হোম / অপরাধ ও গোনাহ / কাউকে কষ্ট দেবার পর ক্ষমা চাইলে যদি সে মাফ না করে তাহলে করণীয় কি?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

কাউকে কষ্ট দেবার পর ক্ষমা চাইলে যদি সে মাফ না করে তাহলে করণীয় কি?

প্রশ্ন

Assalamualaikum
2 ti prosner uttor prodan korle bhalo hoto.
(1)
ami ekjon k kotha ba kajer dara kosto diyesi jar jonno ami ontor theke onutopto.
er jonno Allah talar kache antorik bhabe tawba koresi ebong jake kosto
diyesi tar kacheo khoma chesi,kintu se bolese Allah maf korleo se
amake maf korbe na.
e obosthai amar ki koronio janale badhito hobo?
: (2)
Ami age sobi tulesi onek.
kintu ekhon sobi tula Islam e nised jene r sobi tulbo na niyat koresi
ebong tawba koresi.
kintu problem hocche ami age je sobi gulo tulesi ta bibhinno manusher
kache ba mobile e ache.
ekhon amar ki koronio…
: Jazakallahu Khair Wa Ahsanal Jaza.

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

আপনার দায়িত্ব ছিল ক্ষমা চাওয়া। যাকে কষ্ট দিয়েছেন তার কাছে ক্ষমা চাওয়া এবং আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাওয়া। সেই সাথে তওবা করা।

এর দ্বারাই ইনশাআল্লাহ আপনার দায়িত্ব শেষ হয়ে গেছে। বাকি সর্বদা চেষ্টা করা উক্ত ব্যক্তিকে খুশি করতে চেষ্টা করা। তারপরও যদি সে ক্ষমা না করে, তাহলে আশা করা যায় আল্লাহ তাআলা আপনাকে ক্ষমা করে দিবেন। কারণ আপনার সাধ্যে যা ছিল তা আপনি করেছেন। সাধ্যের বাইরে কিছু করার জন্য শরীয়ত ব্যক্তিকে বাধ্য করে না।

অপ্রয়োজনীয় ছবি তোলা নাজায়েজ। সেই হিসেবে আপনি যেহেতু এখন তওবা করেছেন। ইনশাআল্লাহ আল্লাহ তাআলা আপনার তওবাকে কবুল করবেন। যাদের কাছে ছবি আছে তাদের সম্ভব হলে বলে দিন যেন এসব ছবি নষ্ট করে ফেলে। যদি সম্ভব না হয়, ইনশাআল্লাহ এতে আপনি পাকরাও হবেন না। কারণ সাধ্যের বাইরে কোন কিছু করতে বান্দাকে আল্লাহ তাআলা বাধ্য করেননি।

وَمَن يَعْمَلْ سُوءًا أَوْ يَظْلِمْ نَفْسَهُ ثُمَّ يَسْتَغْفِرِ اللَّهَ يَجِدِ اللَّهَ غَفُورًا رَّحِيمًا [٤:١١٠

যে গোনাহ, করে কিংবা নিজের অনিষ্ট করে, অতঃপর আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে, সে আল্লাহকে ক্ষমাশীল, করুণাময় পায়। {সূরা নিসা-১১০}

قُلْ يَا عِبَادِيَ الَّذِينَ أَسْرَفُوا عَلَىٰ أَنفُسِهِمْ لَا تَقْنَطُوا مِن رَّحْمَةِ اللَّهِ ۚ إِنَّ اللَّهَ يَغْفِرُ الذُّنُوبَ جَمِيعًا ۚ إِنَّهُ هُوَ الْغَفُورُ الرَّحِيمُ [٣٩:٥٣]

বলুন, হে আমার বান্দাগণ যারা নিজেদের উপর যুলুম করেছ তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না। নিশ্চয় আল্লাহ সমস্ত গোনাহ মাফ করেন। তিনি ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু। {সূরা যুমার-৫৩}

لَا يُكَلِّفُ اللَّهُ نَفْسًا إِلَّا وُسْعَهَا  [٢:٢٨٦

আল্লাহ কাউকে তার সাধ্যাতীত কোন কাজের ভার দেন না,{সূরা বাকারা-২৮৬}


عَنْ أَبِي عُبَيْدَةَ بْنِ عَبْدِ اللَّهِ، عَنْ أَبِيهِ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «التَّائِبُ مِنَ الذَّنْبِ، كَمَنْ لَا ذَنْبَ لَهُ

হযরত আব্দুল্লাহ বিন মাসঈদ রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসল সাঃ ইরশাদ করেছেন, গুনাহ থেকে তওবাকারী সেই ব্যক্তির মত যার কোন গোনাহ নেই। {সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদীস নং-৪২৫০}

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

হক ও বাতিল : বুঝার মানদণ্ড কী?

মাওলানা আব্দুল মালেক দামাত বারাকাতুহু [গত ৭ শাবান ১৪৪০ হি. মোতাবেক ১৪ এপ্রিল ২০১৯ ঈ. …

Leave a Reply