প্রচ্ছদ / নামায/সালাত/ইমামত / মসজিদের মাইকে নামাযের তাকবীরের আওয়াজ শুনে বাসায় এক্তেদা করা যাবে কী?

মসজিদের মাইকে নামাযের তাকবীরের আওয়াজ শুনে বাসায় এক্তেদা করা যাবে কী?

প্রশ্ন

আসালামুয়ালিকুম।

আমার প্রশ্ন হলো মসজিদের রেডিও শুনে ঘরে নামাজ পরা জায়েজ কি অথবা ঘরের মহিলাদের জন্য জায়েজ কি?
Fakrul Islam chowdhury

উত্তর

وعليكم السلام ورحنة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

ইমামের পিছনে ইক্তিদা সহীহ হবার জন্য শর্ত হল, ইমাম ও মুসল্লির স্থান এক হওয়া।

এক হওয়ার অবস্থা দু’টি। যথা হাকীকী অর্থেই এক হবে। যেমন ইমামও মসজিদে বা ঘরে মুসল্লি ও উক্ত মসজিদে বা ঘরে।

দ্বিতীয় হল হুকুমের দিক থেকে এক হওয়া। ইমাম ও মুসল্লির মাঝে উল্লেখযোগ্য ফাঁক না থাকা। উল্লেখযোগ্য ফাঁক বলতে উদ্দেশ্য হল, ছোট মসজিদ, বাড়ি হলে মাঝখানে চলাচলের আম রাস্তা থাকা, আর বড় মসজিদ বা খালি স্থান হলে দুই কাতার পরিমাণ ফাঁক হলে ইক্তিদা সহীহ হবে না।

উপরোক্ত মূলনীতিটি বুঝে আসলে আশা করি আপনি নিজেই হুকুম বের করে নিতে পারবেন। যেহেতু মসজিদের জামাতে ইক্তিদা করার বিষয় আসছে, তাই যদি বাসা বা বাড়ি থেকে মসজিদের কাতারের মাঝে চলাচলের রাস্তার ফাঁক থাকে, বা দুই কাতার পরিমাণ দূরত্ব থাকে, তাহলে এ ইক্তিদা সহীহ হবে না। যদি এমন না হয়, তাহলে এক্তেদা সহীহ হবে।

ويمنع الاقتداء تجرى فيه عجلة او تجرى فيه السفن، أو خلاء فى الصحراء يسع صفين فأكثر، إلا إذا اتصلت الصفوف فيصح مطلقا، (تنوير الأبصار مع الدر المختار، كتاب الصلاة، باب الإمامة-1/584-586)

وكذا فى الفتاو الهندية، كتاب الصلاة، الباب الخامس فى الإمامة، الفصل الرابع فى بيان ما يمنع صحة الاقتداء ومالا يمنع-1/87)

وكذا فى البحر الرائق، كتاب الصلاة، باب الامامة-1/634-635)

ولم يختلف المكان) حقيقة كمسجد وبيت فى الاصح قنية، ولا حكما عند اتصال الصفوف، (قوله كمسجد وبيت) فان المسجد مكان واحد، ولذا لم يعتبر فيه الفصل بالخلاء الا اذا كان المسجد كبيرا جدا، وكذا البيت حكمه حكم السمجد فى ذلك لا حكم الصحراء، (الدر المحختار مع الشامى-1/587)

(قوله كأن قام فى الطريق ثلاثة) وصورة اتصال الصفوف فى النهر ان يقفوا عىل جسر موضوع فوقه او على سفن مربوطة فيه…. ثم ظاهر اطلاقهم انه اذا كان على النهر جسر فلا بد من اتصال الصفوف ولو كان النهر فى المسجد، (رد المحتار، كتاب الصلاة، باب الامامة-1/586)

ويمنع من الاقتداء.. فى الصحراء او فى مسجد كبير جدا كمسجد القدس يسع صفين فاكثر الا اتصلت الصفوف فيصح مطلقا، (الدر المختار مع رد المحتار-1/585)

والمانع من الاقتداء فى الفلوات قدر ما يسع فيه صفين، (وفيه بعد اربعة اسطر) وان كان على النهر جسر وعليه صفوف متصلة لا يمنع صحة الاقتداء لمن كان خلف النهر، وللثلاثة حكم الصف بالاجماع ليس للواحد حكم الصف بالاجماع، (الفتاوى الهندية، كتاب الصلاة، الباب الخامس فى الامامة-1/87)

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

আরও জানুন

মুসলমানের জন্য কাফেরের সাথে বিবাহ করার হুকুম কী?

প্রশ্ন From: সারওয়ার বিষয়ঃ অমুসলিম বা কাফের এর সাথে সম্পর্ক করা যাবে কি না?? প্রশ্নঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস