প্রচ্ছদ / অজু/গোসল/পবিত্রতা/হায়েজ/নেফাস / রক্ত কাপড়ে লাগলে তা ধৌত করার হুকুম কী?

রক্ত কাপড়ে লাগলে তা ধৌত করার হুকুম কী?

প্রশ্ন

Assalamu Alaikum warahmatullah….
Redwan Hussain Rahat
Patharghata,Barguna.
প্রশ্নঃ ক্ষত স্থান থেকে গড়িয়ে পড়া রক্ত কাপড়ে লাগলে কাপড় নাপাক হয়ে যাবে কি? নাপাক হলে সেক্ষেত্রে কাপড় পাক করার জন্য শুধু রক্তমাখা অংশটুকু ধৌত করলেই হবে কি? গড়িয়ে পড়া ব্যতীত ক্ষত স্থান থেকে বের হওয়া রক্ত বা পুজ কাপড়ে লাগলে তার হুকুম কি?

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

একটি মূলনীতি বুঝলে এ মাসআলাটি বুঝা সহজ। সেটি হল, শরীরের ভেতর থেকে যে বস্তু বের হলে অজু ভেঙ্গে যায়, সেটি নাপাক। তা পরিস্কার করা ছাড়া কাপড় পবিত্র হবে না।

সে হিসেবে রক্ত বা পূঁজ যতক্ষণ না ক্ষতস্থান থেকে বেরিয়ে গড়িয়ে পড়া সমতূল্য হয়, ততক্ষণ অজু ভাঙ্গে না। মানে উক্ত রক্ত বা পূঁজ নাপাকীর হুকুমে আসবে না। যখনি তা গড়িয়ে পড়ার পরিমাণ হয়ে যাবে, তখনি সেটি নাপাকীর হুকুমে চলে আসবে।

উপরোক্ত মূলনীতি বুঝলে আপনি নিজেই আপনার প্রশ্নের হুকুমটি বের করে নিতে পারবেন।

আর কোথাও নাপাক লাগলে উক্ত নাপাক দূরিভূত করলেই স্থানটি পবিত্র হয়ে যায়। পুরো স্থান বা কাপড় ধৌত করার প্রয়োজন নেই।

عن الحسن: انه كان لا يرى الوضوء من الدم الا ما كان سائلا (مصنف ابن ابى شيبة1/127، رقم الحديث-1459)

قال العينى فى عمدة القارى: واسناده صحيح وهو مذهب الحنفية (عمدة القارى-3/51)

وذكر ايضا عن الحسن انه قال: ما زال المسلمون يصلون فى جراحتهم، (ذكر الإمام البخارى معلقا) كما قال: وعصر ابن عمر بثرة فخرج منها الدم، لم يتوضأ، وبزق ابن ابى اوفى دما فمضى فى صلاته، (صحيح البخارى، كتاب الوضوء، باب من لم ير الوضوء الا من المخرجين من القبل والدبر)

انظر فتح البارى-1/281، تحفة الاحوذى-1/244)

قال صاحب تنوير الابصار العلامة التمرتاشى: وينقضه خروج نجس منه الى ما يطهر

وقال صاحب الدر المختار العلامة الحصكفى: ثُمَّ الْمُرَادُ بِالْخُرُوجِ مِنْ السَّبِيلَيْنِ مُجَرَّدُ الظُّهُورِ وَفِي غَيْرِهِمَا عَيْنُ السَّيَلَانِ وَلَوْ بِالْقُوَّةِ، لِمَا قَالُوا: لَوْ مَسَحَ الدَّمَ كُلَّمَا خَرَجَ وَلَوْ تَرَكَهُ لَسَالَ نَقَضَ وَإِلَّا لَا، كَمَا لَوْ سَالَ فِي بَاطِنِ عَيْنٍ أَوْ جُرْحٍ أَوْ ذَكَرٍ وَلَمْ يَخْرُجْ، وَكَدَمْعٍ وَعَرَقٍ إلَّا عَرَقُ مُدْمِنِ الْخَمْرِ فَنَاقِضٌ عَلَى مَا سَيَذْكُرُهُ الْمُصَنِّفُ،

وقال ابن عابدين الشامى- (قَوْلُهُ: كَمَا لَوْ سَالَ) تَشْبِيهٌ فِي عَدَمِ النَّقْضِ، لِأَنَّهُ فِي هَذِهِ الْمَوَاضِعِ لَا يَلْحَقُهُ حُكْمُ التَّطْهِيرِ كَمَا قَدَّمْنَاهُ الخ (قَوْلُهُ: وَلَمْ يَخْرُجْ) أَيْ لَمْ يَسِلْ.

أَقُولُ: وَفِي السِّرَاجِ عَنْ الْيَنَابِيعِ: الدَّمُ السَّائِلُ عَلَى الْجِرَاحَةِ إذَا لَمْ يَتَجَاوَزْ. قَالَ بَعْضُهُمْ: هُوَ طَاهِرٌ حَتَّى لَوْ صَلَّى رَجُلٌ بِجَنْبِهِ وَأَصَابَهُ مِنْهُ أَكْثَرُ مِنْ قَدْرِ الدِّرْهَمِ جَازَتْ صَلَاتُهُ وَبِهَذَا أَخَذَ الْكَرْخِيُّ وَهُوَ الْأَظْهَرُ. (رد المحتار، كتال الطهارة-1/260-263، زكريا)

فى رد المحتار: ففى النجاسة المرئية زوال عين النجس، وفى غير  المرئية والحدث غسل فقط، وفى الحدث الأصغر غسل ومسح- (رد المحتار، كتاب الطهارة، 1/198

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

আরও জানুন

পাকিস্তানী সুন্নী নামধারী পীর তাহের শাহ ও তার দলের আকীদা বিশ্বাস কি সঠিক?

প্রশ্ন আসসালামুআলাইকুম, হুজুর আমি আপনার বয়ান, ওলীপুরি,চরমোনাই  এবং দেওবন্দি হুজুরদের বয়ান শুনি। সাধারন শিক্ষিত হলেও …

No comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *