكتبة الإسلامية)

كلّ قرض جرّ نفعًا حرام، فكره للمرتهن سكنى المرهونة بإذن الراهن (رد المحتار على الدر المختار، كتاب البيوع، باب المرابحة والتويلة، مطلب كل قرض جر نفعا حرام-5\166، طيع سعيد)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

স্বপ্নদোষের কথা মনে না থাকা অবস্থায় কাপড়ে বীর্য দেখা ও সূর্যোদয়ের পর সুন্নাত পড়া প্রসঙ্গে

প্রশ্ন From: নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিষয়ঃ নামায প্রশ্নঃ আসসালামু আলাইকুম মুফতি সাহেব । যদি প্রশ্নটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস