হোম / জায়েজ নাজায়েজ / সাপ্তাহিক কুরআন খতম করা এবং বিনিময়ে টাকা নেবার হুকুম কী?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

সাপ্তাহিক কুরআন খতম করা এবং বিনিময়ে টাকা নেবার হুকুম কী?

প্রশ্ন

আসসালামুআলাইকুম,

মোহাম্মদ রেজাউল,টাংগাইল।

আমাদের মসজিদে রেজিস্টারে নাম লেখে ২০/২৫ জন সাপ্তাহিক কোরআন খতম দেয়। এটা করা কি জায়েজ আছে। আর এই খতম করে যদি টাকা নেয় তাহলে কি জায়েজ হবে। আর টাকা না নিলে এর হুকুম কি হবে। বিস্তারিত জানালে উপকৃত হব।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

কুরআনে কারীমের খতম দেয়া অনেক সওয়াবের কাজ। কিন্তু রেজিষ্টারে লিখে খতম দেয়া এটা কেন আবশ্যক করা হল?

এটাকে জরুরী মনে করলে, বা সুন্নাহ বা শরীয়ত সম্মত মনে করলে বিদআত হবে। হ্যাঁ, যদি কুরআন খতমে সহজতার জন্য এমনটি করা হয়ে থাকে, তাহলে কোন সমস্যা নেই।

এভাবে রেজিষ্টার করার সাথে কুরআন খতমের কোন সম্পর্ক নেই।

আর কুরআন কারীম তিলাওয়াতের মাধ্যমে খতম করে টাকা পয়সা নেয়া জায়েজ নয়। টাকা নিয়ে তিলাওয়াত করলে এর দ্বারা সওয়াব হয় না। তাই এভাবে টাকা দিয়ে কুরআন খতম করা উচিত হবে না।

এমনিতে খতম করলে, ইখলাসের সাথে পড়লে ইনশাআল্লাহ সওয়াব হবে।

فالحاصل أن ما شاع في زماننا من قراءة الأجزاء بالأجرة لا يجوز ؛ لأن فيه الأمر بالقراءة وإعطاء الثواب للآمر والقراءة لأجل المال ؛ فإذا لم يكن للقارئ ثواب لعدم النية الصحيحة فأين يصل الثواب إلى المستأجر ولولا الأجرة ما قرأ أحد لأحد في هذا الزمان بل جعلوا القرآن العظيم مكسبا ووسيلة إلى جمع الدنيا – إنا لله وإنا إليه راجعون – ا هـ .

وقد رده الشيخ خير الدين الرملي في حاشية البحر في كتاب الوقف حيث قال : أقول المفتى به جواز الأخذ استحسانا على تعليم القرآن لا على القراءة المجردة كما صرح به في التتارخانية حيث قال : لا معنى لهذه الوصية ولصلة القارئ بقراءته ؛ لأن هذا بمنزلة الأجرة والإجارة في ذلك باطلة وهي بدعة ولم يفعلها أحد من الخلفاء ،

وممن صرح بذلك أيضا الإمام البركوي قدس سره في آخر الطريقة المحمدية فقال : الفصل الثالث في أمور مبتدعة باطلة أكب الناس عليها على ظن أنها قرب مقصودة إلى أن قال : ومنها الوصية من الميت باتخاذ الطعام والضيافة يوم موته أو بعده وبإعطاء دراهم لمن يتلو القرآن لروحه أو يسبح أو يهلل له وكلها بدع منكرات باطلة ، والمأخوذ منها حرام للآخذ ، وهو عاص بالتلاوة والذكر لأجل الدنيا (الدر المختار مع رد المحتار : 9/78 كتاب الاجارة)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী – মা’হাদুত তালীম ওয়াল  বুহুসিল ইসলামিয়া ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

এক পশুতে তিনজনের আকীকা ও কুরবানী একত্রে দেয়া যাবে কি?

প্রশ্ন নাম- Md: A.B.S আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ আশা করি আপনি অনেক ভাল এবং সুস্থ …