প্রচ্ছদ / নামায/সালাত/ইমামত / হজ্ব ছাড়া অন্য সময় দুই নামায একত্রে পড়ার হুকুম কি?

হজ্ব ছাড়া অন্য সময় দুই নামায একত্রে পড়ার হুকুম কি?

প্রশ্ন:

From: সাঈদ আলী হাছান
Subject: কছর নামাজ প্রসংঙ্গে।
Country : বাংলাদেশ
Message Body:

হজ্জ ছাড়া অন্যান্য সফরের সময় সময় না পাওয়ার কারণে যোহর ও আছর একসংঙ্গে এবং মাগরিব ও ইশা একসংঙ্গে পড়া যায় কি না।

জবাব:

بسم الله الرحمن الرحيم

হজ্বের সময় আরাফা ও মুযদালিফা ছাড়া বাকি সময় মুকিম হোক বা মুসাফির হোক কোন অবস্থায়ই এক নামাযকে অন্য নামাযের সময়ে একসাথে করে পড়া জায়েজ নয়।

তবে একটি সূরত করা যায়, সেটি হল-এক নামাযের শেষ সময় আর অন্য নামাযের শুরু সময়ে নামায পড়া। প্রয়োজনের সময় এটি বৈধ পদ্ধতী।

যেমন ৩টা বেজে ৩০ মিনিট হল জোহর নামাযের শেষ সময়। আর সাড়ে তিনটা থেকে আসর শুরু হয়ে যায়। তাহলে সাড়ে তিনটার আগ মুহুর্তে জোহর নামায সমাপ্ত করে সাড়ে তিনটার পরপরই আসর নামায পড়ে ফেলা এটা জায়েজ। একে বলা হয় জময়ে’ সূরী।

فى السنن الترمذى – 188 – حدثنا أبو سلمة يحيى بن خلف البصري حدثنا المعتمر بن سليمان عن أبيه عن حنش عن عكرمة عن ابن عباس : عن النبي صلى الله عليه و سلم قال من جمع الصلاتين من غير عذر فقد أتى بابا من أبواب الكبائر(السنن الترمذى -كتاب الصلاة، باب ما جاء في الجمع بين الصلاتين في الحضر،-1/48 رقم الحديث-188)

فى الفتاوى الهندية- ولا يجمع بين الصلاتين في وقت واحد لا في السفر ولا في الحضر بعذر ما عدا عرفة والمزدلفة كذا في المحيط(الفتاوى الهندية -كتاب الصلاة، الفصل الثاني في بيان فضيلة الأوقات -1/52)

প্রামান্য গ্রন্থাবলী:

১. ফাতওয়ায়ে আলমগীরী-১/৫২

২. ফাতওয়ায়ে তাতারখানিয়া-২/১৩

৩. সুনানে তিরমিযী-১/৪৮, হাদিস নং-১৮৮

৪. আল বাহরুর রায়েক-১/৪৪১

৫. ফাতওয়ায়ে হাক্কানিয়া-৩/৩৫৪


والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

 

আরও জানুন

বিয়ের অনুমতি প্রদানকারীর উপস্থিতিতে উকীল একজন সাক্ষীর সামনে বিয়ে করালে বিবাহ হবে?

প্রশ্ন আসসালামুআলাইকুম। আমার স্বামী আমাকে অজ্ঞাতাবসত তিন তালাক দেন। আমি দ্বীনের পথে আসার পর জানতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস