প্রচ্ছদ / কাফন-দাফন-জানাযা / কবর যিয়ারত করার হুকুম কি?

কবর যিয়ারত করার হুকুম কি?

প্রশ্ন

নামঃ সাবেত বিন মুক্তার

দেশঃ বাংলাদেশ

বিষয়ঃ মাজার জিয়ারত

প্রশ্নঃ আসসালামু আলাইকুম। যেসব মাজারে শিরক বিদআত হয় ওইসব মাজারে কোন বুজুর্গ ব্যক্তি যদি শায়িত থাকেন তবে শুধুমাত্র কবর জিয়ারতে যাওয়া কি জায়েজ হবে? যেখানে কবরের উপরে গম্বুজ তথা মাজার বানাতেই হাদিসে নিষেধ করা হয়েছে সেখানে জিয়ারতের জন্য যাওয়াকে শরিয়াত কিভাবে দেখে? জানাবেন। জাযাকাল্লাহ খায়রান।

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

মাজার মানে হল যিয়ারতের স্থান। আপনি যেমনটি ভাবছেন যে, গম্বুজ বানানোকে মাজার বলে আসলে এ ধারণাটি ভুল। মাজার মানে যিয়ারতের স্থান।

কবরে গম্বুজ বানানো হারাম এতে কোন সন্দেহ নেই। যারা এহেন কর্ম করে তারা গোনাহগার এতে কোন সন্দেহ নেই। বাকি এজন্য কবর যিয়ারত করা হারাম হয়ে যায় না।

ইসলামের শুরু যুগে শিরকের আশংকায় রাসূল সাঃ কবর যিয়ারত নিষিদ্ধ করে দিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে তা বৈধ হয়ে যায়। এটাই রাসূল সাঃ এর সর্বশেষ নির্দেশ।

সুতরাং এখন কবর যিয়ারত করতে যেতে কোন সমস্যা নেই।

عَنِ ابْنِ بُرَيْدَةَ، عَنْ أَبِيهِ، قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «نَهَيْتُكُمْ عَنْ زِيَارَةِ الْقُبُورِ فَزُورُوهَا،

হযরত ইবনে বুরাইদা তার পিতা থেকে বর্ণনা করেন, রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেন, আমি তোমাদের কবর যিয়ারত করতে নিষেধ করেছিলাম, এখন যিয়ারত কর। [কোন সমস্যা নেই]। {সহীহ মুসলিম, হাদীস নং-৯৭৭}

কিন্তু কবর যিয়ারত করতে গিয়ে কবরের  চারপামে তওয়াফ করা, কবরবাসীকে নাজাতের ওসীলা মনে করা, কবরবাসীর কাছে নিজের প্রয়োজন পূরণের জন্য আবেদন করা সবই কুফরী ও শিরকী কাজ। এসব থেকে বিরত থাকা আবশ্যক।

والله اعلم بالصواب

উত্তর লিখনে

লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

ইমেইল- ahlehaqmedia2014@gmail.com

lutforfarazi@yahoo.com

আরও জানুন

টাইগার/স্পিড/রেডবুল ইত্যাদি এনার্জি ড্রিংকস খাওয়া কি হালাল?

প্রশ্ন محمد حنجالا টাইগার, স্পিড, রেডবুল এসব এনার্জি ড্রিংকস পান করা কি হালাল? এসব পণ্যের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আহলে হক্ব বাংলা মিডিয়া সার্ভিস