প্রচ্ছদ / কুরবানী/জবেহ/আকীকা / যৌথ পরিবারে এবং পতিত জমির উপর ও কত সম্পদে কুরবানী আবশ্যক? কুরবানীর গোশত কি বিনিময় হিসেবে দেয়া যাবে?

যৌথ পরিবারে এবং পতিত জমির উপর ও কত সম্পদে কুরবানী আবশ্যক? কুরবানীর গোশত কি বিনিময় হিসেবে দেয়া যাবে?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম।

মুহতারাম আশাকরি আল্লাহর অশেষ মেহেরবানিতে ভালই আছেন।

নিম্নোক্ত প্রশ্নগুলোর উত্তর জালালে খুব উপকৃত হতাম।

বর্তমানে কত হাজার টাকা বা সম্পদ থাকলে কুরবানী ওয়াজিব হবে?

যৌথ পরিবারের কয়েকজনের কাছে পর্যাপ্ত টাকা বা সম্পদ থাকলে সকলের উপর ভিন্ন ভিন্ন কুরবানি ওয়াজিব হবে? না পরিবারের কর্তা আদায় করলেই হয়ে যাবে?

আমার চাচার কাছে নগদ টাকা নেই, তবে একটি জমি আছে, যাতে কোন চাষ হয়না,বিক্রি ও করতে পারছেনা,  যার মূল্য প্রায় ১ লক্ষ টাকা। এখন চাচার উপর  কি কুরবানি  আবশ্যক হবে?

কুরবানির মাংস কি বিনিময় হিসেবে দেওয়া যাবে? আমরা মহল্লার ইমাম সাহেবকে যবাই করার টাকাতো  দিচ্ছি সাথে গরু প্রতি ৩ কেজি  করে মাংস ও দিচ্ছি এখন এটা কি বিনিময় হচ্ছে?

 

আপনাদের এই বরকতময় কাজে আমরাও শামিল হতে চাই।  অনুগ্রহপূর্বক আপনাদের  বিকাশ নম্বর দিয়ে সুযোগ করে দিন।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

সাড়ে বায়ান্ন তোলার রূপার সমমূল্য পরিমাণ প্রয়োজন অতিরিক্ত টাকা পয়সা বা সম্পদ থাকলে উক্ত ব্যক্তির উপর কুরবানী ওয়াজিব।

বর্তমান বাজারে রূপা মূল্য হল, তোলা প্রতি ১ হাজার ১০৮ টাকা। সেই হিসেবে সাড়ে বায়ান্ন তোলা রূপা মূল্য হয় ৫৮ হাজার ১৭০ টাকা।

(وَأَمَّا) (شَرَائِطُ الْوُجُوبِ) : مِنْهَا الْيَسَارُ وَهُوَ مَا يَتَعَلَّقُ بِهِ وُجُوبِ صَدَقَةِ الْفِطْرِ دُونَ مَا يَتَعَلَّقُ بِهِ وُجُوبُ الزَّكَاةِ،………. وَالْمُوسِرُ فِي ظَاهِرِ الرِّوَايَةِ مَنْ لَهُ مِائَتَا دِرْهَمٍ أَوْ عِشْرُونَ دِينَارًا أَوْ شَيْءٌ يَبْلُغُ ذَلِكَ سِوَى مَسْكَنِهِ وَمَتَاعِ مَسْكَنِهِ وَمَرْكُوبِهِ وَخَادِمِهِ فِي حَاجَتِهِ الَّتِي لَا يَسْتَغْنِي عَنْهَا، فَأَمَّا مَا عَدَا ذَلِكَ مِنْ سَائِمَةٍ أَوْ رَقِيقٍ أَوْ خَيْلٍ أَوْ مَتَاعٍ لِتِجَارَةِ أَوْ غَيْرِهَا فَإِنَّهُ يُعْتَدُّ بِهِ مِنْ يَسَارِهِ،(الفتاوى الهندية، كتاب الأضحية، فصل شرائط الوجوب-5/292، رد المحتار، كتاب الاضحية-9/452-453، مجمع الانهر-4/167)

 

যৌথ পরিবারের প্রতি জনের আলাদা সম্পদ যদি নেসাব পরিমাণ হয়ে যায়, তাহলে তাদের প্রত্যেকের উপর কুরবানী করা আবশ্যক। যদি না হয়, তাহলে আবশ্যক হবে না।

الأضحية واجبة على كل حر مسلم مقيم موسر فى يوم الأضحى عن نفسه (هداية، كتاب الأضحية-4/443، رد المحتار-9/453)

যেহেতু জমিটি প্রয়োজন অতিরিক্ত এবং তার মূল্য নেসাব পরিমাণ। তাই তার উপর কুরবানী করা আবশ্যক হবে।

وكدار لا تكون للسكنى ولا للتجارة، ولو كان له دار واحدة يسكنها وفضلت عن سكناه يعتبر الفاضل إن كانت قيمته نصابا (مجمع الأنهر، كتاب الزكاة، باب صدقة الفطر-1/334، مصرى-1/226)

কুরবানীর গোশত বিনিময় হিসেবে দেয়া জায়েজ নয়। হাদিয়া হিসেবে দেয়া জায়েজ।

যেহেতু ইমাম সাহেবকে তার জবাইয়ের পারিশ্রমিক হিসেবে টাকা দেয়া হচ্ছে। তাই গোশতটি বিনিময় নয়, বরং হাদিয়া হিসেবে ধর্তব্য হবে।

তবে আপনার নিয়ত যদি বিনিময় হয়, তাহলে তা জায়েজ হবে না। হাদিয়া হলে জায়েজ হবে।

ولا يعطى أجر الجزار منها (رد المحتار، كتاب الأضحية-9/475)

ولا يعطى أجر الجزار والذابح منها (الفتاوى الهندية-5//301، جديد-5/347)

وهب منها ما شاء للغنى والفقير والمسلم والذمى (الفتاوى الهندية-5/300، جديد-5/346، حاشية الطحطاوى على الدر-4/166)

 

আল্লাহ তাআলা আপনার উত্তম নিয়তকে কবুল করুন।

অনুদান পাঠানোর একাউন্ট

একাউন্ট এড্রেস

islami bank bangladesh limited 

Branch Rampura, Dhaka

Account Title– LUTFOR RAHMAN FARAZI AKRAM

Account No– 20502260202166316

সংক্ষেপে–21663

বিকাশ– 01723785925, রকেট– 01723785925-0, নগদ– 01723785925

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

পেশাবের দশ পনের মিনিট পর পেশাবের ফোটা আসার সন্দেহ হলে করণীয় কী?

প্রশ্ন From: আব্দুলাহ আনাস বিষয়ঃ পবিত্রতা প্রশ্নঃ আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন হুজুর? এক ব্যক্তি বড় দীর্ঘ দিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস