হোম / ফযীলত ও মানাকেব

ফযীলত ও মানাকেব

মিসওয়াক করে নামায পড়লে সত্তর গুণ বেশি সওয়াব হয়?

প্রশ্ন From: মুহাম্মদ মিজানুর রহমান বিষয়ঃ মেসওয়াক এর ফযিলত প্রশ্নঃ আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ। মুহতারাম মুফতি সাহেব এর নিকট আমার প্রশ্ন হল, মেসওয়াক করে নামাজ পড়লে ৭০ গুন সোয়াব হয় এই কথার কোন সহি দলিল আছে কি জানতে চাই। উত্তর وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته بسم الله الرحمن الرحيم হ্যাঁ, এটি সহীহ …

আরো পড়ুন

তাকওয়া ও খোদাভীতি

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ তাকওয়া ও খোদাভীতি ইসলামের মৌলিক শিক্ষার মধ্যে গণ্য। এর দ্বারা উদ্দেশ্য হলো, আল্লাহ তাআলার আযাব ও আখেরাতের জবাবদিহিতাকে স্মরণ করে সকল প্রকার মন্দকর্ম থেকে বিরত থাকা এবং আল্লাহ পাকের সমস্ত বিধানাবলি মেনে চলা। অর্থাৎ যে বিষয়গুলি আল্লাহ পাক আমাদের উপর ফরজ করেছেন এবং আমাদের প্রত্যেকের জন্য …

আরো পড়ুন

কুরআনের হিফজ ভুলে গেলে গোনাহ হয়?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল, হাদীসের মধ্যে এসেছে যে,যে ব্যক্তি কুরআন পড়ার পর ভুলে যায়, এর চেয়ে আর কোন বড় গোনাহ নেই। এখন আমার প্রশ্ন হল, আমরা ছোটকালে অনেক সূরা মুখস্ত করেছি। এখন ভুলে গেছি। কিন্তু কুরআন তিলাওয়াত করতে পারি। এবং করিও। এখন আমরাও হাদীসের ভাষায় উক্ত গোনাহের …

আরো পড়ুন

নামাযের গুরুত্ব ও প্রভাব

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ আল্লাহ ও তাঁর রাসুলের উপর ঈমান আনা এবং তাওহীদ ও রেসালাতের সাক্ষ্য দান করার পর ইসলামে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো নামায। এটা আল্লাহ পাকের জন্য খাস একটি ইবাদত। কোরআন শরীফের পঞ্চাশটিরও বেশি আয়াতে এবং নবীজীর শতাধিক হাদীসে দৈনিক পাঁচওয়াক্ত নামায যথাযথভাবে আদায়ের উপর জোর তাগিদ দেয়া …

আরো পড়ুন

দ্বীন শেখার গুরুত্ব ও ফজীলত

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ হে আমার দ্বীনি ভাই! এটা ঠিক যে, সাইয়েদ হওয়ার জন্য সাইয়েদ বংশে জন্ম নেওয়া (এবং বাঙ্গালী হওয়ার জন্য বাংলা ভাষায় কথা বলাই) যথেষ্ট। কিন্তু কেউ যদি দাবী করে, আমি অমুক ভাষায় কথা বলি, অমুক বংশে জন্ম আমার, সুতরাং আমি মুসলমান, মুসলমান হওয়ার জন্য আমাকে এর বেশি …

আরো পড়ুন

যার উপর কুরবানী আবশ্যক নয় তিনি জিলহজ্জের প্রথম দশদিনের রোযা রাখতে পারবেন না?

প্রশ্ন আমার ওপর কোরবানি ফরজ না।।। আমি কি এই মাসে রোজা রাখতে পারব??? অতি দ্রুত জানালে ভালো হয়।।। যেহেতু আগামীকাল কাল থেকেই মাস শুরু।। উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم হ্যাঁ, রোযা রাখতে পারবেন। এ দশদিন বেশি বেশি ইবাদত করা বছরের অন্যান্য সময়ের চেয়ে বেশি ফযীলতপূর্ণ। বেশি বেশি রোযা রাখা, রাতে …

আরো পড়ুন

কুরবানী ঈদের দিন রোযা রেখে কুরবানীর গোশত দিয়ে ইফতার করার হুকুম কী?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে প্রশ্ন হল,আমাদের এলাকায় প্রসিদ্ধ যে,কুরবানীর ঈদের দিন রোযা রাখা উত্তম। আর সময়সীমা হল,কুরবানী দিয়ে তার গোস্ত পাকানো পর্যন্ত। গোস্ত দিয়ে খানা খাওয়ার আগ পর্যন্ত উপোষ থাকার নাম কুরবানী ঈদের দিনের রোযা বলে প্রচলিত রয়েছে। এ বিষয়ে সঠিক কথা কী হবে? জানালে কৃতজ্ঞ হবো। উত্তর بسم الله …

আরো পড়ুন

কুরবানীদাতার পশম নাকি কুরবানীর পশুর পশমের সমমানের সওয়াব অর্জিত হয়?

প্রশ্ন মুফতী সাহেবের কাছে আমার প্রশ্ন হল,উলামাগণের মুখে শুনেছি যে, কুরবানী করলে শরীরের প্রতিটি লোমের বিনিময়ে একটি করে নেকী পাওয়া যায়। আমার প্রশ্ন হল,এই নেকী কী কুরবানীদাতার শরীরের পশম হিসেবে নাকি কুরবানীর পশুর পশম হিসেবে নেকী হয়? উত্তর بسم الله الرحمن الرحيم কুরবানীর পশুর প্রতিটি পশম অনুপাতে একটি করে নেকী …

আরো পড়ুন

সকল ফকীহরই নির্ভরতা ছিল সহীহ হাদীসের উপর

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু পড়ে নিন- ইমাম আবু হানীফা ছিলেন যুগের সবচেয়ে বড় মুজতাহিদ ও ফকীহ প্রসিদ্ধ চার ইমামসহ সকল মুজতাহিদ ফকীহই নির্ভর করেছেন সহীহ হাদীসের উপর। কারণ তাদের সকলের ঐকান্তিক চেষ্টা ছিল রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের বাণী ও কর্ম সঠিকভাবে ধরতে পারা। ফলে এ ক্ষেত্রে সহীহ হাদীসের …

আরো পড়ুন

ইমাম আবু হানীফা ছিলেন যুগের সবচেয়ে বড় মুজতাহিদ ও ফকীহ

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু পড়ে নিন- হাদীসের হাফেজগণও ফকীহগণের মুখাপেক্ষী ছিলেন : এই এগার নম্বর ঘটনা ও নয় নম্বরে উল্লেখিত ইবনে মাঈনের বক্তব্য থেকেও বোঝা যায়, ইমাম আবু হানীফা ছিলেন তাঁর যুগের সবচেয়ে বড় মুজতাহিদ ও ফকীহ। ইমাম শাফেয়ীর একথা তো খুবই প্রসিদ্ধ যে, الناس في الفقه عيال على …

আরো পড়ুন

হাদীসের হাফেজগণও ফকীহগণের মুখাপেক্ষী ছিলেন :

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু পড়ে নিন- মুহাদ্দিসগণও ফকীহগণের কদর বুঝতেন শুধু হাদীস জানা ফকীহগণের প্রয়োজন ও মুখাপেক্ষিতা মেটাতে ও দূর করতে পারে না। এই কারণে বড় বড় হাফেজে হাদীসগণ শুধু ফকীহগণের কদরই করেন নি, তাদের কাছ থেকে ফিকহের ইলম অর্জন করেছেন, কিংবা তাদের রচিত বইপুস্তক গভীর ভাবে অধ্যয়ন করেছেন। কিংবা …

আরো পড়ুন

মুহাদ্দিসগণও ফকীহগণের কদর বুঝতেন

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু পড়ে নিন- ফিক্বহের গুরুত্ব এবং ফক্বীহদের বৈশিষ্ট্যাবলী আ’মাশ রহ.এর উপরোক্ত উক্তিটি সোনার হরফে লিখে রাখার মতো। এতে ফকীহগণের মর্যাদার প্রকৃত চিত্র ফুঠে উঠেছে। তার মতো অনেক সেরা সেরা মুহাদ্দিস ফকীহগণের যথাযোগ্য কদর করতেন। নিম্নে তাদের কয়েকজনের বক্তব্য তুলে ধরা হলো : ১. ইমাম মালেক বলেছেন, ما …

আরো পড়ুন