হোম / অপরাধ ও গোনাহ / বিড়াল কুরআন ধরে আছে এমন ছবি আপলোড করার হুকুম কী?
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

বিড়াল কুরআন ধরে আছে এমন ছবি আপলোড করার হুকুম কী?

প্রশ্ন

আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ। আমি উসামা আবেদিন ঢাকা থেকে।

হুজুর, আমার একটি প্রশ্ন ছিলো। সেটা হল, আমার একটি কাজিন ফেইসবুকেএ একটা ফটো আপলোড দিয়েছে। ফটো হল, একখানা কুরআন শরীফ আর একটি বিড়াল সামনের দুই হাত দিয়ে কুরআন ধরে আছে। আমি বললাম, এটা দেয়া ঠিক হয় নাই। তখন সে বলল, বিড়াল ইসলামে নাপাক না। তাদের ঝুটা পানি পাক। বিড়াল নিয়ে মসজিদে যাওয়ার অনুমতি আছে ইত্যাদি। তাই বিড়াল নিয়ে মসজিদে যাওয়ার অনুমতি আছে ইত্যাদি। তাই বিড়াল নিয়ে কুরআন পড়াও যাবে। বিড়াল কুরআন স্পর্শ করলে সমস্যা নেই।

এই ব্যাপারে যদি একটু বুঝিয়ে দিতেন তাহলে কৃতজ্ঞ থাকতাম।

ওয়াসসালাম। ওসামা।

উত্তর

وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

بسم الله الرحمن الرحيم

বিড়ালের ঝুটা পাক নয় বরং মাকরূহ। আর এমনিতে বিড়াল পাক। তাই বিড়াল স্পর্শ করলে কাপড় নাপাক হয় না। বিড়াল মসজিদে প্রবেশ করলেও কোন সমস্যা নেই।

এসবই ঠিক আছে। কিন্তু কুরআন বিড়ালের জন্য নাজিল হয়নি। কুরআন কোন চতুষ্পদ জন্তুর জন্য অবতীর্ণ হয়নি। কুরআন নাজিল করা হয়েছে জিন ও মানুষের জন্য। তাই জন্তুর হাতে কুরআন তুলে দেয়া এটি কুরআনের অবমাননা ছাড়া আর কিছু নয়।

তাই বিড়ালের কুরআন ধরে রাখার ছবি প্রচার করা এটা কুরআনকে এক ধরণের হেয় ও অপমান করা। শ্রেষ্ঠ কিতাবকে, আল্লাহর কালামকে একটি চতষ্পদ জন্তু ধরে রাখছে এটিকে প্রচার করার মাঝে কোন দ্বীনী বা দুনিয়াবী ফায়দা নেই। শুধুই কুরআনের অপমান ছাড়া।

তাই এ অনর্থক কাজ থেকে বিরত থাকা প্রতিটি মুমিনের উপর আবশ্যক।

عن ابي هريرة، عن النبي صلى الله عليه وسلم انه قال ‏”‏ يغسل الاناء اذا ولغ فيه الكلب سبع مرات اولاهن او اخراهن بالتراب واذا ولغت فيه الهرة غسل مرة ‏”

আবু হুরাইরা (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে, নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, কুকুর কোন পাত্রে মুখ দিলে তা সাতবার ধুতে হবে,প্রথম অথবা শেষবার মাটি দ্বারা ঘষতে হবে। বিড়াল যদি তাতে মুখ দেয় তবে একবার ধোয়াই যথেষ্ট। ‏[সুনানে তিরমিজী, হাদীস নং-৯১]

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ، عَنِ النَّبِيِّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ قَالَ: «طَهُورُ الْإِنَاءِ إِذَا وَلَغَ فِيهِ الْهِرُّ أَنْ يُغْسَلَ مَرَّةً أَوْ مَرَّتَيْنِ»

আবু হুরাইরা (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে,নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,বিড়াল মুখ দিলে পাত্র পবিত্র হবার পদ্ধতি হল, একবার বা দুইবা তা ধৌত করে ফেলা। ‏[তাহাবী শরীফ, হাদীস নং-৫১]

ذَٰلِكَ وَمَن يُعَظِّمْ شَعَائِرَ اللَّهِ فَإِنَّهَا مِن تَقْوَى الْقُلُوبِ [٢٢:٣٢]

এটা শ্রবণযোগ্য কেউ আল্লাহর নামযুক্ত বস্তুসমুহের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করলে তা তো তার হৃদয়ের আল্লাহভীতি প্রসূত। [সূরা হজ্জ্ব-৩২]

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক ও প্রধান মুফতী – মা’হাদুত তালীম ওয়াল  বুহুসিল ইসলামিয়া ঢাকা।

ইমেইল– ahlehaqmedia2014@gmail.com

Print Friendly, PDF & Email
বিস্তারিত জানতে ছবির উপর টাচ করুন

এটাও পড়ে দেখতে পারেন!

হেযবুত তওহীদ সংগঠনটি রাষ্ট্রের নিরাপত্তার জন্য কেন হুমকি?

ডাউনলোড লিংক