প্রচ্ছদ / কুরবানী/জবেহ/আকীকা / পরিবারে বড় ভাই কর্তা থাকা অবস্থায় পরিবারের বাকি সদস্যদের উপরও কী কুরবানী করা ওয়াজিব?

পরিবারে বড় ভাই কর্তা থাকা অবস্থায় পরিবারের বাকি সদস্যদের উপরও কী কুরবানী করা ওয়াজিব?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম

প্রশ্নটা একটু বিস্তারিত।

আমার বাবা ২০১৩ তে ইন্তেকাল করেছেন।

ইন্তেকালের সময় তিনি ৬ ছেলে ৬ মেয়ে এবং স্ত্রীকে রেখে গেছেন।

আমরা ৬ ভাই এক সাথেই থাকি সাথে আমাদের অবিবাহিত ১ বোন ও মা থাকে।

বাবার একটা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছিল সেই প্রতিষ্ঠানের আয় দিয়েই আমরা চলি ৬ ভাইয়ের মধ্যে ৪ ভাই বিবাহিত তাদের ও সন্তান আছে। প্রতিষ্ঠান বাবার ইন্তিকালের পরে যেহেতু কারো নামে কাগজ পত্র করতে হবে। তাই বড় ভাইয়ের নামেই সব কাগজ-পত্র করা।

এখন প্রশ্ন হল যাকাত যখন দেয়া হয় তখন সমস্ত সম্পদ হিসাব করেই দেয়া হয় আর সেই হিসাবে সবার পক্ষ থেকে যাকাত আদায় হয়ে যায়। কিন্তু কোরবানীর ক্ষেত্রে আমরা ১ টা গরু কোরবানি করি এবং ৬ নাম দেই এক নাম নবীজীর নামে দেই এখন এই ৬টা নাম আমাদের ৬ ভাইয়ের দিতে চাইলে আম্মুর হয় না। অবিবাহিত বালেগ বোনের হয় না আবার ভাবিদের নাম হয় না আবার মেয়েদের নাম দিতে গেলে ছেলেদের নাম হয় না এখন আমাদের কি একাধিক গরু কোরবানি করা উচিত? নাকি প্রতিষ্ঠান যেহেতু বড় ভাইয়ের নামে তাই বড় ভাইয়ের কোরবানি ওয়াজীব আর বাকিদের নফল?? একটু জানাবেন।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

যেহেতু আপনার যৌথ পরিবার। মূল মালিক এখন বড় ভাই। যদি বড় ভাই ছাড়া অন্য কারো ব্যক্তিগত মালিকানায় নিসাব পরিমাণ টাকা পয়সা না থাকে, তাহলে শুধু আপনার বড় ভাইয়ের উপরই কুরবানী ওয়াজিব। অন্য কারো উপর নয়।

যদি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের ব্যক্তিগত মালিকানায় নিসাব পরিমাণ মাল থাকে, তাহলে তাদের জন্য কুরবানীতে আলাদা অংশ রাখতে হবে।

এ হিসেবে আপনার পরিবারে একটি পশুতে কুরবানী হবে? না একাধিক দিতে হবে তা নির্ণয় করে নিন।

فتجب التضحية على حر مسلم مقيم موسر (تنوير الأبصار مع الدر-9/452-453)

الأب وابنه يكتسبان فى صنعة واحدة ولم يكن لهما شيئ فالكسب كله للأب إن كان الإبن فى عياله لكونه معينا له (رد المحتار، كتاب الشركة، مطلب اعتمعا فى دار واحدة واكتسبا-6/502، هندية-2/329)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক-তালীমুল ইসলাম ইনষ্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা– জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীনবাজার ঢাকা।

উস্তাজুল ইফতা-জামিয়া ফারুকিয়া দক্ষিণ বনশ্রী ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

আরও জানুন

মরণোত্তর চক্ষুদান করার হুকুম কী?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, মরণোত্তর চক্ষুদান করার হুকুম কী? দয়া করে জানালে …