প্রচ্ছদ / প্রশ্নোত্তর / বাবার ভিটে ও অস্থাবর সম্পদে মেয়েরা মীরাছ পায় না?

বাবার ভিটে ও অস্থাবর সম্পদে মেয়েরা মীরাছ পায় না?

প্রশ্ন

মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, আমাদের এলাকায় একটি কথা প্রচলিত আছে যে, মেয়ের বাবার সম্পদের ভিটেবাড়ি থেকে থেকে অংশ পায় না। বরং শুধুমাত্র ফসলী জমিতে অংশ পায়।

আরো প্রচলিত আছে যে, মেয়েরা বাবার স্থাবর সম্পদ থেকে কিছু পেলেও তার রেখে যাওয়া অস্থাবর কোন সম্পদ পায় না।

এ বিষয়ে আসলে ইসলামী শরীয়ত কী বলে? দয়া করে জানাবেন।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

আপনাদের এলাকার উক্ত প্রচলনটি সম্পূর্ণরূপেই ইসলামের শরীয়তের উল্টো। একটি জাহেলী তরীকা।

ছেলে যেমন বাবার ত্যাজ্য সম্পদের স্থাবর ও অস্থাবর এবং ভিটে এবং জমি সকল সম্পদে মিরাছ পায়, তেমনি মেয়েও বাবার ত্যাজ্য সম্পদের স্থাবর ও অস্থাবর, ভিটেবাড়ি এবং জমি সকল সম্পদে অংশিদার হয়।

যদিও ছেলের তুলনায় মেয়ে অর্ধেক পায়, কিন্তু অংশিদার হিসেবে সকল সম্পদে সমান।

সুতরাং ভিটে থেকে পাবে না, বা অস্থাবর সম্পদ পাবে না এমন দাবিটি অসাড় ও শরীয়ত বহির্ভূত।

يُوصِيكُمُ اللَّهُ فِي أَوْلَادِكُمْ ۖ لِلذَّكَرِ مِثْلُ حَظِّ الْأُنثَيَيْنِ ۚ [٤:١١]

আল্লাহ তোমাদেরকে তোমাদের সন্তানদের সম্পর্কে আদেশ করেনঃ একজন পুরুষের অংশ দু’জন নারীর অংশের সমান।  [সূরা নিসা-১১]

لِّلرِّجَالِ نَصِيبٌ مِّمَّا تَرَكَ الْوَالِدَانِ وَالْأَقْرَبُونَ وَلِلنِّسَاءِ نَصِيبٌ مِّمَّا تَرَكَ الْوَالِدَانِ وَالْأَقْرَبُونَ مِمَّا قَلَّ مِنْهُ أَوْ كَثُرَ ۚ نَصِيبًا مَّفْرُوضًا [٤:٧]

পিতা-মাতা ও আত্নীয়-স্বজনদের পরিত্যক্ত সম্পত্তিতে পুরুষদেরও অংশ আছে এবং পিতা-মাতা ও আত্নীয়-স্বজনদের পরিত্যক্ত সম্পত্তিতে নারীদেরও অংশ আছে; অল্প হোক কিংবা বেশী। এ অংশ নির্ধারিত। [সূরা নিসা-৭]

ثم يقسم الباقى بين ورثته الذى ثبت إرثهم بالكتاب والسنة (الدر المختار مع رد المحتار-10/497، البحر الرائق-9/367، السراجى فى الميراث-10)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

 

আরও জানুন

বজ্রপাতে মৃত্যুবরণকারী ব্যক্তি কি আল্লাহর গজবপ্রাপ্ত?

প্রশ্ন From: সাদী  ‍মাহমুদ বিষয়ঃ মৃত্যু প্রশ্নঃ হযরত, কোন মানুষ যদি বজ্রপাতে মারা যায়, তাহলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস