হোম / প্রবন্ধ নিবন্ধ

প্রবন্ধ নিবন্ধ

স্রষ্টা ও তাঁর অস্তিত্ব

আল্লামা মনজূর নোমানী রহঃ আমাদের এবং সমগ্র বিশ্বজগতের মহান কোনো সৃষ্টিকর্তা আছেন এবং তিনিই আপন কুদরতে সবকিছু পরিচালনা করছেন এ-বিশ্বাসটুকুর উপর সকল দ্বীন ও ধর্মের মূল ভিত্তি। যদি কেউ এটুকু মানতে প্রস্তুত না হয়, তাহলে দ্বীন-ধর্মের সব কথাই তার কাছে পাগলের প্রলাপ কিংবা সেকেলে মানুষের অলীক কল্পনা বলে মনে হবে। …

আরো পড়ুন

কার উপর কখন নাযিল হলো আলকোরআন

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ আজ থেকে প্রায় দেড়হাজার বছর আগের কথা। তখন গোটা পৃথিবী হেদায়েতের নূর থেকে বঞ্চিত ছিলো। মানবতা ও নীতিনৈতিকতা হারিয়ে গিয়েছিলো অতল গহ্বরে। ইউরোপের ওপর ছেয়ে গিয়েছিলো মধ্যযুগীয় অন্ধকার। সকল অন্যায় ও অশ্লীলতার জয়জয়কার ছিলো ইরানে। সেখানে ভদ্্রতা ও শালীনতার কবর রচিত হয়ে ছিলো। মানুষ আর পশুতে …

আরো পড়ুন

বিতর সালাত সম্পর্কে মুযাফফর বিন মুহসিনের নজীরবিহীন প্রতারণা ও জালিয়াতি

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু মুযাফফর বিন মুহসিন তার ‘জাল হাদীছের কবলে রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এর ছালাত’ বইয়ে বিতর নামায সম্পর্কেও অনেক জালিয়তি ও ভুল তথ্য পেশ করেছেন। তিনি চেষ্টা করেছেন একথা প্রমাণ করার যে, বিতর ছালাত এক রাকাত অথবা তিন রাকাত হলে দুই সালামে কিংবা দ্বিতীয় রাকাতে বৈঠক ব্যতিত এক …

আরো পড়ুন

মুযাফফর বিন মুহসিন কেন জাল হাদীসের কবলে? আল্লামা আলবানী একাডেমীর অবিশ্বাস্য জালিয়াতি

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু লেখক মুযাফফর বিন মুহসিন তার  জাল হাদীছের কবলে রাসূলুল্লাহ ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ছালাত বইতে হানাফী জাল হাদীস ধরার জন্য যেন জাল পেতেছেন। অবশেষে নিজের পাতা জালে নিজেই আটকা পড়েছেন। মানসুখ কাহিনী : ঐতিহাসিক মিথ্যাচার শিরোনামে তিনি রাসূল সা. যে সারা জীবন রফয়ে ইয়াদায়ন করেছেন তার …

আরো পড়ুন

রফউল ইয়াদাইনের মাসআলায় মুযাফফর বিন মুহসিনের আজব প্রতারণা

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু এ মাসআলায় আমাদের লা-মাযহাবী বন্ধু মুযাফফর বিন মুহসিন তার জাল হাদীছের কবলে রাসূলুল্লাহ ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ছালাত নামক বইটিতে বলেছেন: ‘জ্ঞাতব্য : রাফউল ইয়াদায়েনের সুন্নাতকে রহিত করার জন্য আব্দুল্লাহ ইবনু জুবাইর, আব্দুল্লাহ ইবনু আব্বাস, আব্দুল্লাহ ইবনু মাসউদ (রা.) এই অন্যতম শ্রেষ্ঠ কয়েকজন ছাহাবীর নামে উক্ত …

আরো পড়ুন

শুধু তাকবীরে তাহরীমার সময় রফয়ে ইয়াদাইন সুন্নত

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু একাধিক হাদীস ও অধিকাংশ সাহাবী ও তাবেয়ীর আমল একথা প্রমাণ করে যে, নামাযে শুধু প্রথম তাকবীরের সময় কান পর্যন্ত হাত তোলা সুন্নত। রুকুতে যাওয়ার সময় এবং রুকু থেকে ওঠার সময় হাত তোলা সুন্নত নয়। সাহাবীগনের যুগে মদীনা শরীফ এবং কুফা এই দুটি শহরেই অধিকাংশ সাহাবী …

আরো পড়ুন

আল্লাহ ও তাঁর রাসুল এবং দ্বীনের প্রতি মুহাব্বত

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ প্রিয় ভাই! যেমনিভাবে ইসলাম আমাদেরকে নামায-রোযার তালিম দেয়, সদাচার ও ন্যায় বিচারের শিক্ষা দেয়, তেমনি এ শিক্ষাও দেয় যে, দুনিয়ার সবকিছু থেকে এমনকি নিজের জান-মাল, ইজ্জত-সম্মান, পিতা-মাতা, বিবি-বাচ্চা সবকিছু থেকে আল্লাহ ও তাঁর রাসুল এবং দ্বীনকে আমরা বেশি মুহাব্বত করবো। অর্থাৎ যদি এমন কঠিন মুহূর্ত আসে …

আরো পড়ুন

স্বশব্দে আমীন বলার হাদীসগুলো কী সহীহ?

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু জোরে আমীন বলার হাদীস : একটু পর্যালোচনা জোরে আমীন বলা সম্পর্কিত হাদীসগুলি সম্পর্কে মূল কথা হলো, যেটি সহীহ, সেটি সুস্পষ্ট(صريح) নয়। আর যেটি সুস্পষ্ট সেটি সহীহ নয়। যেমন: ১ বুখারী ও মুসলিম প্রভৃতি গ্রন্থে اذا امن الامام فامنوا হাদীসটি উদ্ধৃত হয়েছে। এ বাক্যটির একটি অর্থ …

আরো পড়ুন

সহীহ হাদীসের আলোকে নামাযে নিরবে আমীন বলা সুন্নত

আল্লামা আব্দুল মতীন দামাত বারাকাতুহু আমীন সম্পর্কেও কিছু লোক বাড়াবাড়ি করে। তারা বলে নামাযে আমীন জোরে বলতে হবে। আস্তে বলা সুন্নতের পরিপন্থী। তাদের একথা সঠিক নয়। হাদীস শরীফ, অধিকাংশ সাহাবী ও তাবেয়ী’র আমল দ্বারা একথাই প্রমাণিত হয় যে, আমীন আস্তে বলাই সুন্নত। নিমস্বরে আমীন বলা অধিকাংশ সাহাবী ও তাবেয়ীর আমল …

আরো পড়ুন

শহীদের মর্যাদা ও ফযীলত

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ যদি দ্বীনের উপর অবিচল থাকার কারণে আল্লাহ পাকের কোনো বান্দা-বান্দীকে হত্যা করা হয়, অথবা দ্বীনের পথে জিহাদ ও মেহনত করতে গিয়ে কারো মৃত্যু হয়, তবে শরীয়তের পরিভাষায় তাকে শহীদ বলে। আল্লাহ পাকের দরবারে শহীদের অনেক অনেক মর্যাদা। কোরআন শরীফে আল্লাহ পাক ইরশাদ করেন, وَلَا تَحْسَبَنَّ الَّذِينَ …

আরো পড়ুন

দরুদ ও সালাম

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ দরুদ এবং সালামও এক প্রকার দুআ। আল্লাহ পাকের নিকট নবীজীর জন্য আমরা এ দুআ করে থাকি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। বস্তুত আমাদের উপর আল্লাহ তাআলার পরে নবীজীর অনুগ্রহ সবচে বড়। তিনি হাজারো বিপদ-মুসিবত অতিক্রম করে আমাদের পর্যন্ত দ্বীন পৌঁছিয়েছেন। যদি তিনি সীমাহীন ত্যাগ ও কোরবানী স্বীকার …

আরো পড়ুন

দ্বীনরক্ষা ও প্রতিষ্ঠার জন্য শক্তি ব্যয় করা

আল্লামা মনজূর নূমানী রহঃ আমরা যে সত্য ধর্ম গ্রহণ করেছি এবং যে পরকালমুখী সার্বজনীন জীবন ব্যবস্থা অনুসরণ করছি, তা যেন সর্বাস্থায় সুরক্ষিত থাকে এবং ক্রমেই যেন পৃথিবীময় বিস্তৃতি ও প্রতিষ্ঠা লাভ করে এজন্য সর্ব শক্তি নিয়োগ করা আমাদের একান্ত কর্তব্য । দ্বীনী পরিভাষায় একে ‘জিহাদ’ বলে। মুমিনদের প্রতি জিহাদ আল্লাহ …

আরো পড়ুন